কাবুলে ড্রোন হামলায় নিহতের পরিবারকে যে প্রস্তাব দিল যুক্তরাষ্ট্র
jugantor
কাবুলে ড্রোন হামলায় নিহতের পরিবারকে যে প্রস্তাব দিল যুক্তরাষ্ট্র

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩৩:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে মার্কিন ড্রোন হামলায় ১০ আফগান বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছিল। ড্রোন হামলার পর যুক্তরাষ্ট্র ১০জন বেসামরিক নাগরিক হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে ওই ঘটনাকে ‘দুঃখজনক ভুল’ বলে অভিহিত করেছিল। এবার নিহতদের পরিবারের সদস্যদের আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

পাশাপাশি নিহতদের পরিবারের সদস্যদের যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় দেওয়ার বিষয় নিয়েই কাজ করা হচ্ছে বলে পেন্টাগনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

পেন্টাগন এক বিবৃতিতে জানায়, বৃহস্পতিবার মার্কিন পলিসি বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি কলিন কাহল এবং কাবুলের ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান নিউট্রিশন অ্যান্ড এডুকেশন ইন্টারন্যাশনালের (এনএআই) প্রেসিডেন্ট স্টিভেন কোনের মধ্যকার বৈঠকে এই ক্ষতিপূরণের প্রস্তাব দেওয়া হয়।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী পুরোপুরি প্রত্যাহারের মাত্র একদিন আগে ৩০ আগস্ট এই ড্রোন হামলার ঘটনা ঘটে।

হামলার পর প্রথমে পেন্টাগন জানিয়েছিল, সন্দেহভাজন ইসলামিক স্টেট খোরাসান (আইএস-কে) সদস্যদের গাড়ি লক্ষ্য করে একটি ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে। নিহতদের মধ্যে কাবুল বিমানবন্দরে হামলার মূল পরিকল্পনাকারীও রয়েছেন। পরে অবশ্য নিজেদের ভুল স্বীকার করে যুক্তরাষ্ট্র।

ওই ড্রোন হামলায় জামারাই আহমেদি কাবুলে ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক ওই অলাভজনক প্রতিষ্ঠান এনএআইয়ে কাজ করতেন। ড্রোন হামলায় আহমেদির পরিবারের সাত শিশুসহ মোট ১০ জন নিহত হয়েছিল।

কাবুলে ড্রোন হামলায় নিহতের পরিবারকে যে প্রস্তাব দিল যুক্তরাষ্ট্র

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে মার্কিন ড্রোন হামলায়  ১০ আফগান বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছিল। ড্রোন হামলার পর যুক্তরাষ্ট্র ১০জন বেসামরিক নাগরিক হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে ওই ঘটনাকে ‘দুঃখজনক ভুল’ বলে অভিহিত করেছিল। এবার নিহতদের পরিবারের সদস্যদের আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

পাশাপাশি নিহতদের পরিবারের সদস্যদের যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় দেওয়ার বিষয় নিয়েই কাজ করা হচ্ছে বলে পেন্টাগনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

পেন্টাগন এক বিবৃতিতে জানায়, বৃহস্পতিবার মার্কিন পলিসি বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি কলিন কাহল এবং কাবুলের ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান নিউট্রিশন অ্যান্ড এডুকেশন ইন্টারন্যাশনালের (এনএআই) প্রেসিডেন্ট স্টিভেন কোনের মধ্যকার বৈঠকে এই ক্ষতিপূরণের প্রস্তাব দেওয়া হয়।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী পুরোপুরি প্রত্যাহারের মাত্র একদিন আগে ৩০ আগস্ট এই ড্রোন হামলার ঘটনা ঘটে।

হামলার পর প্রথমে পেন্টাগন জানিয়েছিল, সন্দেহভাজন ইসলামিক স্টেট খোরাসান (আইএস-কে) সদস্যদের গাড়ি লক্ষ্য করে একটি ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে। নিহতদের মধ্যে কাবুল বিমানবন্দরে হামলার মূল পরিকল্পনাকারীও রয়েছেন। পরে অবশ্য নিজেদের ভুল স্বীকার করে যুক্তরাষ্ট্র।

ওই ড্রোন হামলায় জামারাই আহমেদি কাবুলে ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক ওই অলাভজনক প্রতিষ্ঠান এনএআইয়ে  কাজ করতেন। ড্রোন হামলায় আহমেদির পরিবারের সাত শিশুসহ মোট ১০ জন নিহত হয়েছিল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর