এবার ইরানের সঙ্গে তুরস্কের নতুন চুক্তি
jugantor
এবার ইরানের সঙ্গে তুরস্কের নতুন চুক্তি

  অনলাইন ডেস্ক  

২২ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৬:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

এবার ইরানের সঙ্গে তুরস্কের নতুন চুক্তি

নতুন একটি সমঝোতা স্মারক সই করেছে তেহরান ও আঙ্কারা।

বুধবার তেহরানে ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমাদ ভাহিদি তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সইলুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ সময় তারা এ সমঝোতা স্মারক সই করেন।

ইরানের গণমাধ্যম তাসনিম নিউজ এজেন্সি এ তথ্য জানায়।

খবরে বলা হয়, দুই দেশ নিরাপত্তাসংক্রান্ত বিষয়ে সহযোগিতা, কৌশলগত সম্পর্ক বৃদ্ধি এবং যৌথভাবে সন্ত্রাসবাদ ও পাচারের বিরুদ্ধে লড়তে এ সমঝোতা স্মারক সই করে।

পরে সমঝোতা স্মারক সইয়ের বিষয়ে দুই দেশের মন্ত্রী গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন।

ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমাদ ভাহিদি বলেন, সব ক্ষেত্রে আমরা উভয় দেশের মধ্যে সম্পর্ক বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা করেছি। বিশেষ করে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই, আন্তর্জাতিক অপরাধ এবং অস্ত্র ও মাদকপাচারের বিষয় গুরুত্ব পেয়েছে বেশি।

তিনি আরও বলেন, এসব বিষয় ছাড়াও এ অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র ও ইহুদিবাদী ইসরাইলের ধ্বংসাত্মক তৎপরতা, তাদের ষড়যন্ত্রের কারণে সৃষ্ট নানা সমস্যা এবং আফগান পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

‘ইরান-তুরস্কের সম্পর্ক আরও গতি পাবে। শত্রুদের ষড়যন্ত্র রুখতে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করবে’, যোগ করেন ভাহিদি।

তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়েছে।

সইলু বলেন, ইরান ও তুরস্ক কুর্দিশ ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) সন্ত্রাসীসহ অন্যান্য জঙ্গিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ক্ষেত্রে সহযোগিতা করছে এবং দুই দেশই সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে বদ্ধপরিকর।

তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন কুর্দিশ ওয়ার্কার্স পার্টিকে (পিকেকে) সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে দেখে। ১৯৮৪ সাল থেকে তারা তুরস্কের বিরুদ্ধে লড়ছে। এ পর্যন্ত লড়াইয়ে ৪০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

এবার ইরানের সঙ্গে তুরস্কের নতুন চুক্তি

 অনলাইন ডেস্ক 
২২ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
এবার ইরানের সঙ্গে তুরস্কের নতুন চুক্তি
ছবি: সংগৃহীত

নতুন একটি সমঝোতা স্মারক সই করেছে তেহরান ও আঙ্কারা।

বুধবার তেহরানে ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমাদ ভাহিদি তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সইলুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।  এ সময় তারা এ সমঝোতা স্মারক সই করেন।

ইরানের গণমাধ্যম তাসনিম নিউজ এজেন্সি এ তথ্য জানায়।

খবরে বলা হয়, দুই দেশ নিরাপত্তাসংক্রান্ত বিষয়ে সহযোগিতা, কৌশলগত সম্পর্ক বৃদ্ধি এবং যৌথভাবে সন্ত্রাসবাদ ও পাচারের বিরুদ্ধে লড়তে এ সমঝোতা স্মারক সই করে।

পরে সমঝোতা স্মারক সইয়ের বিষয়ে দুই দেশের মন্ত্রী গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন।

ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমাদ ভাহিদি বলেন, সব ক্ষেত্রে আমরা উভয় দেশের মধ্যে সম্পর্ক বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা করেছি। বিশেষ করে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই, আন্তর্জাতিক অপরাধ এবং অস্ত্র ও মাদকপাচারের বিষয় গুরুত্ব পেয়েছে বেশি।

তিনি আরও বলেন, এসব বিষয় ছাড়াও এ অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র ও ইহুদিবাদী ইসরাইলের ধ্বংসাত্মক তৎপরতা, তাদের ষড়যন্ত্রের কারণে সৃষ্ট নানা সমস্যা এবং আফগান পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

‘ইরান-তুরস্কের সম্পর্ক আরও গতি পাবে। শত্রুদের ষড়যন্ত্র রুখতে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করবে’, যোগ করেন ভাহিদি।

তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়েছে।

সইলু বলেন, ইরান ও তুরস্ক কুর্দিশ ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) সন্ত্রাসীসহ অন্যান্য জঙ্গিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ক্ষেত্রে সহযোগিতা করছে এবং দুই দেশই সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে বদ্ধপরিকর।

তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন কুর্দিশ ওয়ার্কার্স পার্টিকে (পিকেকে) সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে দেখে। ১৯৮৪ সাল থেকে তারা তুরস্কের বিরুদ্ধে লড়ছে। এ পর্যন্ত লড়াইয়ে ৪০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন