৭০ বছর বয়সে প্রথম সন্তানের জন্ম দিলেন এই নারী!
jugantor
৭০ বছর বয়সে প্রথম সন্তানের জন্ম দিলেন এই নারী!

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ অক্টোবর ২০২১, ২২:৪৯:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারত

মাতৃত্ব প্রত্যেকটি নারীর জন্য এক অনন্য অভিজ্ঞতা। এই অনন্য অভিজ্ঞতার স্বাদ পেতে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হলো এই নারীকে। ৭০ বছর বয়সে প্রথমবারের মতো মাতৃত্বের স্বাদ পেলেন তিনি। বিয়ের ৪৫ বছর পর তার কোল আলো করে এলো এক পুত্র সন্তান।

ভারতের গুজরাতের বাসিন্দা জিভবেন ভালাভাই রাবারি ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন বা আইভিএফের মাধ্যমে গত মাসে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন বলে শুক্রবার একটি ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।

চিকিৎসকরা অবশ্য এই বয়সে এসে গর্ভধারণের ঝুঁকি নিতে নিষেধ করেছিলেন। কিন্তু জিভবেন সন্তান নেওয়ার ব্যাপারে ভীষণ আবেগপ্রবণ হওয়ার ঝুঁকির পরও গর্ভধারণ করেছিলেন।

বয়সের কারণে তার নিয়মিত মাসিক চক্রও বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তাই এই বয়সের একজনের ওপর আইভিএফ পদ্ধতির প্রয়োগ চিকিৎসকদের জন্য চ্যালেঞ্জিং ছিল বৈকি।

এ ব্যাপারে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. নরেশ ভানুশালী জানান, প্রথমে মুখে খাওয়ার ওষুধ দিয়ে তার মাসিক চক্র নিয়মিত করা হয়। এরপর বয়সের কারণে সঙ্কুচিত জরায়ুকে চওড়া করা হয়। পরবর্তীকে তার ডিম্বাণু নিষিক্ত করার পর ব্লাস্টোসিস্ট তৈরি করে জরায়ুতে স্থানান্তর করা হয়।

দুই সপ্তাহ পর চিকিৎসকরা সোনোগ্রাফিতে ভ্রূণের উন্নতি দেখে খুবই অবাক হন। এরপর থেকে চিকিৎসকরা তাকে পর্যবেক্ষণে রাখেন। পরবর্তীতে যথাসময়ে হৃদস্পন্দন শনাক্ত হয় এবং ভ্রূণে কোনো ধরনের বিকৃতিও দেখা যায়নি। তাই জিভবেনের গর্ভধারণ চালিয়ে যেতে পারবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা।

জিভবেনের কোনো শারীরিক জটিলতা না থাকলেও বয়সের কারণে গর্ভধারণের আট মাসের মাথায় অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমেই পুত্র সন্তানের জন্ম দেন জিভবেন। মা ও শিশু দুজনেই সুস্থ আছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

৭০ বছর বয়সে প্রথম সন্তানের জন্ম দিলেন এই নারী!

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ভারত
ছবি : প্রতীকী

মাতৃত্ব প্রত্যেকটি নারীর জন্য এক অনন্য অভিজ্ঞতা। এই অনন্য অভিজ্ঞতার স্বাদ পেতে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হলো এই নারীকে। ৭০ বছর বয়সে প্রথমবারের মতো মাতৃত্বের স্বাদ পেলেন তিনি। বিয়ের ৪৫ বছর পর তার কোল আলো করে এলো এক পুত্র সন্তান। 

ভারতের গুজরাতের বাসিন্দা জিভবেন ভালাভাই রাবারি ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন বা আইভিএফের মাধ্যমে গত মাসে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন বলে শুক্রবার একটি ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে। 

চিকিৎসকরা অবশ্য এই বয়সে এসে গর্ভধারণের ঝুঁকি নিতে নিষেধ করেছিলেন। কিন্তু জিভবেন সন্তান নেওয়ার ব্যাপারে ভীষণ আবেগপ্রবণ হওয়ার ঝুঁকির পরও গর্ভধারণ করেছিলেন। 

বয়সের কারণে তার নিয়মিত মাসিক চক্রও বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তাই এই বয়সের একজনের ওপর আইভিএফ পদ্ধতির প্রয়োগ চিকিৎসকদের জন্য চ্যালেঞ্জিং ছিল বৈকি।

এ ব্যাপারে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. নরেশ ভানুশালী জানান, প্রথমে মুখে খাওয়ার ওষুধ দিয়ে তার মাসিক চক্র নিয়মিত করা হয়। এরপর বয়সের কারণে সঙ্কুচিত জরায়ুকে চওড়া করা হয়। পরবর্তীকে তার ডিম্বাণু নিষিক্ত করার পর ব্লাস্টোসিস্ট তৈরি করে জরায়ুতে স্থানান্তর করা হয়। 

দুই সপ্তাহ পর  চিকিৎসকরা সোনোগ্রাফিতে ভ্রূণের উন্নতি দেখে খুবই অবাক হন। এরপর থেকে চিকিৎসকরা তাকে পর্যবেক্ষণে রাখেন। পরবর্তীতে যথাসময়ে হৃদস্পন্দন শনাক্ত হয় এবং ভ্রূণে কোনো ধরনের বিকৃতিও দেখা যায়নি। তাই জিভবেনের গর্ভধারণ চালিয়ে যেতে পারবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা।

জিভবেনের কোনো শারীরিক জটিলতা না থাকলেও বয়সের কারণে গর্ভধারণের আট মাসের মাথায় অস্ত্রোপচারের  সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা।  অস্ত্রোপচারের মাধ্যমেই পুত্র সন্তানের জন্ম দেন জিভবেন। মা ও শিশু দুজনেই সুস্থ আছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন