পাকিস্তান আফগানিস্তান দখল করেছে, দাবি আমরুল্লাহ’র
jugantor
পাকিস্তান আফগানিস্তান দখল করেছে, দাবি আমরুল্লাহ’র

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৫৫:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তান আফগানিস্তান দখল করেছে, দাবি আমরুল্লাহ’র

আফগানিস্তানের ওপর তালেবানের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠাকে ‘পাকিস্তানের আফগানিস্তান দখল’ বলে অভিহিত করেছেন দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ। তালেবান ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে আফগান জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার অজ্ঞাত স্থান থেকে এক টুইটার বার্তায় এসব দাবি করেন আশরাফ গনি সরকারের সাবেক এ ভাইস প্রেসিডেন্ট।

আমরুল্লাহ সালেহ বলেন, এই সময়ে আফগানিস্তানের মূল কূটনীতি কাতারের রাজধানী দোহায় স্থানান্তরিত হয়েছে এবং আফগানিস্তানের সামরিক সিদ্ধান্তগুলো রাওয়ালপিন্ডিতে নেয়া হচ্ছে।

সালেহর মতে, এসব ঘটনার ঘনঘটায় কোয়েটার হক্কানিয়া মাদ্রাসায় প্রশিক্ষিত পাগড়িধারী সন্ত্রাসীরা আফগানিস্তানের ক্ষমতায় অধিষ্টিত হয়েছে।

আমরুল্লাহ সালেহ আরো লিখেছেন, পাকিস্তান যা গিলে ফেলেছে তার চেয়ে আফগানিস্তান অনেক বড়। পাকিস্তানের আফগানিস্তান দখলের ঘটনা গত দুই মাসে দারিদ্র, সামাজিক অস্থিরতা এবং শরিয়তের নামে নারীদের দাসত্ব ছাড়া আফগানিস্তানকে আর কিছু দিতে পারেনি।

এদিকে গত বুধবার রাশিয়ার আমন্ত্রণে ভারত, পাকিস্তান, ইরান, চীনসহ ১০টি আঞ্চলিক শক্তি তালেবানের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হয়। এই বৈঠকে আফগানিস্তানে মানবিক সাহায্যার্থে জাতিসংঘকে ‘দাতা সম্মেলন’ আয়োজন করতে তালেবানকে সমর্থন দেওয়ার কথা জানিয়েছে।

বৈঠকে অন্যান্য যে দেশগুলো ছিল তারা হলো- সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান, তুর্কিমিনিস্তান ও উজবেকিস্তান।

চীন, ইরানসহ এই দেশগুলো যৌথভাবে জাতিসংঘকে আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তার্থে অবিলম্বে দাতা সম্মেলন আয়োজন করার আহ্বান জানাতে সম্মতি প্রকাশ করেছে।

মস্কোতে তালেবানের সঙ্গে বৈঠকে অংশ নেওয়া দেশগুলো বলছে, যারা বিগত ২০ বছর ধরে আফগানিস্তানে ছিল অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদেশগুলোকে আফগানিস্তানের বোঝা বহন করা উচিত।

পাকিস্তান আফগানিস্তান দখল করেছে, দাবি আমরুল্লাহ’র

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৩ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পাকিস্তান আফগানিস্তান দখল করেছে, দাবি আমরুল্লাহ’র
ছবি: সংগৃহীত

আফগানিস্তানের ওপর তালেবানের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠাকে ‘পাকিস্তানের আফগানিস্তান দখল’ বলে অভিহিত করেছেন দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ।  তালেবান ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে আফগান জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার অজ্ঞাত স্থান থেকে এক টুইটার বার্তায় এসব দাবি করেন আশরাফ গনি সরকারের সাবেক এ ভাইস প্রেসিডেন্ট।  

আমরুল্লাহ সালেহ বলেন, এই সময়ে আফগানিস্তানের মূল কূটনীতি কাতারের রাজধানী দোহায় স্থানান্তরিত হয়েছে এবং আফগানিস্তানের সামরিক সিদ্ধান্তগুলো রাওয়ালপিন্ডিতে নেয়া হচ্ছে। 

সালেহর মতে, এসব ঘটনার ঘনঘটায় কোয়েটার হক্কানিয়া মাদ্রাসায় প্রশিক্ষিত পাগড়িধারী সন্ত্রাসীরা আফগানিস্তানের ক্ষমতায় অধিষ্টিত হয়েছে।

আমরুল্লাহ সালেহ আরো লিখেছেন, পাকিস্তান যা গিলে ফেলেছে তার চেয়ে আফগানিস্তান অনেক বড়। পাকিস্তানের আফগানিস্তান দখলের ঘটনা গত দুই মাসে দারিদ্র, সামাজিক অস্থিরতা এবং শরিয়তের নামে নারীদের দাসত্ব ছাড়া আফগানিস্তানকে আর কিছু দিতে পারেনি।

এদিকে গত বুধবার রাশিয়ার আমন্ত্রণে ভারত, পাকিস্তান, ইরান, চীনসহ ১০টি আঞ্চলিক শক্তি তালেবানের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হয়। এই বৈঠকে আফগানিস্তানে মানবিক সাহায্যার্থে জাতিসংঘকে ‘দাতা সম্মেলন’ আয়োজন করতে তালেবানকে সমর্থন দেওয়ার কথা জানিয়েছে।

বৈঠকে অন্যান্য যে দেশগুলো ছিল তারা হলো- সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান, তুর্কিমিনিস্তান ও উজবেকিস্তান। 

চীন, ইরানসহ এই দেশগুলো যৌথভাবে জাতিসংঘকে আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তার্থে অবিলম্বে দাতা সম্মেলন আয়োজন করার আহ্বান জানাতে সম্মতি প্রকাশ করেছে। 

মস্কোতে তালেবানের সঙ্গে বৈঠকে অংশ নেওয়া দেশগুলো বলছে, যারা বিগত ২০ বছর ধরে আফগানিস্তানে ছিল অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্র  ও তার মিত্রদেশগুলোকে আফগানিস্তানের বোঝা বহন করা উচিত।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন