কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনবে সৌদি আরব
jugantor
কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনবে সৌদি আরব

  অনলাইন ডেস্ক  

২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩৭:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

২০৬০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। দেশটির ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান শনিবার রিয়াদে গ্রিন ইনিশিয়েটিভ ফোরামে দেওয়া বক্তব্যে এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে প্রতি বছর ২৭৮ মিলিয়ন টন কার্বন নিঃসরণ কমাবে সৌদি আরব। এভাবে ধীরে ধীরে কার্বন নিঃসরণ কমানোর মধ্যদিয়ে লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে যাবে দেশটি।

কার্বন নিঃসরণ কমানোর পাশাপাশি বৈশ্বিক মিথেন নিঃসরণ কমিয়ে আনার ব্যাপারে অবদান রাখতে ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ শতাংশ মিথেন নিঃসরণ কমানোর ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব।
এদিকে, ২০৩০ সালের মধ্যে ৪৫০ মিলিয়ন গাছ লাগানো ও ৮ মিলিয়ন অনুর্বর জমিকে চাষযোগ্য করে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রিন্স সালমান।

এছাড়া, স্থলজ, সামুদ্রিক এবং উপকূলীয় পরিবেশের সুরক্ষাকে আরও জোরদার করতে সৌদি আরব গ্লোবাল ওশান অ্যালায়েন্সে যোগদান করেছে বলে জানিয়েছেন প্রিন্স সালমান। স্থলজ, সামুদ্রিক এবং উপকূলীয় পরিবেশের সুরক্ষায় ওশান এক্সপ্লোরেশন ফাউন্ডেশন গঠন করা ছাড়াও নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি আরব।

কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনবে সৌদি আরব

 অনলাইন ডেস্ক 
২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

২০৬০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। দেশটির ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান শনিবার রিয়াদে গ্রিন ইনিশিয়েটিভ ফোরামে দেওয়া বক্তব্যে এ কথা জানান। 

তিনি বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে প্রতি বছর ২৭৮ মিলিয়ন টন কার্বন নিঃসরণ কমাবে সৌদি আরব। এভাবে ধীরে ধীরে কার্বন নিঃসরণ কমানোর মধ্যদিয়ে লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে যাবে দেশটি।

কার্বন নিঃসরণ কমানোর পাশাপাশি বৈশ্বিক মিথেন নিঃসরণ কমিয়ে আনার ব্যাপারে অবদান রাখতে ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ শতাংশ মিথেন নিঃসরণ কমানোর ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। 
এদিকে, ২০৩০ সালের মধ্যে ৪৫০ মিলিয়ন গাছ লাগানো ও ৮ মিলিয়ন অনুর্বর জমিকে চাষযোগ্য করে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রিন্স সালমান। 

এছাড়া, স্থলজ, সামুদ্রিক এবং উপকূলীয় পরিবেশের সুরক্ষাকে আরও জোরদার করতে সৌদি আরব গ্লোবাল ওশান অ্যালায়েন্সে যোগদান করেছে বলে জানিয়েছেন প্রিন্স সালমান।  স্থলজ, সামুদ্রিক এবং উপকূলীয় পরিবেশের সুরক্ষায় ওশান এক্সপ্লোরেশন ফাউন্ডেশন গঠন করা ছাড়াও নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি আরব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন