গাজায় গ্রেট মার্চ অব রিটার্ন

ইসরাইলি সেনাদের গুলিতে এক ফিলিস্তিনি নিহত

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৮, ১২:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

  অনলাইন ডেস্ক

গাজা উপত্যকায় শুক্রবার ভিটেমাটিতে ফেরার বিক্ষোভে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর গুলিতে এক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এতে আহত হন আরও কয়েকশ।

ছয় সপ্তাহ ধরে চলা এ বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত ৫২জন নিহত হয়েছেন। আগামী ১৫ মে নাকবা বা বিপর্যয় দিবসে এটি চূড়ান্ত ও ব্যাপক বিক্ষোভে রূপ নিতে যাচ্ছে।-খবর রয়টার্সের।

১৯৪৮ সালে অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল প্রতিষ্ঠা সময় সাড়ে সাত লাখেরও বেশি ফিলিস্তিনিকে তাদের ভিটেমাটি থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছিল।

বিতাড়িত হয়ে তারা গাজা, পশ্চিমতীরসহ প্রতিবেশী বিভিন্ন আরব দেশে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নিয়েছেন।

এসব শরণার্থীদের নিজেদের ভিটেমাটিতে ফেরত যাওয়ার অধিকার দাবিতে গত ৩০ মার্চ থেকে প্রতি শুক্রবার বিক্ষোভ করে আসছেন ফিলিস্তিনিরা। ১৫ মে পর্যন্ত যা চলবে।

বিক্ষোভের সংগঠকরা বলেন, গ্রেট মার্চ অব রিটার্ন নামের এই বিক্ষোভে আগামী সপ্তাহে কয়েক হাজার লোক যোগ দেবেন।

গাজা স্বাস্থ্য অধিদফতরের কর্মকর্তারা বলেন, শুক্রবারে নিহত ব্যক্তি দক্ষিণ গাজার খান ইউনিসের বাসিন্দা। এছাড়াও ১৬ বছরের এক কিশোরসহ আর সাত ব্যক্তি মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেন, ৯৭১ জনকে এ পর্যন্ত চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তারা তাজা গুলি, কাঁদানে গ্যাস ও গোলার টুকরা লেগে আহত হয়েছেন।

নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীদের ওপর নির্বিচার গুলি ছোড়ায় ইসরাইলের ব্যাপক সমালোচনা করেছে মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

যদিও ইসরাইল তাতে ভ্রুক্ষেপ না করে বিক্ষোভকারীদের গুলি করা অব্যাহত রেখেছে।

শুক্রবারে প্রকাশিত সেভ দা চিলড্রেনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিক্ষোভ চলাকালে এ পর্যন্ত আড়াইশ শিশু তাজা গুলিতে আহত হয়েছে। এছাড়াও আহত হন আরও প্রায় সাত শতাধিক শিশু।