গ্রেফতার আতঙ্কে ভুগছেন আরিয়ানকাণ্ডের তদন্ত কর্মকর্তা সমীর
jugantor
গ্রেফতার আতঙ্কে ভুগছেন আরিয়ানকাণ্ডের তদন্ত কর্মকর্তা সমীর

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৬:০৯:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

গ্রেফতার আতঙ্কে ভুগছেন আরিয়ানকাণ্ডের তদন্ত কর্মকর্তা সমীর

ভারতের মাদক নিয়ন্ত্রণ সংস্থার (এনসিবি) অন্যতম তদন্তকারী কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে নিজেই রয়েছেন গ্রেফতার আতঙ্কে। শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানকে গ্রেফতারের পর থেকেই তার মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানায়।

সমীর ওয়াংখেড়ের আশঙ্কা, তাকে গ্রেফতার করা হতে পারে।

তিনি এ আশঙ্কা থেকে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন মাদক নিয়ন্ত্রণ সংস্থার এ কর্মকর্তা।

সমীরকে নিয়ে বেশ কিছু দিন থেকেই বিতর্ক দানা বেঁধেছে। অভিযোগ উঠেছে, অর্থের বিনিময়ে শাহরুখ-পুত্রের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য জোগাড়ের চেষ্টা করেছেন তিনি।

খবরে বলা হয়, রোববার মুম্বাই পুলিশ কমিশনারের কাছে গিয়েছিলেন সমীর। সোমবার আদালতের দ্বারস্থ হলেন তিনি।

মাদক মামলার বিশেষ আদালতে বিচারককে সমীর বলেন, আমার পরিবার, বোন, এমনকি মৃত মাকেও নিশানা করা হচ্ছে। যে কোনো ধরনের তল্লাশির জন্য আমি রাজি। ১৫ বছর ধরে কাজ করছি। কিন্তু আমার ব্যক্তিগত জীবন আর কাজ নিয়ে এমন অভিযোগ এর আগে কখনও ওঠেনি।

অভিযোগ, আরিয়ান খানের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য সমীরকে অন্য ব্যক্তির মাধ্যমে ঘুস দেওয়ার চেষ্টা করা হয়।

গত ২ অক্টোবর একটি প্রমোদতরী থেকে আরিয়ানসহ আটজনকে মাদক মামলায় আটক করা হয়। ৩ তারিখে তাকে সরকারিভাবে গ্রেফতার দেখায় মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো। তার পরে ওই মামলায় আরও অনেককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

৩ তারিখ থেকেই আরিয়ানরা মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর হেফাজতে। গত ৮ অক্টোবর আদালতে হাজির করানো হলে আরিয়ানকে জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

গ্রেফতার আতঙ্কে ভুগছেন আরিয়ানকাণ্ডের তদন্ত কর্মকর্তা সমীর

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৪:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গ্রেফতার আতঙ্কে ভুগছেন আরিয়ানকাণ্ডের তদন্ত কর্মকর্তা সমীর
সমীর ও আরিয়ান। ছবি: সংগৃহীত

ভারতের মাদক নিয়ন্ত্রণ সংস্থার (এনসিবি) অন্যতম তদন্তকারী কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে নিজেই রয়েছেন গ্রেফতার আতঙ্কে। শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানকে গ্রেফতারের পর থেকেই তার মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানায়।

সমীর ওয়াংখেড়ের আশঙ্কা, তাকে গ্রেফতার করা হতে পারে। 

তিনি এ আশঙ্কা থেকে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন মাদক নিয়ন্ত্রণ সংস্থার এ কর্মকর্তা।

সমীরকে নিয়ে বেশ কিছু দিন থেকেই বিতর্ক দানা বেঁধেছে। অভিযোগ উঠেছে, অর্থের বিনিময়ে শাহরুখ-পুত্রের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য জোগাড়ের চেষ্টা করেছেন তিনি। 

খবরে বলা হয়, রোববার মুম্বাই পুলিশ কমিশনারের কাছে গিয়েছিলেন সমীর। সোমবার আদালতের দ্বারস্থ হলেন তিনি।

মাদক মামলার বিশেষ আদালতে বিচারককে সমীর বলেন, আমার পরিবার, বোন, এমনকি মৃত মাকেও নিশানা করা হচ্ছে। যে কোনো ধরনের তল্লাশির জন্য আমি রাজি। ১৫ বছর ধরে কাজ করছি। কিন্তু আমার ব্যক্তিগত জীবন আর কাজ নিয়ে এমন অভিযোগ এর আগে কখনও ওঠেনি।

অভিযোগ, আরিয়ান খানের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য সমীরকে অন্য ব্যক্তির মাধ্যমে ঘুস দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। 

গত ২ অক্টোবর একটি প্রমোদতরী থেকে আরিয়ানসহ আটজনকে মাদক মামলায় আটক করা হয়। ৩ তারিখে তাকে সরকারিভাবে গ্রেফতার দেখায় মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো। তার পরে ওই মামলায় আরও অনেককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

৩ তারিখ থেকেই আরিয়ানরা মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর হেফাজতে। গত ৮ অক্টোবর আদালতে হাজির করানো হলে আরিয়ানকে জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন