সরকার ভেঙে দিয়ে সুদানে জরুরি অবস্থা জারি
jugantor
সরকার ভেঙে দিয়ে সুদানে জরুরি অবস্থা জারি

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৫ অক্টোবর ২০২১, ২১:২৪:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

অন্তর্বর্তী সরকার ভেঙে দিয়ে সুদানের ক্ষমতা দখল করেছে সুদানের সেনাবাহিনী। একই সঙ্গে দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান।

সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদককে সেনাবাহিনী গৃহবন্দি করার পর দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়। একই সঙ্গে দেশটির আরও কয়েকজন নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে জরুরি অবস্থা ঘোষণার পর বিক্ষোভকারীরা রাজধানী খার্তুমসহ বিভিন্ন শহরের রাস্তায় নেমে আসেন। বিক্ষোভে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে বলে বিবিসির প্রতিবেদনে জানা গেছে।

বিবিসির স্থানীয় প্রতিনিধি জানান, বিক্ষোভকারীদের বেসামরিক সরকারের দাবিতে আন্দোলন করতে দেখা গেছে। এ সময় রাস্তায় বিক্ষোভকারীরা আগুন ধরিয়ে দেন বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচারিত ভিডিওতে দেখা গেছে।

এদিকে, রাজধানীতে সেনাবাহিনী ছাড়াও আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে খার্তুম বিমানবন্দরের সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। দেশটিতে ইন্টারনেট পরিষেবাও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

গ্রেফতার নেতাদের মধ্যে রয়েছেন— শিল্পমন্ত্রী ইব্রাহিম আল-শেখ, তথ্যমন্ত্রী হামজা বালৌল ও প্রধানমন্ত্রীর গণমাধ্যমবিষয়ক উপদেষ্টা ফায়সাল মোহাম্মেদ সালেহ।

সুদানের ক্ষমতাসীন সার্বভৌম পরিষদের মুখপাত্র মুহাম্মদ আল-ফিকে সুলিমান ও দেশটির রাজধানী খার্তুমের গভর্নর আয়মান খালিদকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সুদানের কর্মকর্তাদের বরাতে জানা যায়, গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত মাসে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের পর দেশটিতে সামরিক ও বেসামরিক নেতৃত্বের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এর আগে ২০১৯ সালে তীব্র বিক্ষোভের মধ্যে দেশটির দীর্ঘদিনের শাসক ওমর আল-বশিরের পতন হয়।

সরকার ভেঙে দিয়ে সুদানে জরুরি অবস্থা জারি

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অন্তর্বর্তী সরকার ভেঙে দিয়ে সুদানের ক্ষমতা দখল করেছে সুদানের সেনাবাহিনী।  একই সঙ্গে দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান।

সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদককে সেনাবাহিনী গৃহবন্দি করার পর দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়। একই সঙ্গে দেশটির আরও কয়েকজন নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে জরুরি অবস্থা ঘোষণার পর বিক্ষোভকারীরা রাজধানী খার্তুমসহ বিভিন্ন  শহরের রাস্তায় নেমে আসেন। বিক্ষোভে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে বলে বিবিসির প্রতিবেদনে জানা গেছে।

বিবিসির স্থানীয় প্রতিনিধি জানান, বিক্ষোভকারীদের বেসামরিক সরকারের দাবিতে আন্দোলন করতে দেখা গেছে। এ সময় রাস্তায় বিক্ষোভকারীরা আগুন ধরিয়ে দেন বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচারিত ভিডিওতে দেখা গেছে।

এদিকে, রাজধানীতে সেনাবাহিনী ছাড়াও আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে খার্তুম বিমানবন্দরের সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। দেশটিতে ইন্টারনেট পরিষেবাও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। 

গ্রেফতার নেতাদের মধ্যে রয়েছেন— শিল্পমন্ত্রী ইব্রাহিম আল-শেখ, তথ্যমন্ত্রী হামজা বালৌল ও প্রধানমন্ত্রীর গণমাধ্যমবিষয়ক উপদেষ্টা ফায়সাল মোহাম্মেদ সালেহ।

সুদানের ক্ষমতাসীন সার্বভৌম পরিষদের মুখপাত্র মুহাম্মদ আল-ফিকে সুলিমান ও দেশটির রাজধানী খার্তুমের গভর্নর আয়মান খালিদকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সুদানের কর্মকর্তাদের বরাতে জানা যায়, গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত মাসে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের পর দেশটিতে সামরিক ও বেসামরিক নেতৃত্বের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এর আগে ২০১৯ সালে তীব্র বিক্ষোভের মধ্যে দেশটির দীর্ঘদিনের শাসক ওমর আল-বশিরের পতন হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন