শামির পাশে দাঁড়ালেন রাহুল-শচীনরা
jugantor
শামির পাশে দাঁড়ালেন রাহুল-শচীনরা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৩:১৫:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানের বিপক্ষে ১০ উইকেটে হারের পর গণমাধ্যমে বর্ণবাদী ও বিদ্বেষপূর্ণ আক্রমণের শিকার হন ভারতীয় দলের ডানহাতি পেসার মোহাম্মদ শামি।

মুসলিম হওয়ার কারণে ভারতীয় দলের এ পেসারকে ‘দেশদ্রোহী’ আখ্যা দিতে ছাড়েননি আক্রমণকারীরা। খবর এনডিটিভির।

ইনস্টাগ্রামে শামির অ্যাকাউন্টে এই আক্রমণ আছড়ে পড়েছে, যা দেখে ভারতের সাবেক ও বর্তমান অনেক ক্রিকেটারই সরব হয়েছেন।

শচীন টেন্ডুলকার থেকে বীরেন্দ্র শেবাগ অনেকেই শামির পাশে দাঁড়িয়ে আক্রমণকারীদের একহাত নিয়েছেন।

রাজনৈতিক মহলেও প্রতিক্রিয়া হয়েছে এ ঘটনার। রাহুল গান্ধীও পাশে দাঁড়িয়েছেন শামির।

টুইটারে রাহুল লিখেছেন—শামি, আমরা সবাই তোমার পাশে আছি। এদের জীবনটাই ঘৃণায় ভরে গেছে। কারণ ওদের কেউ ভালোবাসে না। ওদের তুমি ক্ষমা করে দাও।

প্রতিবাদ জানিয়েছেন কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহও। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন— এগারো জনের দল হেরেছে। তা হলে মাত্র একজনকে নিশানা করা হচ্ছে কেন?

তবে পরের দিকে শামির পাশে দাঁড়িয়ে অনেক ক্রিকেটভক্ত, পাল্টা টুইটও করতে থাকেন। তাতে ঘৃণা নয়, শামির প্রতি ভালোবাসাই রয়েছে।

শচীন টেন্ডুলকার টুইটারে লিখেছেন— ‘আমরা যখন টিম ইন্ডিয়াকে সমর্থন করি, তখন টিম ইন্ডিয়ার প্রত্যেক সদস্যকে সমর্থন করি। মোহাম্মদ শামি একজন বিশ্বমানের বোলার। ওর দায়বদ্ধতা নিয়ে প্রশ্নই ওঠে না।

আর যে কোনো ক্রীড়াবিদের মতো ওরও একটা খারাপ দিন যেতে পারে। আমি শামি এবং টিম ইন্ডিয়ার পাশে আছি।

টি২০ বিশ্বকাপ ২০২১

শামির পাশে দাঁড়ালেন রাহুল-শচীনরা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৬ অক্টোবর ২০২১, ০১:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানের বিপক্ষে ১০ উইকেটে হারের পর গণমাধ্যমে বর্ণবাদী ও বিদ্বেষপূর্ণ আক্রমণের শিকার হন ভারতীয় দলের ডানহাতি পেসার মোহাম্মদ শামি।

মুসলিম হওয়ার কারণে ভারতীয় দলের এ পেসারকে ‘দেশদ্রোহী’ আখ্যা দিতে ছাড়েননি আক্রমণকারীরা। খবর এনডিটিভির।

ইনস্টাগ্রামে শামির অ্যাকাউন্টে এই আক্রমণ আছড়ে পড়েছে, যা দেখে ভারতের সাবেক ও বর্তমান অনেক ক্রিকেটারই সরব হয়েছেন।

শচীন টেন্ডুলকার থেকে বীরেন্দ্র শেবাগ অনেকেই শামির পাশে দাঁড়িয়ে আক্রমণকারীদের একহাত নিয়েছেন।

রাজনৈতিক মহলেও প্রতিক্রিয়া হয়েছে এ ঘটনার। রাহুল গান্ধীও পাশে দাঁড়িয়েছেন শামির।

টুইটারে রাহুল লিখেছেন—শামি, আমরা সবাই তোমার পাশে আছি। এদের জীবনটাই ঘৃণায় ভরে গেছে। কারণ ওদের কেউ ভালোবাসে না। ওদের তুমি ক্ষমা করে দাও।

প্রতিবাদ জানিয়েছেন কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহও। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন— এগারো জনের দল হেরেছে। তা হলে মাত্র একজনকে নিশানা করা হচ্ছে কেন?

তবে পরের দিকে শামির পাশে দাঁড়িয়ে অনেক ক্রিকেটভক্ত, পাল্টা টুইটও করতে থাকেন। তাতে ঘৃণা নয়, শামির প্রতি ভালোবাসাই রয়েছে।

শচীন টেন্ডুলকার টুইটারে লিখেছেন— ‘আমরা যখন টিম ইন্ডিয়াকে সমর্থন করি, তখন টিম ইন্ডিয়ার প্রত্যেক সদস্যকে সমর্থন করি। মোহাম্মদ শামি একজন বিশ্বমানের বোলার। ওর দায়বদ্ধতা নিয়ে প্রশ্নই ওঠে না।

আর যে কোনো ক্রীড়াবিদের মতো ওরও একটা খারাপ দিন যেতে পারে। আমি শামি এবং টিম ইন্ডিয়ার পাশে আছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : টি২০ বিশ্বকাপ ২০২১