সুদানে অভ্যুত্থানের  কারণ জানালেন সেনাপ্রধান
jugantor
সুদানে অভ্যুত্থানের  কারণ জানালেন সেনাপ্রধান

  অনলাইন ডেস্ক  

২৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:০৭:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

সুদানের শীর্ষ জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদাক তার বাসায় রয়েছেন।

সুদানের সেনাবাহিনী দেশটির প্রধানমন্ত্রীআবদাল্লা হামদাকগৃহবন্দিকরে রাখার পরের দিন দেশটির শীর্ষ জেনারেল এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানালেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান বলেন, হ্যাঁ আমরা মন্ত্রী এবং রাজনৈতিক নেতাদের বন্দিকরেছি,তবে সবাইকে না। এ সময় তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী হামদাক তার বাসায় আছেন এবং ভালো আছেন। অস্থির অবস্থা চলে যাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী ফিরবেন বলেও জানান তিনি।

অভ্যুত্থানের কারণ হিসেবে জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান বলেন, গৃহযুদ্ধ এড়াতে প্রধানমন্ত্রী আবদেল হামদাককেনেওয়া হয়েছে। রাজনৈতিক নেতারা সশস্ত্র বাহিনীর বিরুদ্ধে উত্তেজনা সৃষ্টি করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

সোমবার অভ্যুত্থানের নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান বেসামরিক সরকার ভেঙে দেন, রাজনৈতিক নেতাদের বন্দি করেন এবং দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেন।

সেনাবাহিনী ক্ষমতা গ্রহণ করার পর রাজধানী খার্তুমসহ দেশের সর্বত্র রাজপথে বিক্ষোভ চলছে। বিক্ষোভকারীরা স্লোগান দিয়ে, পতাকা উড়িয়ে রাস্তায় রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছে। সেনারা জনতার ওপর গুলি চালিয়েছে এবং ১০ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

এই অভ্যুত্থানেরনিন্দা জানিয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। এএফপি বার্তা সংস্থাকে কূটনীতিকরা বলেছেন, জাতিসংঘ নিরপত্তা পরিষদের বৈঠকে এই সঙ্কট নিয়ে মঙ্গলবার আলোচনার কথা রয়েছে।

মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান জানান, তারা একটি সেমারিক সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের কথা ভাবছেন। তিনি বলেন, এ লক্ষ্যে আগামী দিনগুলোতে বিচারবিভাগীয় কমিটি গঠন করা হবে।

সুদানে অভ্যুত্থানের  কারণ জানালেন সেনাপ্রধান

 অনলাইন ডেস্ক 
২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সুদানের শীর্ষ জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদাক তার বাসায় রয়েছেন। 

সুদানের সেনাবাহিনী দেশটির প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদাক গৃহবন্দি করে রাখার পরের দিন দেশটির শীর্ষ জেনারেল এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানালেন।  

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান বলেন, হ্যাঁ আমরা মন্ত্রী এবং রাজনৈতিক নেতাদের বন্দি করেছি, তবে সবাইকে না। এ সময় তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী হামদাক তার বাসায় আছেন এবং ভালো আছেন। অস্থির অবস্থা চলে যাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী ফিরবেন বলেও জানান তিনি।

অভ্যুত্থানের কারণ হিসেবে জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান বলেন, গৃহযুদ্ধ এড়াতে প্রধানমন্ত্রী আবদেল হামদাককে নেওয়া হয়েছে। রাজনৈতিক নেতারা সশস্ত্র বাহিনীর বিরুদ্ধে উত্তেজনা সৃষ্টি করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।    

সোমবার অভ্যুত্থানের নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান বেসামরিক সরকার ভেঙে দেন, রাজনৈতিক নেতাদের বন্দি করেন এবং দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেন।

সেনাবাহিনী ক্ষমতা গ্রহণ করার পর রাজধানী খার্তুমসহ দেশের সর্বত্র রাজপথে বিক্ষোভ চলছে। বিক্ষোভকারীরা স্লোগান দিয়ে, পতাকা উড়িয়ে রাস্তায় রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছে। সেনারা জনতার ওপর গুলি চালিয়েছে এবং ১০ ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

এই অভ্যুত্থানের নিন্দা জানিয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। এএফপি বার্তা সংস্থাকে কূটনীতিকরা বলেছেন, জাতিসংঘ নিরপত্তা পরিষদের বৈঠকে এই সঙ্কট নিয়ে মঙ্গলবার আলোচনার কথা রয়েছে।

মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান জানান, তারা একটি সেমারিক সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের কথা ভাবছেন। তিনি বলেন, এ লক্ষ্যে আগামী দিনগুলোতে বিচারবিভাগীয় কমিটি গঠন করা হবে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন