তুরস্কে কারাবাখ যুদ্ধ জয়ের বর্ষপূর্তি উদযাপন
jugantor
তুরস্কে কারাবাখ যুদ্ধ জয়ের বর্ষপূর্তি উদযাপন

  অনলাইন ডেস্ক  

০৯ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৬:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ছয় সপ্তাহের যুদ্ধে প্রতিবেশী আর্মেনিয়াকে ২০২০ সালের ৮ নভেম্বর পরাজিত করে ৩০ বছর পর কারাবাখ অঞ্চলটির নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করে আজারবাইজান।

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় সোমবার কারাবাখ যুদ্ধ জয়ের প্রথম বর্ষপূর্তি উদযাপন করেছে। খবর আনাদোলুর।

তার্কিস-আজারবাইজানি ফ্রেন্ডশিপ কো-অপারেশন অ্যান্ড সলিডারিটি ফাউন্ডেশনসহ আরও কয়েটি সংস্থা কারাবাখ বিজয়ের বর্ষপূর্তি উদযাপন করে।

২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে ছয় সপ্তাহব্যাপী যুদ্ধ চলে। পরে রাশিয়ার মধ্যস্থতায় দেশ দুটি শান্তিচুক্তিতে আসে।

ওই যুদ্ধে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী ১৯৯০-এর দশকে আর্মেনিয়ার দখলে যাওয়া বেশ কিছু ভূখণ্ড পুনরুদ্ধার করে।

এ যুদ্ধে অত্যাধুনিক ড্রোনসহ সামরিক সহায়তা দিয়ে সাহায্য করে তুরস্ক। এ জন্য আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এর জবারে এরদোগান বলেছেন, তুরস্ক আর আজারবাইজান দুই দেশ হলেও এক জাতি। আমরা মনেপ্রাণে এক। আমরা একে অপরের ভাই।

আঙ্কারায় কারাবাখ যুদ্ধ জয়ের প্রথম বর্ষপূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন তুরস্কে নিয়োজিত আজারবাইজানের রাষ্ট্রদূত রাশেদ মাম্মাদভ।

তিনি বলেন, কারাবাখ যুদ্ধে আমাদের যত ধরনের সহযোগিতার প্রয়োজন ছিল, সবই করেছে তুরস্ক। এ জন্য আমরা তুর্কি ভাইবোনদের কাছে কৃতজ্ঞ। এ বিজয় কেবল আজারবাইজানের নয়, তুরস্কেরও বিজয়।

তুরস্কে কারাবাখ যুদ্ধ জয়ের বর্ষপূর্তি উদযাপন

 অনলাইন ডেস্ক 
০৯ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ছয় সপ্তাহের যুদ্ধে প্রতিবেশী আর্মেনিয়াকে ২০২০ সালের ৮ নভেম্বর পরাজিত করে ৩০ বছর পর কারাবাখ অঞ্চলটির নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করে আজারবাইজান।

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় সোমবার কারাবাখ যুদ্ধ জয়ের প্রথম বর্ষপূর্তি উদযাপন করেছে।  খবর আনাদোলুর।
   
তার্কিস-আজারবাইজানি ফ্রেন্ডশিপ কো-অপারেশন অ্যান্ড সলিডারিটি ফাউন্ডেশনসহ আরও কয়েটি সংস্থা কারাবাখ বিজয়ের বর্ষপূর্তি উদযাপন করে।

২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে ছয় সপ্তাহব্যাপী যুদ্ধ চলে। পরে রাশিয়ার মধ্যস্থতায় দেশ দুটি শান্তিচুক্তিতে আসে।

ওই যুদ্ধে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী ১৯৯০-এর দশকে আর্মেনিয়ার দখলে যাওয়া বেশ কিছু ভূখণ্ড পুনরুদ্ধার করে।  

এ যুদ্ধে অত্যাধুনিক ড্রোনসহ সামরিক সহায়তা দিয়ে সাহায্য করে তুরস্ক। এ জন্য আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এর জবারে এরদোগান বলেছেন, তুরস্ক আর আজারবাইজান দুই দেশ হলেও এক জাতি। আমরা মনেপ্রাণে এক। আমরা একে অপরের ভাই।

আঙ্কারায় কারাবাখ যুদ্ধ জয়ের প্রথম বর্ষপূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন তুরস্কে নিয়োজিত আজারবাইজানের রাষ্ট্রদূত রাশেদ মাম্মাদভ।

তিনি বলেন, কারাবাখ যুদ্ধে আমাদের যত ধরনের সহযোগিতার প্রয়োজন ছিল, সবই করেছে তুরস্ক। এ জন্য আমরা তুর্কি ভাইবোনদের কাছে কৃতজ্ঞ। এ বিজয় কেবল আজারবাইজানের নয়, তুরস্কেরও বিজয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সংঘাত