প্রেসিডেন্ট পদে গাদ্দাফিপুত্রের মনোনয়নপত্রের বৈধতা নিয়ে সংশয়
jugantor
প্রেসিডেন্ট পদে গাদ্দাফিপুত্রের মনোনয়নপত্রের বৈধতা নিয়ে সংশয়

  অনলাইন ডেস্ক  

১৫ নভেম্বর ২০২১, ১২:০২:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

লিবিয়ার সাবেক শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাইফুল ইসলাম গাদ্দাফি (৪৯) দেশটির আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন।

লিবিয়ায় প্রেসিডেন্ট পদে গাদ্দাফিপুত্রের মনোনয়নপত্রের বৈধতা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। কারণ আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে এখনও তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি আছে।

রয়টার্স ও আলজাজিরাসহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, লিবিয়ার গণমাধ্যমগুলো গত বেশ কিছুদিন ধরে সাইফুল ইসলামের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়ার যে জল্পনা-কল্পনা প্রচার করে আসছিল, রোববার তা সত্য প্রমাণিত হয়েছে।

গাদ্দাফির জীবদ্দশায় সাইফুল ইসলামকে তার উত্তরসূরি মনে করা হতো। সাইফুল ইসলাম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রার্থী হওয়ার জন্য লিবিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় সাবহা শহরে কমিশনের দফতরে রোববার নিজের কাগজপত্র জমা দিয়েছেন।

আগামী ২৪ ডিসেম্বর লিবিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২০১১ সালে গাদ্দাফি সরকারের পতনের পর এই প্রথম লিবিয়ায় সরাসরি প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

তবে কাগজপত্র যাচাই বাছাই শেষে সাইফুল ইসলামি চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে অনুমোদন পাবেন কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়।

লিবিয়ায় ২০১১ সালে মার্কিন মদতে সশস্ত্র গণঅভ্যুত্থানে সাবেক শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফি সরকারের পতন হয় এবং গাদ্দাফি তার একাধিক পুত্রসহ বিপ্লবীদের হাতে নিহত হন। সে সময় গাদ্দাফির ছোট ছেলে সাইফুল ইসলাম পালিয়ে গিয়ে নিজের প্রাণ বাঁচিয়েছিলেন।

প্রেসিডেন্ট পদে গাদ্দাফিপুত্রের মনোনয়নপত্রের বৈধতা নিয়ে সংশয়

 অনলাইন ডেস্ক 
১৫ নভেম্বর ২০২১, ১২:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লিবিয়ার সাবেক শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাইফুল ইসলাম গাদ্দাফি (৪৯) দেশটির আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন।

লিবিয়ায় প্রেসিডেন্ট পদে গাদ্দাফিপুত্রের মনোনয়নপত্রের বৈধতা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। কারণ আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে এখনও তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি আছে।

রয়টার্স ও আলজাজিরাসহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, লিবিয়ার গণমাধ্যমগুলো গত বেশ কিছুদিন ধরে সাইফুল ইসলামের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়ার যে জল্পনা-কল্পনা প্রচার করে আসছিল, রোববার তা সত্য প্রমাণিত হয়েছে।

গাদ্দাফির জীবদ্দশায় সাইফুল ইসলামকে তার উত্তরসূরি মনে করা হতো। সাইফুল ইসলাম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রার্থী হওয়ার জন্য লিবিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় সাবহা শহরে কমিশনের দফতরে রোববার নিজের কাগজপত্র জমা দিয়েছেন।

আগামী ২৪ ডিসেম্বর লিবিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২০১১ সালে গাদ্দাফি সরকারের পতনের পর এই প্রথম লিবিয়ায় সরাসরি প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

তবে কাগজপত্র যাচাই বাছাই শেষে সাইফুল ইসলামি চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে অনুমোদন পাবেন কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়।

লিবিয়ায় ২০১১ সালে মার্কিন মদতে সশস্ত্র গণঅভ্যুত্থানে সাবেক শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফি সরকারের পতন হয় এবং গাদ্দাফি তার একাধিক পুত্রসহ বিপ্লবীদের হাতে নিহত হন। সে সময় গাদ্দাফির ছোট ছেলে সাইফুল ইসলাম পালিয়ে গিয়ে নিজের প্রাণ বাঁচিয়েছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন