প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী পেল ইউরোপের এই দেশ
jugantor
প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী পেল ইউরোপের এই দেশ

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৪ নভেম্বর ২০২১, ১৯:১৫:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী পেল ইউরোপের এই দেশ

ইউরোপের দেশ সুইডেনে প্রথমবারের মতো নারী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসন। পার্লামেন্টে বুধবারের ভোটে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন মধ্য-বামপন্থী সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট দলের এই নেতা। বুধবার বিবিসির প্রতিবেদনে এ খবর জানা গেছে।

সুইডেনের একমাত্র নর্ডিক দেশ যেখানে এর আগে কোনো নারী প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেননি। ৫৪ বছর বয়সী ম্যাগডালেনা চলতি মাসের শেষের দিকে সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট দলের নেতৃত্বে আসেন। বিদায়ী নেতা স্টেফান লোফভেনের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি।

বর্তমান অর্থমন্ত্রী ম্যাগডালেনা অবশ্য দেশটির পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিত বুধবারের ভোটে জেতেননি। তার পক্ষে ভোট দিয়েছেন ১১৭ জন সদ্যস্য। অন্যদিকে তার বিপক্ষে ভোট পড়েছে ১৭৪টি। পার্লামেন্টের ৫৭ জন সদস্য ভোট দেওয়া থেকে বিরত থেকেছেন।

তবে ম্যাগডালেনার বিপক্ষের ভোটের চেয়ে তার পক্ষে পাওয়া ভোট এবং ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকা সদস্যদের যোগফল বেশি। তাই সুইডেনের নির্বাচন পদ্ধতি অনুযায়ী কম ভোট পেয়েও তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন।

এদিকে, ম্যাগডালেনার এই বিজয়কে সুইডেনের জন্য মাইলফলক হিসেবে মনে করা হচ্ছে। কারণ কয়েক দশকের মধ্যে লিঙ্গ সমতার মাপকাঠিতে ইউরোপের সবচেয়ে প্রগতিশীল হিসেবে পরিচিত এই দেশটিতে রাজনীতির শীর্ষ পর্যায়ে এই প্রথম কোনো নারী আসলেন।

প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী পেল ইউরোপের এই দেশ

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৪ নভেম্বর ২০২১, ০৭:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী পেল ইউরোপের এই দেশ
ছবি : সংগৃহীত

ইউরোপের দেশ সুইডেনে প্রথমবারের মতো নারী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসন। পার্লামেন্টে বুধবারের ভোটে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন মধ্য-বামপন্থী সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট দলের এই নেতা। বুধবার বিবিসির প্রতিবেদনে এ খবর জানা গেছে। 

সুইডেনের একমাত্র নর্ডিক দেশ যেখানে এর আগে কোনো নারী প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেননি। ৫৪ বছর বয়সী ম্যাগডালেনা চলতি মাসের শেষের দিকে সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট দলের নেতৃত্বে আসেন। বিদায়ী নেতা স্টেফান লোফভেনের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি। 

বর্তমান অর্থমন্ত্রী ম্যাগডালেনা অবশ্য দেশটির পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিত বুধবারের ভোটে জেতেননি। তার পক্ষে ভোট দিয়েছেন ১১৭ জন সদ্যস্য। অন্যদিকে তার বিপক্ষে ভোট পড়েছে ১৭৪টি। পার্লামেন্টের ৫৭ জন সদস্য ভোট দেওয়া থেকে বিরত থেকেছেন। 

তবে ম্যাগডালেনার বিপক্ষের ভোটের চেয়ে তার পক্ষে পাওয়া ভোট এবং ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকা সদস্যদের যোগফল বেশি। তাই সুইডেনের নির্বাচন পদ্ধতি অনুযায়ী কম ভোট পেয়েও তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। 

এদিকে, ম্যাগডালেনার এই বিজয়কে সুইডেনের জন্য মাইলফলক হিসেবে মনে করা হচ্ছে। কারণ  কয়েক দশকের মধ্যে লিঙ্গ সমতার মাপকাঠিতে ইউরোপের সবচেয়ে প্রগতিশীল হিসেবে পরিচিত এই দেশটিতে রাজনীতির শীর্ষ পর্যায়ে এই প্রথম কোনো নারী আসলেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন