ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবিতে ৩১ শরণার্থীর মৃত্যু
jugantor
ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবিতে ৩১ শরণার্থীর মৃত্যু

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ নভেম্বর ২০২১, ১০:২২:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রিটেন যাওয়ার পথে ইংলিশ চ্যানেলে শরণার্থীবোঝাই একটি নৌকা ডুবে নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তবে আঞ্চলিক নৌ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নৌকাডুবিতে ২৭ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

ফ্রান্স থেকে যুক্তরাজ্যে যাওয়ার জন্য অবৈধভাবে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিতে গিয়ে বুধবার ওই নৌকাডুবির ঘটনা ঘটেছে। খবর এনবিসি, বিবিসি ও আলজাজিরার।

নৌকাটিতে কমপক্ষে ৩৪ যাত্রী ছিল। মৃতরা সবাই শরণার্থী ও আশ্রয়প্রার্থী। উদ্ধারকর্মীরা এ পর্যন্ত ৩১ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছেন। দুজনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও বাকি একজন এখনও নিখোঁজ আছেন।

ফরাসি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড ডারমানিন এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবিতে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা এটি।

ছোট ডিঙ্গি নৌকায় করে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দেওয়ার সময় সেটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে একপর্যায়ে ডুবে যায়। এতেই ওই প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় জেলেরা জানিয়েছেন, অন্যদিনের তুলনায় বুধবার যুক্তরাজ্য-ফ্রান্সকে বিভক্তকারী এই সাগরের পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত ছিল। আর এর সুবিধা নিতেই অন্যান্য দিনের তুলনায় অনেক বেশি মানুষ ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিয়ে যুক্তরাজ্যে পৌঁছাতে নৌকায় উঠে রওনা হন। পথিমধ্যে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবির এমন ঘটনা এটিই প্রথম নয়। অতীতে সাঁতার কেটে ৩০ কিলোমিটার দীর্ঘ ইংলিশ চ্যানেল পেরিয়ে যুক্তরাজ্যে যেতেও চেষ্টা করেছেন শরণার্থীরা। গত বছরের সেপ্টেম্বরে ইংলিশ চ্যানেল পার করার সময় ১৩০০ শরণার্থীকে আটক করা হয়েছিল বলে জানিয়েছিল ফরাসি সরকার।

ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবিতে ৩১ শরণার্থীর মৃত্যু

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ নভেম্বর ২০২১, ১০:২২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রিটেন যাওয়ার পথে ইংলিশ চ্যানেলে শরণার্থীবোঝাই একটি নৌকা ডুবে নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে।
 
তবে আঞ্চলিক নৌ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নৌকাডুবিতে ২৭ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

ফ্রান্স থেকে যুক্তরাজ্যে যাওয়ার জন্য অবৈধভাবে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিতে গিয়ে বুধবার ওই নৌকাডুবির ঘটনা ঘটেছে। খবর এনবিসি, বিবিসি ও আলজাজিরার।

নৌকাটিতে কমপক্ষে ৩৪ যাত্রী ছিল। মৃতরা সবাই শরণার্থী ও আশ্রয়প্রার্থী। উদ্ধারকর্মীরা এ পর্যন্ত ৩১ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছেন। দুজনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও বাকি একজন এখনও নিখোঁজ আছেন।

ফরাসি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড ডারমানিন এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবিতে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা এটি।
 
ছোট ডিঙ্গি নৌকায় করে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দেওয়ার সময় সেটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে একপর্যায়ে ডুবে যায়। এতেই ওই প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় জেলেরা জানিয়েছেন, অন্যদিনের তুলনায় বুধবার যুক্তরাজ্য-ফ্রান্সকে বিভক্তকারী এই সাগরের পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত ছিল। আর এর সুবিধা নিতেই অন্যান্য দিনের তুলনায় অনেক বেশি মানুষ ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিয়ে যুক্তরাজ্যে পৌঁছাতে নৌকায় উঠে রওনা হন। পথিমধ্যে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবির এমন ঘটনা এটিই প্রথম নয়। অতীতে সাঁতার কেটে ৩০ কিলোমিটার দীর্ঘ ইংলিশ চ্যানেল পেরিয়ে যুক্তরাজ্যে যেতেও চেষ্টা করেছেন শরণার্থীরা। গত বছরের সেপ্টেম্বরে ইংলিশ চ্যানেল পার করার সময় ১৩০০ শরণার্থীকে আটক করা হয়েছিল বলে জানিয়েছিল ফরাসি সরকার।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন