বাংলাদেশের প্রশংসা করে যা বললেন ভারতের সেনাপ্রধান
jugantor
বাংলাদেশের প্রশংসা করে যা বললেন ভারতের সেনাপ্রধান

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ নভেম্বর ২০২১, ১৯:৩১:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল এম এম নারাভানে বলেছেন, ভারতের বিরুদ্ধে অন্তর্ঘাতমূলক কর্মকাণ্ড চালানো গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বাংলাদেশের প্রচেষ্টা সম্পর্কে তার দেশ সচেতন আছে।

বুধবার নয়াদিল্লিতে ‘ভারত-বাংলাদেশ: বন্ধুত্বের ৫০ বছর’ শীর্ষক এক সেমিনারে অংশ নিয়ে তিনি এই মন্তব্য করেন।

সেন্টার ফর ল্যান্ড ওয়ারফেয়ার স্টাডিজ আয়োজিত সেমিনারে ভারতেরসেনাপ্রধান বাংলাদেশের প্রশংসা করে বলেন, পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ঐতিহাসিক স্থল সীমানা চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। উভয় দেশ সীমান্ত বিরোধ মীমাংসার ক্ষেত্রে এমন এক সময়অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে, যখন কিছু দেশ বলপ্রয়োগের মাধ্যমে সেটি নষ্ট করার চেষ্টা করছে।

সেনাপ্রধান নারাভানে এমনসময়বাংলাদেশের প্রশংসা করলেন যখন প্রতিবেশী চীন ও পাকিস্তানের সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে ভারতের উত্তেজনা চলছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই মধ্যরাতে বাংলাদেশ-ভারতের অভ্যন্তরে থাকা ১৬২টি ছিটমহল বিলুপ্ত হয়। এর মাধ্যমে ছিটবাসীদের ৬৮ বছরের বন্দি জীবনের অবসান হয়।

এ প্রসঙ্গেভারতেরসেনাপ্রধান নারাভানেবলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের স্থল সীমানা চুক্তি পারস্পরিক শ্রদ্ধা, বিশ্বাস এবং প্রতিশ্রুতির প্রতীক।

সেমিনারে বাংলাদেশের হাই কমিশনার মুহাম্মদ ইমরান ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের ঝুলে থাকা পানি বন্টনের সমস্যা সমাধানে মনোযোগ দেওয়ার আহ্বান জানান।

বাংলাদেশের প্রশংসা করে যা বললেন ভারতের সেনাপ্রধান

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ নভেম্বর ২০২১, ০৭:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল এম এম নারাভানে বলেছেন, ভারতের বিরুদ্ধে অন্তর্ঘাতমূলক কর্মকাণ্ড চালানো গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বাংলাদেশের প্রচেষ্টা সম্পর্কে তার দেশ সচেতন আছে।

বুধবার নয়াদিল্লিতে ‘ভারত-বাংলাদেশ: বন্ধুত্বের ৫০ বছর’ শীর্ষক এক সেমিনারে অংশ নিয়ে তিনি এই মন্তব্য করেন। 

সেন্টার ফর ল্যান্ড ওয়ারফেয়ার স্টাডিজ আয়োজিত সেমিনারে ভারতের সেনাপ্রধান বাংলাদেশের প্রশংসা করে বলেন, পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ঐতিহাসিক স্থল সীমানা চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। উভয় দেশ সীমান্ত বিরোধ মীমাংসার ক্ষেত্রে এমন এক সময় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে, যখন কিছু দেশ বলপ্রয়োগের মাধ্যমে সেটি নষ্ট করার চেষ্টা করছে। 

সেনাপ্রধান নারাভানে এমন সময় বাংলাদেশের প্রশংসা করলেন যখন প্রতিবেশী চীন ও পাকিস্তানের সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে ভারতের উত্তেজনা চলছে। 

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই মধ্যরাতে  বাংলাদেশ-ভারতের অভ্যন্তরে থাকা ১৬২টি ছিটমহল বিলুপ্ত হয়। এর মাধ্যমে ছিটবাসীদের ৬৮ বছরের বন্দি জীবনের  অবসান হয়।

এ প্রসঙ্গে ভারতের সেনাপ্রধান নারাভানে বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের স্থল সীমানা চুক্তি পারস্পরিক শ্রদ্ধা, বিশ্বাস এবং প্রতিশ্রুতির প্রতীক।

সেমিনারে বাংলাদেশের হাই কমিশনার মুহাম্মদ ইমরান ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের ঝুলে থাকা পানি বন্টনের সমস্যা সমাধানে মনোযোগ দেওয়ার আহ্বান জানান। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন