অফিস শেষে কর্মীকে কাজের জন্য ফোন করলেই জরিমানা!
jugantor
অফিস শেষে কর্মীকে কাজের জন্য ফোন করলেই জরিমানা!

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৯:৪২:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কাজ শেষের পরেও কাজ থেকেই যায়। অফিসের ‘বস’রা অনেক সময়ই অফিসের কাজের সময়ের পরেও ফোন বা মেইল করে কাজের জন্য চাপ দেন।

এবার এমন সব বসের কাজ করিয়ে নেওয়ার খপ্পর থেকে কর্মীদের মুক্তি দিতে নতুন আইন করেছে পর্তুগাল সরকার।

নতুন এ আইনে বলা হয়েছে, অফিসের নির্দিষ্ট সময়ের কাজ শেষে কোনও কর্মীকে ফোন, মেসেজ বা মেইল করতে পারবেন না তার বস। খবর সিএনএন ও এনডিটিভির।

কাজের বাইরে কর্মীদের ব্যক্তিগত জীবনে সময় দিতে, পরিবারকে সময় দিতেই এই ধরনের আইনে সম্মতি দিয়েছে পর্তুগাল সরকার।

কোনও ‘বস’ যদি কর্মীর নির্ধারিত সময়ের কাজ শেষে তার সঙ্গে কোনও ভাবে যোগাযোগ করেন, তা হলে সেটা গুরুতর অপরাধ হিসেবে ধরা হবে এবং প্রয়োজনে জরিমানা করা হতে পারে।

নতুন আইনে বলা হয়েছে, কর্মীদের ব্যক্তিগত জীবন এবং গোপনীয়তাকে সম্মান জানাতে হবে মালিক বা ‘বস’কে। তাই কাজ শেষে ইচ্ছে হলেই কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন না তারা।

এ ছাড়াও কোনও কর্মী যদি মনে করেন তিনি যে কোনও জায়গা থেকে অফিসের কাজ করবেন, তা হলে তাকে প্রয়োজনীয় পরিষেবা দেওয়ার দায়িত্ব বর্তাবে মালিক বা ‘বস’-এর উপর।

শুধু তাই নয়, বাড়ি থেকে অফিসের কাজ করতে গিয়ে যদি অতিরিক্ত খরচ হয়, তা হলে সেই অতিরিক্ত খরচও বহন করতে হবে মালিককে। গত শুক্রবার এই আইন পাশ হয়েছে পর্তুগাল পার্লামেন্টে। কার্যকর হয়েছে তার পর দিন থেকেই। পর্তুগালের মতো একই আইন প্রযোজ্য আছে কানাডাতেও।

অফিস শেষে কর্মীকে কাজের জন্য ফোন করলেই জরিমানা!

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৯:৪২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কাজ শেষের পরেও কাজ থেকেই যায়। অফিসের ‘বস’রা অনেক সময়ই অফিসের কাজের সময়ের পরেও ফোন বা মেইল করে কাজের জন্য চাপ দেন।

এবার এমন সব বসের কাজ করিয়ে নেওয়ার খপ্পর থেকে কর্মীদের মুক্তি দিতে নতুন আইন করেছে পর্তুগাল সরকার।

নতুন এ আইনে বলা হয়েছে, অফিসের নির্দিষ্ট সময়ের কাজ শেষে কোনও কর্মীকে ফোন, মেসেজ বা মেইল করতে পারবেন না তার বস।  খবর সিএনএন ও এনডিটিভির।

কাজের বাইরে কর্মীদের ব্যক্তিগত জীবনে সময় দিতে, পরিবারকে সময় দিতেই এই ধরনের আইনে সম্মতি দিয়েছে পর্তুগাল সরকার।

কোনও ‘বস’ যদি কর্মীর নির্ধারিত সময়ের কাজ শেষে তার সঙ্গে কোনও ভাবে যোগাযোগ করেন, তা হলে সেটা গুরুতর অপরাধ হিসেবে ধরা হবে এবং প্রয়োজনে জরিমানা করা হতে পারে।

নতুন আইনে বলা হয়েছে, কর্মীদের ব্যক্তিগত জীবন এবং গোপনীয়তাকে সম্মান জানাতে হবে মালিক বা ‘বস’কে। তাই কাজ শেষে ইচ্ছে হলেই কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন না তারা।

এ ছাড়াও কোনও কর্মী যদি মনে করেন তিনি যে কোনও জায়গা থেকে অফিসের কাজ করবেন, তা হলে তাকে প্রয়োজনীয় পরিষেবা দেওয়ার দায়িত্ব বর্তাবে মালিক বা ‘বস’-এর উপর।

শুধু তাই নয়, বাড়ি থেকে অফিসের কাজ করতে গিয়ে যদি অতিরিক্ত খরচ হয়, তা হলে সেই অতিরিক্ত খরচও বহন করতে হবে মালিককে। গত শুক্রবার এই আইন পাশ হয়েছে পর্তুগাল পার্লামেন্টে। কার্যকর হয়েছে তার পর দিন থেকেই। পর্তুগালের মতো একই আইন প্রযোজ্য আছে কানাডাতেও।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন