সাবেক কর্মকর্তাদের আফগানিস্তানে ফেরার আহ্বান উপপররাষ্ট্রমন্ত্রীর
jugantor
সাবেক কর্মকর্তাদের আফগানিস্তানে ফেরার আহ্বান উপপররাষ্ট্রমন্ত্রীর

  অনলাইন ডেস্ক  

২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৩:১৫:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের সাবেক সরকারের পদস্থ কর্মকর্তা ও নেতাদের দেশে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে দেশটির ক্ষমতাসীন তালেবান সরকার।

অন্তর্বর্তী তালেবান সরকারের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী শের মোহাম্মদ আব্বাস স্তানাকজাই বলেছেন, সাবেক কর্মকর্তাদের দেশে ফিরতে কোনো বাধা নেই। খবর আফগানিস্তানের বার্তা সংস্থা শাফাকনার।

আব্বাস স্তানাকজাই সাবেক আফগান কর্মকর্তাদের দেশে ফেরার আহ্বান জানিয়ে আরও বলেছেন, তারা যেন নতুন তালেবান সরকারের মন্ত্রিসভায় স্থান পাওয়ার আশা না করেন।

আফগান উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আফগানিস্তানের সব নাগরিকের তাদের মাতৃভূমিতে বসবাস করার অধিকার রয়েছে। তবে দুর্নীতিতে জড়িত সাবেক কর্মকর্তারা দেশে ফিরে এলে তাদের বিচার করা হবে না— এমন কোনো গ্যারান্টি স্তানাকজাই দেননি।

তিনি আফগানিস্তানকে একটি ‘স্বাধীন’ দেশ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, তালেবান সরকার আফগান জনগণের আস্থা অর্জনের চেষ্টা করছে এবং এই সরকার আফগানিস্তানের মূল্যবোধ পরিপন্থী কোনো কাজ করবে না।

গত ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেলে ওই দিনই রাজধানী কাবুল দখল করে তালেবান।

এর পর গনির ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহও দেশত্যাগ করেন। এ ছাড়া সাবেক সরকারের সঙ্গে নানাভাবে সহযোগিতাকারী হাজার হাজার আফগান নাগরিক দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান।

সাবেক কর্মকর্তাদের আফগানিস্তানে ফেরার আহ্বান উপপররাষ্ট্রমন্ত্রীর

 অনলাইন ডেস্ক 
২৯ নভেম্বর ২০২১, ০১:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের সাবেক সরকারের পদস্থ কর্মকর্তা ও নেতাদের দেশে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে দেশটির ক্ষমতাসীন তালেবান সরকার।

অন্তর্বর্তী তালেবান সরকারের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী শের মোহাম্মদ আব্বাস স্তানাকজাই বলেছেন, সাবেক কর্মকর্তাদের দেশে ফিরতে কোনো বাধা নেই। খবর আফগানিস্তানের বার্তা সংস্থা শাফাকনার।

আব্বাস স্তানাকজাই সাবেক আফগান কর্মকর্তাদের দেশে ফেরার আহ্বান জানিয়ে আরও বলেছেন, তারা যেন নতুন তালেবান সরকারের মন্ত্রিসভায় স্থান পাওয়ার আশা না করেন।

আফগান উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আফগানিস্তানের সব নাগরিকের তাদের মাতৃভূমিতে বসবাস করার অধিকার রয়েছে। তবে দুর্নীতিতে জড়িত সাবেক কর্মকর্তারা দেশে ফিরে এলে তাদের বিচার করা হবে না— এমন কোনো গ্যারান্টি স্তানাকজাই দেননি।

তিনি আফগানিস্তানকে একটি ‘স্বাধীন’ দেশ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, তালেবান সরকার আফগান জনগণের আস্থা অর্জনের চেষ্টা করছে এবং এই সরকার আফগানিস্তানের মূল্যবোধ পরিপন্থী কোনো কাজ করবে না।

গত ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেলে ওই দিনই রাজধানী কাবুল দখল করে তালেবান।

এর পর গনির ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহও দেশত্যাগ করেন। এ ছাড়া সাবেক সরকারের সঙ্গে নানাভাবে সহযোগিতাকারী হাজার হাজার আফগান নাগরিক দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থান