তুরস্কে বিদেশি বিনিয়োগের আহ্বান এরদোগানের
jugantor
তুরস্কে বিদেশি বিনিয়োগের আহ্বান এরদোগানের

  যুগান্তর ডেস্ক  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৫:৫৬:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

তুরস্কে বিদেশি বিনিয়োগের আহ্বান এরদোগানের

তুরস্কে দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগ করতে বিদেশি উদ্যোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। দেশটির মুদ্রা লিরার দরপতনের মধ্যে মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এই আহ্বান জানালেন। খবর ডেইলি সাবাহর।

রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেন, তুরস্কে বিদেশি উদ্যোক্তাদের দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগের এখনই সময়। যারাই দীর্ঘমেয়াদে আঙ্কারায় বিনিয়োগ করেছেন, তারা সবসময়ই লাভবান হয়েছেন, এখনও তারা লাভবান হচ্ছেন।

প্রতি মাসেই তুরস্ক চলতি অ্যাকাউন্টের যে ঘাটতি আছে, সেটি কমিয়ে আনছে তুরস্ক। এর ফলে আগামী বছরের মধ্যে চলতি হিসাবের ঘাটতি পূরণ হয়ে উদ্বৃত্ত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন এরদোগান।

আগামী বছরের মধ্যে তুরস্কের অর্থনীতির ১০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ঘটবে বলে আশাবাদী দেশটির প্রেসিডেন্ট। মঙ্গলবার সকালেই তুরস্ক ঘোষণা করে যে, ২০২১ অর্থবছরের ৯ মাসে অর্থনীতিতে ৭ দশমিক ৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ঘটেছে।

এরদোগান বলেন, এ মুহূর্তে তুরস্ক লভ্যাংশ কমিয়ে দিয়েছে। মুদ্রাস্ফীতি শিগগিরই কমে আসবে বলে আশা দেশটির প্রেসিডেন্টের।

প্রসঙ্গত ডলারের তুলনায় তুরস্কের মুদ্রা লিরার দাম আরও পড়ে যাওয়ায় দেশটিতে জিনিসপত্রের দাম লাফিয়ে বাড়ছে।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির খবরে বলা হয়, প্রেসিডেন্টের কাছে দায়বদ্ধ একটি নিরীক্ষা সংস্থা স্টেট সুপারভাইজরি কাউন্সিলকে বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন এরদোগান।

বিদেশি মুদ্রা বিপুল পরিমাণে কারা কিনেছেন, তা চিহ্নিত করতে এবং কোনো কারসাজি হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হতে বলেছেন তিনি।

গত বছর অক্টোবর মাসের তুলনায় তুরস্কে মুদ্রাস্ফীতি বেড়েছে ২০ শতাংশ। যদিও নিরপেক্ষ মুদ্রাস্ফীতি রিসার্চ গ্রুপের মতে, আগের তুলনায় মুদ্রাস্ফীতি প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়েছে।

তুরস্কে বিদেশি বিনিয়োগের আহ্বান এরদোগানের

 যুগান্তর ডেস্ক 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তুরস্কে বিদেশি বিনিয়োগের আহ্বান এরদোগানের
ছবি: সংগৃহীত

তুরস্কে দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগ করতে বিদেশি উদ্যোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। দেশটির মুদ্রা লিরার দরপতনের মধ্যে মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এই আহ্বান জানালেন।  খবর ডেইলি সাবাহর।  

রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেন, তুরস্কে বিদেশি উদ্যোক্তাদের দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগের এখনই সময়।  যারাই দীর্ঘমেয়াদে আঙ্কারায় বিনিয়োগ করেছেন, তারা সবসময়ই লাভবান হয়েছেন, এখনও তারা লাভবান হচ্ছেন। 

প্রতি মাসেই তুরস্ক চলতি অ্যাকাউন্টের যে ঘাটতি আছে, সেটি কমিয়ে আনছে তুরস্ক। এর ফলে আগামী বছরের মধ্যে চলতি হিসাবের ঘাটতি পূরণ হয়ে উদ্বৃত্ত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন এরদোগান।  

আগামী বছরের মধ্যে তুরস্কের অর্থনীতির ১০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ঘটবে বলে আশাবাদী দেশটির প্রেসিডেন্ট।  মঙ্গলবার সকালেই তুরস্ক ঘোষণা করে যে, ২০২১ অর্থবছরের ৯ মাসে অর্থনীতিতে ৭ দশমিক ৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ঘটেছে। 

এরদোগান বলেন, এ মুহূর্তে তুরস্ক লভ্যাংশ কমিয়ে দিয়েছে।  মুদ্রাস্ফীতি শিগগিরই কমে আসবে বলে আশা দেশটির প্রেসিডেন্টের।

প্রসঙ্গত ডলারের তুলনায় তুরস্কের মুদ্রা লিরার দাম আরও পড়ে যাওয়ায় দেশটিতে জিনিসপত্রের দাম লাফিয়ে বাড়ছে।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির খবরে বলা হয়, প্রেসিডেন্টের কাছে দায়বদ্ধ একটি নিরীক্ষা সংস্থা স্টেট সুপারভাইজরি কাউন্সিলকে বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন এরদোগান।  

বিদেশি মুদ্রা বিপুল পরিমাণে কারা কিনেছেন, তা চিহ্নিত করতে এবং কোনো কারসাজি হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হতে বলেছেন তিনি।

গত বছর অক্টোবর মাসের তুলনায় তুরস্কে মুদ্রাস্ফীতি বেড়েছে ২০ শতাংশ। যদিও নিরপেক্ষ মুদ্রাস্ফীতি রিসার্চ গ্রুপের মতে, আগের তুলনায় মুদ্রাস্ফীতি প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন