আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত করল ভারত
jugantor
আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত করল ভারত

  অনলাইন ডেস্ক  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯:৫৯:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে পূর্ব ঘোষিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছে ভারত। বুধবার দেশটির ডাইরেক্টরেট জেনারেল অব সিভিল এভিয়েশন (ডিজিসিএ) এই তথ্য জানায়।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন সংক্রমণের আশঙ্কায় কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ডিজিসিএ বলেছে, নতুন ভ্যারিয়েন্টের কারণে বৈশ্বিক দৃশ্যপটের পরিপ্রেক্ষিতে সবার সঙ্গে পরামর্শ করে পুনরায় আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত করা হয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক যাত্রী পরিষেবা পুনরায় চালুর তারিখ যথাসময়ে অবহিত করা হবে।

এর আগে, গত সপ্তাহে কর্তৃপক্ষ আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পুনরায় চালুর ঘোষণা দিয়েছিল। তখন বলা হয়েছিল, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের 'ঝুঁকিপূর্ণ' তালিকায় না থাকা দেশগুলোর যাত্রীরা ১৫ ডিসেম্বর থেকে মহামারি শুরুর আগের নিয়ম অনুযায়ী যাতায়াত করতে পারবে।

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন এখন পর্যন্ত ২২ দেশে ছড়িয়েছে। সর্বশেষ সৌদি আরবে শনাক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে ২২ দেশে ছড়িয়েছে করোনার নতুন এই ধরন।

বিজ্ঞানবিষয়ক সাময়িকী নেচারের অনুসারে, ওমিক্রন ধরন প্রথম আফ্রিকার দেশ বতসোয়ানায় শনাক্ত হয়। এরপর করোনার এই ধরন আফ্রিকার আরও কয়েকটি দেশে ছড়িয়ে পড়ে। এই দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রিয়া, বেলজিয়াম, কানাডা, চেক প্রজাতন্ত্র, ডেনমার্ক, ফ্রান্স, জার্মানি, হংকং, ইসরায়েল, ইতালি, জাপান, নেদারল্যান্ডস, পর্তুগাল, স্পেন, সুইডেন, যুক্তরাজ্য, নাইজেরিয়া।

নতুন ধরন ছড়ানো শুরুর পর থেকে আফ্রিকার দেশগুলোর ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে বিভিন্ন দেশ।

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, এই রেজিমেন্টের বিস্তার ঠেকাতে কমপক্ষে ৭০টি দেশ ও অঞ্চল আফ্রিকার বেশ কয়েকটি দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত করল ভারত

 অনলাইন ডেস্ক 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে পূর্ব ঘোষিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছে ভারত। বুধবার দেশটির ডাইরেক্টরেট জেনারেল অব সিভিল এভিয়েশন (ডিজিসিএ) এই তথ্য জানায়।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন সংক্রমণের আশঙ্কায় কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ডিজিসিএ বলেছে, নতুন ভ্যারিয়েন্টের কারণে বৈশ্বিক দৃশ্যপটের পরিপ্রেক্ষিতে সবার সঙ্গে পরামর্শ করে পুনরায় আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত করা হয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক যাত্রী পরিষেবা পুনরায় চালুর তারিখ যথাসময়ে অবহিত করা হবে।

এর আগে, গত সপ্তাহে কর্তৃপক্ষ আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পুনরায় চালুর ঘোষণা দিয়েছিল। তখন বলা হয়েছিল, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের 'ঝুঁকিপূর্ণ' তালিকায় না থাকা দেশগুলোর যাত্রীরা ১৫ ডিসেম্বর থেকে মহামারি শুরুর আগের নিয়ম অনুযায়ী যাতায়াত করতে পারবে।

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন এখন পর্যন্ত ২২ দেশে ছড়িয়েছে। সর্বশেষ সৌদি আরবে শনাক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে ২২ দেশে ছড়িয়েছে করোনার নতুন এই ধরন।

বিজ্ঞানবিষয়ক সাময়িকী নেচারের অনুসারে, ওমিক্রন ধরন প্রথম আফ্রিকার দেশ বতসোয়ানায় শনাক্ত হয়। এরপর করোনার এই ধরন আফ্রিকার আরও কয়েকটি দেশে ছড়িয়ে পড়ে। এই দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রিয়া, বেলজিয়াম, কানাডা, চেক প্রজাতন্ত্র, ডেনমার্ক, ফ্রান্স, জার্মানি, হংকং, ইসরায়েল, ইতালি, জাপান, নেদারল্যান্ডস, পর্তুগাল, স্পেন, সুইডেন, যুক্তরাজ্য, নাইজেরিয়া।

নতুন ধরন ছড়ানো শুরুর পর থেকে আফ্রিকার দেশগুলোর ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে বিভিন্ন দেশ। 

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, এই রেজিমেন্টের বিস্তার ঠেকাতে কমপক্ষে ৭০টি দেশ ও অঞ্চল আফ্রিকার বেশ কয়েকটি দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন