ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তে সংঘর্ষ সম্পর্কে যা জানা গেল
jugantor
ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তে সংঘর্ষ সম্পর্কে যা জানা গেল

  অনলাইন ডেস্ক  

০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯:১৫:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরানের রেভ্যুলশনারি গার্ড ও তালেবানের মধ্যে হঠাৎ সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। তবে এই সংঘর্ষে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ঘটনার পর বলা হয়েছে— `ভুল বোঝাবুঝি'র কারণে এই সংঘর্ষ হয়েছে।

সংঘর্ষেরপর বুধবার ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইদ খতিবজাদে বলেন, সিস্তান, বেলুচিস্তান এবং নিমরোজ এলাকায় তালেবানের সঙ্গে ইরানের বাহিনীর যে সংঘর্ষ হয়, দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে তা সমাধান করা হয়েছে।

তাসনিম নিউজ এজেন্সির খবরে বলা হয়, ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তে চোরাচালান রোধে দেয়াল রয়েছে। ইরানের কয়েকজন কৃষক হিরমান্দের শাঘালাক এলাকার দেয়াল পার হয়ে নিজেদের কৃষি জমি দেখতে যান। কিন্তু কৃষকরা ইরান সীমান্তের মধ্যে থাকা সত্ত্বেও সীমান্ত লঙ্ঘিত হয়েছে ভেবে গুলিবষর্ণ শুরু করে তালেবান।

সিস্তান ও বেলুচিস্তানের গভর্নর মোহামম্মদ মারাসি বলেন, সংঘর্ষ গুরুতর ছিল না। এতে ব্যক্তি কিংবা সম্পদের কোনো ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি।

গভর্নর মোহামম্মদ মারাসি আরও বলেন, ইরানের কৃষকরা আফগান সীমান্তের জিরো পয়েন্টের কাছে তাদের কৃষিক্ষেত দেখতে গিয়েছিলেন। কিন্তু তালেবান ইরানের সুনির্দিষ্ট সীমানাসম্পর্কে সঠিক তথ্য না জেনেই গুলি করা শুরু করে। তালেবানের গুলির জবাবে ইরানের বাহিনী ভারি অস্ত্র দিয়ে গোলাবর্ষণ করে। সংঘর্ষ কয়েক ঘণ্টা স্থায়ী হয়। এরপর দুই পক্ষের কর্মকর্তরা বসে বিষয়টি মিটমাট করেন। সাইবার জগতেইরানের চেকপোস্ট দখল করেছে তালেবান বলে যে খবর বের হয়েছে, সেটা ভুয়া বলেও উল্লেখ করেন ইরানের এই গভর্নর ।

ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তে সংঘর্ষ সম্পর্কে যা জানা গেল

 অনলাইন ডেস্ক 
০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরানের রেভ্যুলশনারি গার্ড ও তালেবানের মধ্যে হঠাৎ সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। তবে এই সংঘর্ষে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ঘটনার পর বলা হয়েছে— `ভুল বোঝাবুঝি'র কারণে এই সংঘর্ষ হয়েছে। 

সংঘর্ষের পর বুধবার ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইদ খতিবজাদে বলেন, সিস্তান, বেলুচিস্তান এবং নিমরোজ এলাকায় তালেবানের সঙ্গে ইরানের বাহিনীর যে সংঘর্ষ হয়, দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে তা সমাধান করা হয়েছে। 

তাসনিম নিউজ এজেন্সির খবরে বলা হয়, ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তে চোরাচালান রোধে দেয়াল রয়েছে। ইরানের কয়েকজন কৃষক হিরমান্দের শাঘালাক এলাকার দেয়াল পার হয়ে নিজেদের কৃষি জমি দেখতে যান। কিন্তু কৃষকরা ইরান সীমান্তের মধ্যে থাকা সত্ত্বেও সীমান্ত লঙ্ঘিত হয়েছে ভেবে গুলিবষর্ণ শুরু করে তালেবান।

সিস্তান ও বেলুচিস্তানের গভর্নর মোহামম্মদ মারাসি বলেন, সংঘর্ষ গুরুতর ছিল না। এতে ব্যক্তি কিংবা সম্পদের কোনো ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি। 

গভর্নর মোহামম্মদ মারাসি আরও বলেন, ইরানের কৃষকরা আফগান সীমান্তের জিরো পয়েন্টের কাছে তাদের কৃষিক্ষেত দেখতে  গিয়েছিলেন। কিন্তু তালেবান ইরানের  সুনির্দিষ্ট সীমানা সম্পর্কে সঠিক তথ্য না জেনেই গুলি করা শুরু করে।  তালেবানের গুলির জবাবে ইরানের বাহিনী ভারি অস্ত্র দিয়ে গোলাবর্ষণ করে। সংঘর্ষ কয়েক ঘণ্টা স্থায়ী হয়। এরপর দুই পক্ষের কর্মকর্তরা বসে বিষয়টি মিটমাট করেন। সাইবার জগতে ইরানের চেকপোস্ট দখল করেছে তালেবান বলে যে খবর বের হয়েছে, সেটা ভুয়া বলেও উল্লেখ করেন ইরানের এই গভর্নর ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন