কেন জন্ম হলো, চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করে কোটি টাকা আদায় তরুণীর
jugantor
কেন জন্ম হলো, চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করে কোটি টাকা আদায় তরুণীর

  যুগান্তর ডেস্ক  

০২ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:৪৯:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

তার জন্ম নেওয়ায়ই উচিত হয়নি- এই অভিযোগ তুলে মায়ের চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করে কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ পেয়েছে এক তরুণী। ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য সান বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্যের তারকা স্নোজাম্পার ওই এভি টুম্বস নামে চিকিৎসকের ভুল পরামর্শে মেরুদণ্ডের মারাত্মক সমস্যা নিয়ে জন্মগ্রহণ করায় তার বিরুদ্ধে ‘ভুল গর্ভধারণ’ নামে একটি যুগান্তকারী মামলা দায়ের করেন। মেরুদণ্ডের সমস্যার কারণে এভিকে কখনো কখনো ২৪ ঘণ্টাই নাকে নল লাগিয়ে রাখতে হয়।

দ্য সান জানিয়েছে, এভি মেরুদণ্ডে স্পিনা বিফিডা নামেএকটি জন্মগত ত্রুটি নিয়ে জন্মগ্রহণ করেছেন। এর কারণে তার মেরুদণ্ডের একটি অংশ এবং এর মেনিনজেস মেরুদণ্ডের একটি ফাঁক দিয়ে উন্মুক্ত হয়ে পড়ে। মেরুদণ্ডের জটিল এই সমস্যার কারণে অনেক সময় শরীরের নিচের অংশ অবশ হয়ে যেতে পারে। এমনকি এর ফলে রোগীর মানসিক সমস্যাও সৃষ্টি হতে পারে। এই রোগের চিকিৎসা খুব ব্যয়বহুল।

নিজের এই পরিস্থিতির জন্য ফিলিপ মিচেল নামের এক চিকিৎসককে দায়ী করে ২০ বছর বয়সী এই তরুণী আদালতে শরণাপন্ন হয়। এভির অভিযোগ, গর্ভবতী থাকাকালীন তার মাকে সঠিকভাবে পরামর্শ দিতে ব্যর্থ হয়েছেন মিচেল।

আদালতে এভি অভিযোগ করেন, মিচেল যদি তার মাকে সতর্ক করতেন যে, তার শিশুর স্পিনা বিফিডা হওয়ার ঝুঁকি কমাতে তাকে গর্ভবতী অবস্থায় ফলিক অ্যাসিডের সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করতে হবে, তাহলে তার মা গর্ভধারণই করতেন না এবং তাকে আর এই ত্রুটি নিয়ে জন্ম গ্রহণও করতে হত না।

বুধবার লন্ডন হাইকোর্টের বিচারক রোজালিন্ড কো কিউসি এক যুগান্তকারী রায়ে এভির অভিযোগের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলেছেন, সঠিক পরামর্শ পেলে ইভির মা দেরিতে গর্ভধারণ করতেন।

বিচারকজানান, এই পরিস্থিতিতে তিনি হয়তো দেরিতে গর্ভধারণ করতেন। এর ফলে একটি সুস্থ শিশু জন্ম নিতে পারত। এভির ক্ষতিপূরণ পাওয়ার অধিকার রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

অবশ্য এভি ঠিক কী পরিমাণ অর্থ ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন তা জানা যায়নি। তার আইনজীবীরা জানিয়েছেন, এটা বিপুল অংকের অর্থই হবে। কারণ এভির সারা জীবনের চিকিৎসা খরচ হিসেব করে ক্ষতিপূরণ ধরা হয়েছে।

কেন জন্ম হলো, চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করে কোটি টাকা আদায় তরুণীর

 যুগান্তর ডেস্ক 
০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তার জন্ম নেওয়ায়ই উচিত হয়নি- এই অভিযোগ তুলে মায়ের চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করে কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ পেয়েছে এক তরুণী।  ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য সান বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্যের তারকা স্নোজাম্পার ওই এভি টুম্বস নামে চিকিৎসকের ভুল পরামর্শে মেরুদণ্ডের মারাত্মক সমস্যা নিয়ে জন্মগ্রহণ করায় তার বিরুদ্ধে ‘ভুল গর্ভধারণ’ নামে একটি যুগান্তকারী মামলা দায়ের করেন। মেরুদণ্ডের সমস্যার কারণে এভিকে কখনো কখনো ২৪ ঘণ্টাই নাকে নল লাগিয়ে রাখতে হয়। 

দ্য সান জানিয়েছে, এভি মেরুদণ্ডে স্পিনা বিফিডা নামে একটি জন্মগত ত্রুটি নিয়ে জন্মগ্রহণ করেছেন। এর কারণে তার মেরুদণ্ডের একটি অংশ এবং এর মেনিনজেস মেরুদণ্ডের একটি ফাঁক দিয়ে উন্মুক্ত হয়ে পড়ে। মেরুদণ্ডের জটিল এই সমস্যার কারণে অনেক সময় শরীরের নিচের অংশ অবশ হয়ে যেতে পারে। এমনকি এর ফলে রোগীর মানসিক সমস্যাও সৃষ্টি হতে পারে।  এই রোগের চিকিৎসা খুব ব্যয়বহুল।

নিজের এই পরিস্থিতির জন্য  ফিলিপ মিচেল নামের এক চিকিৎসককে দায়ী করে ২০ বছর বয়সী এই তরুণী আদালতে শরণাপন্ন হয়। এভির অভিযোগ, গর্ভবতী থাকাকালীন তার মাকে সঠিকভাবে পরামর্শ দিতে ব্যর্থ হয়েছেন মিচেল।

আদালতে এভি অভিযোগ করেন, মিচেল যদি তার মাকে সতর্ক করতেন যে, তার শিশুর স্পিনা বিফিডা হওয়ার ঝুঁকি কমাতে তাকে গর্ভবতী অবস্থায় ফলিক অ্যাসিডের সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করতে হবে, তাহলে তার মা গর্ভধারণই করতেন না এবং তাকে আর এই ত্রুটি নিয়ে জন্ম গ্রহণও করতে হত না।

বুধবার লন্ডন হাইকোর্টের বিচারক রোজালিন্ড কো কিউসি এক  যুগান্তকারী রায়ে  এভির অভিযোগের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলেছেন, সঠিক পরামর্শ পেলে ইভির মা দেরিতে গর্ভধারণ করতেন। 

বিচারক জানান, এই পরিস্থিতিতে তিনি হয়তো দেরিতে গর্ভধারণ করতেন। এর ফলে একটি সুস্থ শিশু জন্ম নিতে পারত। এভির ক্ষতিপূরণ পাওয়ার অধিকার রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। 

অবশ্য এভি ঠিক কী পরিমাণ অর্থ ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন তা জানা যায়নি। তার আইনজীবীরা জানিয়েছেন, এটা বিপুল অংকের অর্থই হবে। কারণ এভির সারা জীবনের চিকিৎসা খরচ হিসেব করে ক্ষতিপূরণ ধরা হয়েছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন