পায়ুপথে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ‘অস্ত্র’, সেনাবাহিনী তলব
jugantor
পায়ুপথে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ‘অস্ত্র’, সেনাবাহিনী তলব

  অনলাইন ডেস্ক  

০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:০৬:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

পায়ুপথে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার একটি ‘অস্ত্র’ আটকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি হয়েছিলেন এক ব্যক্তি। সেটি বিস্ফোরণের ভয়ে পুলিশ ও সেনাবাহিনীকে তলব করেন চিকিৎসকরা।

পরে অবশ্য কোনো বিপত্তি ছাড়াই ওই ব্যক্তির পায়ুপথ থেকে সেটা অপসারণ করা হয়। বার্তা সংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

পশ্চিম ইংল্যান্ডের গ্লুচেস্টারশায়ারে এই ঘটনা ঘটে বলে ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এক ব্যক্তি পায়ুপথে ‘অস্ত্র’ আটকে হাসপাতালে ভর্তি হন। স্থানীয় সময় বুধবার সকালে গ্লুচেস্টারশায়ার রয়্যাল হাসপাতাল থেকে পুলিশকে এই ঘটনা জানানো হয়।

পুলিশ আসার আগে সেটি অপসারণ করতে সক্ষম হন চিকিৎসকরা। এ ব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বোমা স্কোয়াড দলের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল।

তবে মর্টারটি সক্রিয় ছিল না বলে অপসারণের পর জানা গেছে।

এ ব্যাপারে সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছে, স্থানীয় পুলিশের অনুরোধে সেনাবাহিনীর বোম্ব ডিসপোজাল দলকে ডাকা হয়েছিল।

এদিকে, ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য সানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ব্যক্তি চিকিৎসকদের জানিয়েছেন, ওই অস্ত্রের ওপর পিছলে পড়ে যাওয়ার পর সেটি তার পায়ুপথে আটকে যায়।

পায়ুপথে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ‘অস্ত্র’, সেনাবাহিনী তলব

 অনলাইন ডেস্ক 
০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:০৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পায়ুপথে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার একটি ‘অস্ত্র’ আটকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি হয়েছিলেন এক ব্যক্তি। সেটি বিস্ফোরণের ভয়ে পুলিশ ও সেনাবাহিনীকে তলব করেন চিকিৎসকরা। 

পরে অবশ্য কোনো বিপত্তি ছাড়াই ওই ব্যক্তির পায়ুপথ থেকে সেটা অপসারণ করা হয়। বার্তা সংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

পশ্চিম ইংল্যান্ডের গ্লুচেস্টারশায়ারে এই ঘটনা ঘটে বলে ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এক ব্যক্তি পায়ুপথে ‘অস্ত্র’ আটকে হাসপাতালে ভর্তি হন। স্থানীয় সময় বুধবার সকালে গ্লুচেস্টারশায়ার রয়্যাল হাসপাতাল থেকে পুলিশকে এই ঘটনা জানানো হয়। 

পুলিশ আসার আগে সেটি অপসারণ করতে সক্ষম হন চিকিৎসকরা। এ ব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বোমা স্কোয়াড দলের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। 

তবে মর্টারটি সক্রিয় ছিল না বলে অপসারণের পর জানা গেছে।

এ ব্যাপারে সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছে, স্থানীয় পুলিশের অনুরোধে সেনাবাহিনীর বোম্ব ডিসপোজাল দলকে ডাকা হয়েছিল।

এদিকে, ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য সানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ব্যক্তি চিকিৎসকদের জানিয়েছেন, ওই অস্ত্রের ওপর পিছলে পড়ে যাওয়ার পর সেটি তার পায়ুপথে আটকে যায়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন