তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি না দেওয়া অন্যায্য: আনাস হাক্কানি
jugantor
তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি না দেওয়া অন্যায্য: আনাস হাক্কানি

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২২:৫৪:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

তালেবান

বর্তমান আফগান সরকারকে বিশ্ব সম্প্রদায়ের স্বীকৃতি না দেওয়া ‘অন্যায্য’ বলে মন্তব্য করেছেন তালেবান নেতা আনাস হাক্কানি।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের পশ্চিমা সমর্থিত সরকারপ্রধান আশরাফ গনি বিদেশেপালিয়ে যান। এর মধ্যে দেশটির ক্ষমতা গ্রহণ করে তালেবান। এই ঘটনার দুই সপ্তাহ পর তালেবান অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করে। কিন্তু দেশটিতে নারী অধিকার, অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার গঠনসহ বিভিন্ন ইস্যুতুলে বিশ্ব সম্প্রদায় এখনো তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি।

গত সপ্তাহে জাতিসংঘে তালেবান সরকারের প্রতিনিধিত্ব ঠেকাতে সংস্থাটির সাধারণ সভা ভোট দিয়েছে। এর অর্থ হলো- সাবেক আশরাফ গনি সরকারের নিয়োগ করা রাষ্ট্রদূত জাতিসংঘে আফগানিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করবে। যদিও তালেবান সুহেল শাহিনকে জাতিসংঘে তাদের সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

আফগানিস্তানের বর্তমান সরকারকে স্বীকৃতি না দেওয়ার বিষয়ে কাতারে তালেবানের রাজনৈতিক দপ্তরের সদস্য আনাস হাক্কানি বলেন, ‘স্বীকৃতি দিতে শর্তাবলি আরোপ এবং শক্তি প্রয়োগ আফগানিস্তানের সমস্যা সমাধান করবে না। আফগানিস্তানের প্রতি বিশ্ব সম্প্রদায়ের এই আচারণ অন্যায্য। প্রথমে তারা শান্তি এবং নিরাপত্তার কথা বলেছিল, এখনতারা নতুন শর্তারোপ করে বলছে, সেগুলো মানতে হবে।’

আফগানিস্তানে তালেবানের ক্ষমতা গ্রহণের প্রায় চার মাসের মধ্যে দেশটিতে ভয়াবহ অর্থনৈতিক ও মানবিক সঙ্কট বিরাজ করছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, সঙ্কট কাটাতে তালেবানকে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সঙ্গে যুক্ত হতে হবে।

তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি না দেওয়া অন্যায্য: আনাস হাক্কানি

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তালেবান
তালেবান নেতা আনাস হাক্কানি

বর্তমান আফগান সরকারকে বিশ্ব সম্প্রদায়ের স্বীকৃতি না দেওয়া ‘অন্যায্য’ বলে মন্তব্য করেছেন তালেবান নেতা আনাস হাক্কানি। 

গত ১৫ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের পশ্চিমা সমর্থিত সরকারপ্রধান আশরাফ গনি বিদেশে পালিয়ে যান। এর মধ্যে দেশটির ক্ষমতা গ্রহণ করে তালেবান। এই ঘটনার দুই সপ্তাহ পর তালেবান অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করে। কিন্তু দেশটিতে নারী অধিকার, অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার গঠনসহ বিভিন্ন ইস্যু তুলে বিশ্ব সম্প্রদায় এখনো তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। 

গত সপ্তাহে জাতিসংঘে তালেবান সরকারের প্রতিনিধিত্ব ঠেকাতে সংস্থাটির সাধারণ সভা ভোট দিয়েছে। এর অর্থ হলো- সাবেক আশরাফ গনি সরকারের নিয়োগ করা রাষ্ট্রদূত জাতিসংঘে আফগানিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করবে। যদিও তালেবান সুহেল শাহিনকে জাতিসংঘে তাদের সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

আফগানিস্তানের বর্তমান সরকারকে স্বীকৃতি না দেওয়ার বিষয়ে কাতারে তালেবানের রাজনৈতিক দপ্তরের সদস্য আনাস হাক্কানি বলেন, ‘স্বীকৃতি দিতে শর্তাবলি আরোপ এবং শক্তি প্রয়োগ আফগানিস্তানের সমস্যা সমাধান করবে না। আফগানিস্তানের প্রতি বিশ্ব সম্প্রদায়ের এই আচারণ অন্যায্য। প্রথমে তারা শান্তি এবং নিরাপত্তার কথা বলেছিল, এখন তারা নতুন শর্তারোপ করে বলছে, সেগুলো মানতে হবে।’ 

আফগানিস্তানে তালেবানের ক্ষমতা গ্রহণের প্রায় চার মাসের মধ্যে দেশটিতে ভয়াবহ অর্থনৈতিক ও মানবিক সঙ্কট বিরাজ করছে। 

বিশ্লেষকরা বলছেন, সঙ্কট কাটাতে তালেবানকে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সঙ্গে যুক্ত হতে হবে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন