অবশেষে ফিলিস্তিনিদের জন্য সিসির দয়া, রমজানে খোলা থাকবে সীমান্ত

  যুগান্তর ডেস্ক ১৮ মে ২০১৮, ১০:২৯ | অনলাইন সংস্করণ

রাফাহ সীমান্ত

গত ১১ বছর ধরে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা দখল করে রেখেছে ইসরাইল। গাজা উপত্যকাসংলগ্ন মিসরের রাফাহ সীমান্ত বন্ধ থাকায় ফিলিস্তিনিরা চিকিৎসাসেবাসহ জরুরি প্রয়োজন মেটাতে বাইরে যেতে পারতেন না।

অবশেষে রমজান মাস উপলক্ষে রাফাহ সীমান্ত খুলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মিসরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল সিসি। পুরো রমজানজুড়ে এ সীমান্ত খোলা থাকবে।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রাফাহ সীমান্ত বেশিরভাগ সময়ই বন্ধ থাকে। প্রতি ২-৩ মাস পর হয়তো কয়েক দিনের জন্য খুলে দেয় মিসর। বিগত কয়েক বছরে এবারই সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে খুলে দেয়ার ঘোষণা দিল মিসর।

বৃহস্পতিবার এক টুইটবার্তায় সিসি বলেন, আমি সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছি যেন পবিত্র রমজানজুড়ে এ সীমান্ত খোলা থাকে।

গাজা উপত্যকার নিয়ন্ত্রণ হামাসের কাছে থাকলেও এর সীমান্ত তাদের দখলে নেই। রাফাহ সীমান্ত মিসরের দখলে ও এরেজ সীমান্ত ইসরাইলের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

কায়রোতে এক চুক্তি অনুযায়ী, এ সীমান্ত ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দিয়েছিল মিসর।

২০১৩ সালে সিনাই উপদ্বীপ অঞ্জলে মিসরীয় বাহিনীর ওপর হামলার পরই এ সীমান্ত বন্ধ করে দেয় মিসর। তাদের অভিযোগ- ফিলিস্তিনিরা এ হামলা চালিয়েছেন। সীমান্ত বন্ধ হয়ে যাওয়া স্বাস্থ্য ও মৌলিক সেবা থেকে বঞ্চিত ছিল অনেক ফিলিস্তিনি।

২০০৭ সাল থেকে গাজা উপত্যকার আকাশ, স্থল ও জলপথ বন্ধ করে দেয় ইসরাইল। গাজার মোট সাতটি সীমান্ত রয়েছে আর এর ছয়টিই ইসরাইলের নিয়ন্ত্রণে। একটি মাত্র সীমান্ত রাফাহ মিসরের নিয়ন্ত্রণে। ২০১৩ সালে মোহাম্মদ মুরসির উৎখাতের পর এ সীমান্তও বেশিরভাগ সময় বন্ধ থাকে।

২০০৭ সালে গাজার ওপর সর্বাত্মক অবরোধ চাপিয়ে দেয় ইসরাইল। তখন থেকে গাজার অধিবাসীরা বাইরের জগতের সঙ্গে প্রায় সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন। গাজা থেকে যেসব মানুষ চিকিৎসাসহ জরুরি প্রয়োজন মেটাতে বাইরে যেতে চান দীর্ঘদিন ধরে রাফাহ সীমান্ত বন্ধ থাকায় তাদের পক্ষে তা সম্ভব হচ্ছিল না। আবার বাইরে থেকে যেসব নাগরিক গাজায় ফিরতে চান তারাও যেতে পারছিলেন না।

উল্লেখ্য, গত সোমবার গাজা উপত্যকায় ভূমি দিবস উপলক্ষে আন্দোলনরত অর্ধশতাধিক ফিলিস্তিনিদের হত্যা করেছে দখলদার ইসরাইল বাহিনী।

ঘটনাপ্রবাহ : ফিলিস্তিনিদের ঘরে ফেরার বিক্ষোভ

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter