হলিউডের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ তারকা সিডনি পোয়াটির আর নেই
jugantor
হলিউডের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ তারকা সিডনি পোয়াটির আর নেই

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:০৪:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

হলিউডের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ তারকা অভিনেতা অস্কার জয়ী সিডনি পোয়াটির ৯৪ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।

সিডনিই প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ যিনি সেরা অভিনেতা হিসাবে অস্কার জিতেছিলেন। সিডনির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন বাহামার পররাষ্ট্র মন্ত্রী মিশেল। খবর বিবিসির।

‘লিলিস অব দ্য ফিল্ড’ ছবির জন্য ১৯৬৩ সালে অস্কার পান তিনি। সেরা অভিনেতা হিসাবে এই পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি।

১৯৫৮ সালে প্রথমবার অস্কারের জন্য মনোনয়ন পেয়েছিলেন তিনি। ‘দ্য ডিফায়েন্ট ওয়ানস’ ছবির জন্য প্রথমবার মনোনয়ন পান তিনি।

সিডনিই প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ যিনি অস্কার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন। তবে মনোনয়ন পাওয়ার পাঁচ বছর পর তার ঝুলিতে ধরা দিয়েছিল এই পুরস্কার।

১৯৫৫ সালে ‘ব্ল্যাকবোর্ড জঙ্গল’ তার জীবনের প্রথম সিনেমা। সেই সিনেমায় হাইস্কুলের ছাত্রের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন তিনি।

১৯২৭ সালে মিয়ামিতে জন্ম সিডনির। বেশ কয়েক মাসের প্রিম্যাচিওর হিসাবে জন্মেছিলেন তিনি। জন্মের সময় শীর্ণকায় হওয়ায় তার মা ছুটেছিলেন জ্যোতিষীর কাছে।

সেদিন সিডনির মাকে দেওয়া জ্যোতিষীর আশ্বাস অবশ্য ভুল হয়নি। প্রাণে তো বেঁচেছিলেনই, খ্যাতিও অর্জন করেছিলেন অসুস্থ হয়ে জন্মানো সিডনি। তার বাবা ছিলেন কৃষক।

তিনি প্রায়শই মিয়ামি থেকে ফ্লোরিডা এবং বাহামায় যাতায়াত করতেন। সেজন্য সিডনির বেড়ে ওঠা বাহামায়। ১৫ বছর বয়সে আমেরিকার মিয়ামিতে চলে আসেন তিনি।

পরের বছর আসেন নিউইয়র্কে। ১৬ বছর বয়সে তিনি যোগ দেন আমেরিকান নিগ্রো থিয়েটারে।

হলিউডের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ তারকা সিডনি পোয়াটির আর নেই

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:০৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হলিউডের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ তারকা অভিনেতা অস্কার জয়ী সিডনি পোয়াটির ৯৪ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।

সিডনিই প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ যিনি সেরা অভিনেতা হিসাবে অস্কার জিতেছিলেন। সিডনির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন বাহামার পররাষ্ট্র মন্ত্রী মিশেল। খবর বিবিসির।

‘লিলিস অব দ্য ফিল্ড’ ছবির জন্য ১৯৬৩ সালে অস্কার পান তিনি। সেরা অভিনেতা হিসাবে এই পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি।

১৯৫৮ সালে প্রথমবার অস্কারের জন্য মনোনয়ন পেয়েছিলেন তিনি। ‘দ্য ডিফায়েন্ট ওয়ানস’ ছবির জন্য প্রথমবার মনোনয়ন পান তিনি।

সিডনিই প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ যিনি অস্কার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন। তবে মনোনয়ন পাওয়ার পাঁচ বছর পর তার ঝুলিতে ধরা দিয়েছিল এই পুরস্কার।

১৯৫৫ সালে ‘ব্ল্যাকবোর্ড জঙ্গল’ তার জীবনের প্রথম সিনেমা। সেই সিনেমায় হাইস্কুলের ছাত্রের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন তিনি।

১৯২৭ সালে মিয়ামিতে জন্ম সিডনির। বেশ কয়েক মাসের প্রিম্যাচিওর হিসাবে জন্মেছিলেন তিনি। জন্মের সময় শীর্ণকায় হওয়ায় তার মা ছুটেছিলেন জ্যোতিষীর কাছে।

সেদিন সিডনির মাকে দেওয়া জ্যোতিষীর আশ্বাস অবশ্য ভুল হয়নি। প্রাণে তো বেঁচেছিলেনই, খ্যাতিও অর্জন করেছিলেন অসুস্থ হয়ে জন্মানো সিডনি। তার বাবা ছিলেন কৃষক।

তিনি প্রায়শই মিয়ামি থেকে ফ্লোরিডা এবং বাহামায় যাতায়াত করতেন। সেজন্য সিডনির বেড়ে ওঠা বাহামায়। ১৫ বছর বয়সে আমেরিকার মিয়ামিতে চলে আসেন তিনি।

পরের বছর আসেন নিউইয়র্কে। ১৬ বছর বয়সে তিনি যোগ দেন আমেরিকান নিগ্রো থিয়েটারে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন