প্রতিমাসে দুটি করে যুদ্ধ বিমান বানাবে তুরস্ক!
jugantor
প্রতিমাসে দুটি করে যুদ্ধ বিমান বানাবে তুরস্ক!

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৯:৪০:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

সম্পূর্ণ নিজেদের কারিগরি দক্ষতা দিয়ে হুরজেট নামে একটি হালকা যুদ্ধবিমান তৈরি করছে তুরস্ক। আগামী দুই মাসের মধ্যে সকলের সামনে উন্মোচন করা হবে এ বিমানটির অত্যাধুনিক সংস্করণটি।

তুরস্কের যুদ্ধ বিমানটি বানিয়েছে তার্কিস অ্যারোস্পেস ইন্ডাস্ট্রিজ। বিমানটি প্রশিক্ষণ ও ছোট সামরিক মিশনে ব্যবহার করা যাবে।

সোমবার প্রতিষ্ঠানটির প্রধান তেমেল কোতিল জানিয়েছেন, ২০২৫ সালের পর প্রতিমাসে দুটি করে হুরজেট যুদ্ধবিমান তৈরি করবেন তারা। ২০২৪ সাল থেকে বৃহৎ পরিসরে বিমানটি উৎপাদন করা হবে।

এ ব্যপারে তেমেল কোতিল বলেন, প্রথম বছর আমরা বৃহৎ পরিসরে উৎপাদনের অংশ হিসেবে বছরে ৬-৭টি বিমান তৈরির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছি। এরপরের বছর প্রতিমাসে দুইটি ও প্রতি বছর ২৪টি বিমান তৈরি করব।

তিনি আরো বলেন, ২০২৫ সালের পর প্রতি মাসে হ্যাঙ্গার থেকে দুইটি হুরজেট বের হবে ও সেগুলো গ্রাহকদের কাছে পৌছে দেয়া হবে।

রপ্তানি করার আগে নিজেদের চাহিদা মেটাবে তুরস্ক। হুরজেটের অত্যাধুনিক এই বিমানগুলো বর্তমানে তুরষ্কের বিমানবাহিনীতে থাকা টি-৩৮ প্রশিক্ষণ বিমানের জায়গায় ব্যবহার করা হবে।

নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে বাইরের দেশগুলোতেও রপ্তানি করবে দেশটি।

সূত্র: ডেইলি সাবাহ

প্রতিমাসে দুটি করে যুদ্ধ বিমান বানাবে তুরস্ক!

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৭:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সম্পূর্ণ নিজেদের কারিগরি দক্ষতা দিয়ে হুরজেট নামে একটি হালকা যুদ্ধবিমান তৈরি করছে তুরস্ক। আগামী দুই মাসের মধ্যে সকলের সামনে উন্মোচন করা হবে এ বিমানটির অত্যাধুনিক সংস্করণটি। 

তুরস্কের যুদ্ধ বিমানটি বানিয়েছে তার্কিস অ্যারোস্পেস ইন্ডাস্ট্রিজ। বিমানটি প্রশিক্ষণ ও ছোট সামরিক মিশনে ব্যবহার করা যাবে। 

সোমবার প্রতিষ্ঠানটির প্রধান তেমেল কোতিল জানিয়েছেন, ২০২৫ সালের পর প্রতিমাসে দুটি করে হুরজেট যুদ্ধবিমান তৈরি করবেন তারা। ২০২৪ সাল থেকে বৃহৎ পরিসরে বিমানটি উৎপাদন করা হবে।

এ ব্যপারে তেমেল কোতিল বলেন, প্রথম বছর আমরা বৃহৎ পরিসরে উৎপাদনের অংশ হিসেবে বছরে ৬-৭টি বিমান তৈরির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছি। এরপরের বছর প্রতিমাসে দুইটি ও প্রতি বছর ২৪টি বিমান তৈরি করব। 

তিনি আরো বলেন, ২০২৫ সালের পর প্রতি মাসে হ্যাঙ্গার থেকে দুইটি হুরজেট বের হবে ও সেগুলো গ্রাহকদের কাছে পৌছে দেয়া হবে।

রপ্তানি করার আগে নিজেদের চাহিদা মেটাবে তুরস্ক। হুরজেটের অত্যাধুনিক এই বিমানগুলো বর্তমানে তুরষ্কের বিমানবাহিনীতে থাকা টি-৩৮ প্রশিক্ষণ বিমানের জায়গায় ব্যবহার করা হবে।

নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে বাইরের দেশগুলোতেও রপ্তানি করবে দেশটি।

সূত্র: ডেইলি সাবাহ   

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন