মুকুল তৃণমূলে যোগ দেননি, এখনও বিজেপি শিবিরেই!
jugantor
মুকুল তৃণমূলে যোগ দেননি, এখনও বিজেপি শিবিরেই!

  অনলাইন ডেস্ক  

২০ জানুয়ারি ২০২২, ০৮:০৯:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সাধারণ সম্পাদক অভিষেকের মাঝে মুকুল রায়। ফাইল ছবি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তুমুল আলোচিত নেতা মুকুল রায়কে নিয়ে এবার ভিন্নরকম দাবি করেছেন তারই আইনজীবীরা। তাদের দাবি, এখনও বিজেপিতে আছেন মুকুল রায়। তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেননি।

বুধবার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরে বিধায়ক পদ খারিজ মামলার শুনানিতে এমন দাবি করেছেন মুকুলের আইনজীবীরা। ওই দিন সেই শুনানির প্রেক্ষিতে কোনও রায় ঘোষণা করা হয়নি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, গত সোমবার বিধানসভার অধ্যক্ষকে দু'সপ্তাহের মধ্যে মুকুলের দলত্যাগের মামলা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বলেছে সুপ্রিম কোর্ট। সেই নির্দেশের পর বুধবার দুপুরে অধ্যক্ষের ঘরে শুনানি হয়। শুনানির সময় একাধিক মামলার বিষয়ে উত্থাপন করেন মুকুল আইনজীবীরা। হাজির ছিলেন বিজেপির আইনজীবীরাও।

বিধানসভার কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমস জানায়,শুনানিতে মুকুলের আইনজীবীরা দাবি করেছেন- গত ১১ জুন মোটেও তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেননি কৃষ্ণনগরের উত্তর বিধায়ক। বিজেপির প্রতীকে যে আসন থেকে জিতেছিলেন। পাশাপাশি গত বছরের ১১ জুন তৃণমূলের সদর দফতরে মমতা এবং অভিষেকের বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে নেহাত 'সৌজন্য সাক্ষাৎ' করেছিলেন মুকুল। এখনও তিনি বিজেপিতেই আছেন।

শুনানি শেষে বিধানসভার অধ্যক্ষ বলেন, 'আজ দীর্ঘক্ষণ শুনানি হয়েছে। মুকুল রায়ের আইনজীবীরা সওয়াল করেছেন। তারা পরে একদিন আইনি বিষয়ে উত্থাপন করতে চান। শুনানি শেষ হয়ে গিয়েছে। আমি এই প্রক্রিয়া দীর্ঘায়িত করতে চাই না। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো যত দ্রুত সম্ভব আমার রায় জানিয়ে দেব।'

মুকুল তৃণমূলে যোগ দেননি, এখনও বিজেপি শিবিরেই!

 অনলাইন ডেস্ক 
২০ জানুয়ারি ২০২২, ০৮:০৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সাধারণ সম্পাদক অভিষেকের মাঝে মুকুল রায়। ফাইল ছবি
তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সাধারণ সম্পাদক অভিষেকের মাঝে মুকুল রায়। ফাইল ছবি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তুমুল আলোচিত নেতা মুকুল রায়কে নিয়ে এবার ভিন্নরকম দাবি করেছেন তারই আইনজীবীরা। তাদের দাবি, এখনও বিজেপিতে আছেন মুকুল রায়। তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেননি। 

বুধবার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরে বিধায়ক পদ খারিজ মামলার শুনানিতে এমন দাবি করেছেন মুকুলের আইনজীবীরা। ওই দিন সেই শুনানির প্রেক্ষিতে কোনও রায় ঘোষণা করা হয়নি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, গত সোমবার বিধানসভার অধ্যক্ষকে দু'সপ্তাহের মধ্যে মুকুলের দলত্যাগের মামলা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বলেছে সুপ্রিম কোর্ট। সেই নির্দেশের পর বুধবার দুপুরে অধ্যক্ষের ঘরে শুনানি হয়। শুনানির সময় একাধিক মামলার বিষয়ে উত্থাপন করেন মুকুল আইনজীবীরা। হাজির ছিলেন বিজেপির আইনজীবীরাও।

বিধানসভার কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, শুনানিতে মুকুলের আইনজীবীরা দাবি করেছেন- গত ১১ জুন মোটেও তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেননি কৃষ্ণনগরের উত্তর বিধায়ক। বিজেপির প্রতীকে যে আসন থেকে জিতেছিলেন। পাশাপাশি গত বছরের ১১ জুন তৃণমূলের সদর দফতরে মমতা এবং অভিষেকের বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে নেহাত 'সৌজন্য সাক্ষাৎ' করেছিলেন মুকুল। এখনও তিনি বিজেপিতেই আছেন। 

শুনানি শেষে বিধানসভার অধ্যক্ষ বলেন, 'আজ দীর্ঘক্ষণ শুনানি হয়েছে। মুকুল রায়ের আইনজীবীরা সওয়াল করেছেন। তারা পরে একদিন আইনি বিষয়ে উত্থাপন করতে চান। শুনানি শেষ হয়ে গিয়েছে। আমি এই প্রক্রিয়া দীর্ঘায়িত করতে চাই না। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো যত দ্রুত সম্ভব আমার রায় জানিয়ে দেব।'

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন