বিয়ের আসরেই হবু স্ত্রীকে চড় মারলেন যুবক
jugantor
বিয়ের আসরেই হবু স্ত্রীকে চড় মারলেন যুবক

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক  

২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১১:৪৬:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বিয়ের আসরেই হবু স্ত্রীকে চড় মারলেন যুবক

বিয়ের আসরেই হবু স্ত্রীকে চড় মেরেছেন এক যুবক। এরপর ওই তরুণী বিয়ে ভেঙে দিয়ে তার এক আত্মীয়কে বিয়ে করেন।

ভারতের তামিলনাড়ুর কুদ্দালোর জেলায়এই ঘটনা ঘটে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কুদ্দালোর জেলার পানরুতি এলাকার বাসিন্দা ওই তরুণীর সঙ্গে পেরিয়াকাট্টুপালিয়াম এলাকার এক যুবকের গত বছরের ৬ নভেম্বর বাগদান হয়। চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি কদমপুলিউর গ্রামে তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

১৯ ডিসেম্বর স্থানীয় রীতি অনুযায়ী তাদের বিবাহ পূর্ববর্তী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেই অনুষ্ঠানেই ডিজের তালে তালে নাচছিলেন হবু বর-কনে। এ সময় হবু কনের আত্মীয় এক যুবক এসে তাদের সঙ্গে নাচতে শুরু করেন। এতে হবু বর রেগে নিয়ে তরুণীকে চড় মারেন। তখনই বিয়ে ভেঙে দেন ওই তরুণী। তার বাবা-মাও মেয়ের সিদ্ধান্তে সম্মতি জানান।

পরে নিজেদের আত্মীয়ের মধ্য থেকে এক যুবকের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে ঠিক করেন তারা। নির্ধারিত দিনেই মেয়ের বিয়ে দেন তারা। শুধু বিয়ের অনুষ্ঠান অন্য স্থানে করেন।

প্রত্যাখ্যাত বর পানরুটি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। তিনি জানান, বিয়ের আয়োজন বাবদ তার পরিবারের সাত লাখ রুপি খরচ হয়েছে। সেই অর্থের জন্য ক্ষতিপূরণ দাবি করেন তিনি।

বিয়ের আসরেই হবু স্ত্রীকে চড় মারলেন যুবক

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক 
২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১১:৪৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিয়ের আসরেই হবু স্ত্রীকে চড় মারলেন যুবক
প্রতীকী ছবি

বিয়ের আসরেই হবু স্ত্রীকে চড় মেরেছেন এক যুবক। এরপর ওই তরুণী বিয়ে ভেঙে দিয়ে তার এক আত্মীয়কে বিয়ে করেন।

ভারতের তামিলনাড়ুর কুদ্দালোর জেলায় এই ঘটনা ঘটে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কুদ্দালোর জেলার পানরুতি এলাকার বাসিন্দা ওই তরুণীর সঙ্গে পেরিয়াকাট্টুপালিয়াম এলাকার এক যুবকের গত বছরের ৬ নভেম্বর বাগদান হয়। চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি কদমপুলিউর গ্রামে তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

১৯ ডিসেম্বর স্থানীয় রীতি অনুযায়ী তাদের বিবাহ পূর্ববর্তী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেই অনুষ্ঠানেই ডিজের তালে তালে নাচছিলেন  হবু বর-কনে। এ সময় হবু কনের আত্মীয় এক যুবক এসে তাদের সঙ্গে নাচতে শুরু করেন। এতে হবু বর রেগে নিয়ে তরুণীকে চড় মারেন। তখনই বিয়ে ভেঙে দেন ওই তরুণী। তার বাবা-মাও মেয়ের সিদ্ধান্তে সম্মতি জানান।

পরে নিজেদের আত্মীয়ের মধ্য থেকে এক যুবকের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে ঠিক করেন তারা। নির্ধারিত দিনেই মেয়ের বিয়ে দেন তারা। শুধু বিয়ের অনুষ্ঠান অন্য স্থানে করেন।

প্রত্যাখ্যাত বর পানরুটি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। তিনি জানান, বিয়ের আয়োজন বাবদ তার পরিবারের সাত লাখ রুপি খরচ হয়েছে। সেই অর্থের জন্য ক্ষতিপূরণ দাবি করেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন