ক্যামেরুনে নাইটক্লাবে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ১৬
jugantor
ক্যামেরুনে নাইটক্লাবে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ১৬

  অনলাইন ডেস্ক  

২৩ জানুয়ারি ২০২২, ২০:২৫:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্যামেরুনের রাজধানী ইয়াউন্ডের একটি নাইটক্লাবে আতশবাজি থেকে সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডে ১৬ জন নিহত হয়েছেন। দেশটি আফ্রিকা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজন করছে। টুর্নামেন্টে উৎসব থেকে বিয়োগান্ত এই ঘটনা ঘটেছে।

ক্যামেরুনের যোগাযোগ মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, প্রাথমিক প্রতিবেদনে দেখা গেছে ১৬ জন নিহত এবং আটজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

খবরে বলা হয়েছে, রাজধানীর বাস্তোস জেলার লিভস নাইট ক্লাবের প্রধান কক্ষে আগুন লাগে। এই এলাকায় দূতাবাস এবং কূটনীতিকদের বাসস্থান রয়েছে।

মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই সব জায়গায় প্রায়ই আতশবাজি থেকে বিস্ফোরণ ঘটে। আতশবাজি বিস্ফোরণ থেকে সৃষ্ট এই অগ্নিকাণ্ডের ফলে দুটি উচ্চ শব্দের বিস্ফোরণ ঘটে। যার ফলে আতঙ্ক ও পদদলিত হয়ে এই হতাহত হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে দমকল বাহিনীর একজন কর্মকর্তা এএফপিকে বলেন, আমরা যখন পৌঁছায় তখন আতঙ্ক ছিল, প্রচুর ধোঁয়ার সঙ্গে একটি শক্তিশালী আগুন ছিল। এই কর্মকর্তা বলেন, আমরা গিয়ে ১৬ জন নিহত এবং পাঁচজন আহত পেয়েছি।

একজন নিরাপত্তা প্রহরী বলেন, ভবনের সিলিং থেকে আগুনের সূত্রপাত। এটা দ্রুত ঘটে যায়।

এএফপির একজন সাংবাদিক বলেন, ক্লাবের সামনে পোড়া অনেক কিছু ছিল যা আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা নির্দেশ করে। তবে আগুনে ভবনের সম্মুখভাগ ধসে যায়নি কিংবা পুড়ে যায়নি।

ক্যামেরুনে নাইটক্লাবে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ১৬

 অনলাইন ডেস্ক 
২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৮:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্যামেরুনের রাজধানী ইয়াউন্ডের একটি নাইটক্লাবে আতশবাজি থেকে সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডে ১৬ জন নিহত হয়েছেন। দেশটি আফ্রিকা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজন করছে। টুর্নামেন্টে উৎসব থেকে বিয়োগান্ত এই ঘটনা ঘটেছে। 

ক্যামেরুনের যোগাযোগ মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, প্রাথমিক প্রতিবেদনে দেখা গেছে ১৬ জন  নিহত এবং আটজন গুরুতর আহত হয়েছেন। 

খবরে বলা হয়েছে, রাজধানীর বাস্তোস জেলার লিভস নাইট ক্লাবের প্রধান কক্ষে আগুন লাগে। এই এলাকায় দূতাবাস এবং কূটনীতিকদের বাসস্থান রয়েছে।

মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই সব জায়গায় প্রায়ই আতশবাজি থেকে বিস্ফোরণ ঘটে। আতশবাজি বিস্ফোরণ থেকে সৃষ্ট এই অগ্নিকাণ্ডের ফলে দুটি উচ্চ শব্দের বিস্ফোরণ ঘটে।  যার ফলে আতঙ্ক ও পদদলিত হয়ে এই হতাহত হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে দমকল বাহিনীর একজন কর্মকর্তা এএফপিকে বলেন, আমরা যখন পৌঁছায় তখন আতঙ্ক ছিল, প্রচুর ধোঁয়ার সঙ্গে একটি শক্তিশালী আগুন ছিল। এই কর্মকর্তা বলেন, আমরা গিয়ে ১৬ জন  নিহত এবং পাঁচজন আহত পেয়েছি। 

একজন নিরাপত্তা প্রহরী বলেন, ভবনের সিলিং থেকে আগুনের সূত্রপাত। এটা দ্রুত ঘটে যায়।

এএফপির একজন সাংবাদিক বলেন, ক্লাবের সামনে পোড়া অনেক কিছু ছিল যা আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা নির্দেশ করে। তবে আগুনে ভবনের সম্মুখভাগ ধসে যায়নি কিংবা পুড়ে যায়নি। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন