তালেবানের সঙ্গে নরওয়েতে আলোচনা শুরু
jugantor
তালেবানের সঙ্গে নরওয়েতে আলোচনা শুরু

  অনলাইন ডেস্ক  

২৩ জানুয়ারি ২০২২, ২২:৫২:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

নরওয়ে

আফগানিস্তানের নাগরিক সমাজের সদস্যদের সঙ্গে তালেবান প্রতিনিধি দল নরওয়ের রাজধানী অসলোতে আলোচনায় বসেছে।গত বছরের আগস্টে ক্ষমতা গ্রহণের পর তালেবান এই প্রথম কোনো ইউরোপীয় দেশে আলোচনায় অংশ নিচ্ছে।

এএফপির খবরে বলা হয়েছে, অসলোতে আফগানিস্তানের নাগরিক সমাজের সঙ্গে তালেবানের আলোচনার মূল বিষয় মানবাধিকার।

তালেবান প্রতিনিধিদলের এই সফরে রয়েছেন অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকী।

খবর থেকে জানা যায়, তালেবান প্রতিনিধি দলের এই সফর তিন দিনের। রোববার প্রথম দিনে তালেবান প্রতিনিধি দল নারী আন্দোলনকর্মী, সাংবাদিকসহ আফগানিস্তানের নাগরিক সমাজেরসদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন।

অসলোর উপকণ্ঠে সরিয়া মারিয়া হোটেলে রুদ্ধদ্বার এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

গত বছরের আগস্টে ক্ষমতা গ্রহণের পর আফগানিস্তানের অর্থনৈতিক ও মানবিক অবস্থা ক্রমশ খারাপ হতে শুরু করেছে। কারণ যুক্তরাষ্ট্র্রসহ আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলো আফগানিস্তানের ৯ বিলিয়ন ডলার আটকে দিয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে তালেবান আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। কিন্তু কোনো দেশই এখনো তালেবানকে স্বীকৃতি দেয়নি।

গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে নরওয়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় বলেছে, তালেবানের প্রতিনিধি দলের বৈঠক ও সফর মানে তাদেরকে বৈধতা কিংবা স্বীকৃতি দেওয়া নয়।

আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী তালেবান কিভাবে সরকার পরিচালনা করে তা দেখার জন্য আফগানিস্তানে নজর রাখছে। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ পর্যন্ত শাসনামালে তালেবান ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে নরওয়েতে সোমবার তালেবান প্রতিনিধি দল যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইতালিসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসবে। আর মঙ্গলবার তারা নরওয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসবেন।

তালেবানের সঙ্গে নরওয়েতে আলোচনা শুরু

 অনলাইন ডেস্ক 
২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নরওয়ে
নরওয়েতে রওনা দেওয়ার আগে তালেবান প্রতিনিধি দল

আফগানিস্তানের নাগরিক সমাজের সদস্যদের সঙ্গে তালেবান প্রতিনিধি দল নরওয়ের রাজধানী অসলোতে আলোচনায় বসেছে। গত বছরের আগস্টে ক্ষমতা গ্রহণের পর তালেবান এই প্রথম কোনো ইউরোপীয় দেশে আলোচনায় অংশ নিচ্ছে। 

এএফপির খবরে বলা হয়েছে, অসলোতে আফগানিস্তানের নাগরিক সমাজের সঙ্গে তালেবানের আলোচনার মূল বিষয় মানবাধিকার। 

তালেবান প্রতিনিধিদলের এই সফরে রয়েছেন অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকী।

খবর থেকে জানা যায়, তালেবান প্রতিনিধি দলের এই সফর তিন দিনের। রোববার প্রথম দিনে তালেবান প্রতিনিধি দল নারী আন্দোলনকর্মী, সাংবাদিকসহ আফগানিস্তানের নাগরিক সমাজের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন।  

অসলোর উপকণ্ঠে সরিয়া মারিয়া হোটেলে রুদ্ধদ্বার এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।  

গত বছরের আগস্টে ক্ষমতা গ্রহণের পর আফগানিস্তানের অর্থনৈতিক ও মানবিক অবস্থা ক্রমশ খারাপ হতে শুরু করেছে। কারণ যুক্তরাষ্ট্র্রসহ আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলো আফগানিস্তানের ৯ বিলিয়ন ডলার আটকে দিয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে তালেবান আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। কিন্তু কোনো দেশই এখনো তালেবানকে স্বীকৃতি দেয়নি। 

গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে নরওয়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় বলেছে, তালেবানের প্রতিনিধি দলের বৈঠক ও সফর মানে তাদেরকে বৈধতা কিংবা স্বীকৃতি দেওয়া নয়। 

আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী তালেবান কিভাবে সরকার পরিচালনা করে তা দেখার জন্য আফগানিস্তানে নজর রাখছে। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ পর্যন্ত শাসনামালে তালেবান ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।  

এদিকে নরওয়েতে সোমবার তালেবান প্রতিনিধি দল যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইতালিসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসবে। আর মঙ্গলবার তারা নরওয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসবেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর