ভাইরাল হতে হত্যা করে ভিডিও ধারণ, ৩ কিশোর গ্রেফতার
jugantor
ভাইরাল হতে হত্যা করে ভিডিও ধারণ, ৩ কিশোর গ্রেফতার

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৪ জানুয়ারি ২০২২, ২১:০৮:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বিভিন্ন গ্যাংস্টার সিনেমা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে হত্যা এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোডের জন্য সেই ভিডিও ধারণের অভিযোগে তিনি কিশোরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভারতের রাজধানী দিল্লির জাহাঙ্গীরপুরে এই ঘটনা ঘটে বলে বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের বরাত দিয়ে খালিজ টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই তিন কিশোর ‘পুষ্পা’ কিংবা ‘ভাউকাল’ এর মতো গ্যাংস্টার সিনেমা দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে ছুরিকাঘাতে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। এমনকি তারা ওই হত্যাকাণ্ডের ভিডিও ধারণও করেছে। তাদের ইচ্ছা ছিল ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করে রাতারাতি বিখ্যাত হওয়ার।

পুলিশ জানায়, জাহাঙ্গীরপুরের কে ব্লকে এই ঘটনা ঘটে। হতভাগ্য ব্যক্তির পথ আটকে দুজন তাকে ছুরিকাঘাত করে। অন্যজন মোবাইলে সেই ঘটনা ভিডিও করে।

ওই ব্যক্তিকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

এদিকে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ওই তিন কিশোরকে শনাক্ত করা হয়। গ্রেফতার এড়াতে তারা ক্রমাগত নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করছিল। তবে পুলিশ শেষপর্যন্ত তাদের ধরতে সক্ষম হয়।

ভিডিও ধারণ করা ওই মোবাইল এবং হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে পুলিশের দ্রুত পদক্ষেপের কারণে ওই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করতে পারেনি তারা।

ভাইরাল হতে হত্যা করে ভিডিও ধারণ, ৩ কিশোর গ্রেফতার

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৪ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিভিন্ন গ্যাংস্টার সিনেমা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে হত্যা এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোডের জন্য সেই ভিডিও ধারণের অভিযোগে তিনি কিশোরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভারতের রাজধানী দিল্লির জাহাঙ্গীরপুরে এই ঘটনা ঘটে বলে বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের বরাত দিয়ে খালিজ টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,  ওই তিন কিশোর ‘পুষ্পা’ কিংবা ‘ভাউকাল’ এর মতো গ্যাংস্টার সিনেমা দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে ছুরিকাঘাতে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।  এমনকি তারা ওই হত্যাকাণ্ডের ভিডিও ধারণও করেছে। তাদের ইচ্ছা ছিল ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করে রাতারাতি বিখ্যাত হওয়ার।

পুলিশ জানায়, জাহাঙ্গীরপুরের কে ব্লকে এই ঘটনা ঘটে। হতভাগ্য ব্যক্তির পথ আটকে দুজন তাকে ছুরিকাঘাত করে। অন্যজন মোবাইলে সেই ঘটনা ভিডিও করে। 

ওই ব্যক্তিকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। 

এদিকে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ওই তিন কিশোরকে শনাক্ত করা হয়। গ্রেফতার এড়াতে তারা ক্রমাগত নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করছিল। তবে পুলিশ শেষপর্যন্ত তাদের ধরতে সক্ষম হয়। 

ভিডিও ধারণ করা ওই মোবাইল এবং হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে পুলিশের দ্রুত পদক্ষেপের কারণে ওই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করতে পারেনি তারা। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর