আকাশের ঠিকানা জানাতে পারলে ১ কোটি টাকা পুরষ্কার! 
jugantor
আকাশের ঠিকানা জানাতে পারলে ১ কোটি টাকা পুরষ্কার! 

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ জানুয়ারি ২০২২, ২০:৫২:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

মাওবাদী নেতা অসীম মণ্ডল ওরফে আকাশের খোঁজ দিলে এক কোটি টাকা পুরষ্কার দেবে ঝাড়খণ্ড পুলিশ। মঙ্গলবার ঝাড়খণ্ড পুলিশের একটি দল চন্দ্রকোনায় এসে অসীমের বাড়ীতে এমন নোটিস দিয়ে গেছে।

ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, অসীমের বাড়ী পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনার ফুলচক গ্রামে। মঙ্গলবার সেই ফুলচক গ্রামে যানঝাড়খণ্ডের জামশেদপুর জেলার পটমদা থানার দুই পুলিশ কর্মকর্তা। তারা আদালতের নির্দেশে নোটিস দেন অসীমের বাড়ীতে।

আকাশের বাড়ী ছাড়াও গ্রামের জনবহুল এলাকাতেও ওই নোটিস সাঁটিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাতে লেখা, এক মাসের মধ্যে আকাশ আত্মসমর্পণ না করলে তার সম্পত্তি ক্রোক করা হবে। আকাশের খোঁজ দিতে পারলে ১ কোটি টাকা পুরস্কার দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে ওই নোটিসে।

খবরে বলা হয়েছে, ঝাড়খণ্ড ও পশ্চিমবঙ্গে একাধিক নাশকতামূলক ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ অসীমের বিরুদ্ধে।

অসীম ওরফে আকাশ ৮০-র দশকে মেধাবী ছাত্র ছিলেন । তিনি গড়বেতা কলেজের ছাত্র ছিলেন। সেই সময় থেকেই বাম সংগঠনের সঙ্গে তার যোগাযোগ গড়ে ওঠে। এক সময় জনযুদ্ধ গোষ্ঠীর সঙ্গে তার যোগাযোগ তৈরি হয়। লেখাপড়া মাঝপথে থামিয়ে হঠাৎ নিরুদ্দেশ হয়ে যান।

নব্বইয়ের দশকে আবার তিনি ফিরে আসেন ফুলচকে নিজের বাড়ীতে। ধাপে ধাপে ফুলচক গ্রামের আকাশ মাওবাদীদের প্রথম সারির এক জন নেতা হয়ে ওঠেন। সংগঠনের নেত্রী কল্পনা মাইতি ওরফে অনুকে তিনি বিয়ে করেছেন বলে জানা যায়।

আগামীবুধবার ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস। এই দিবসে কোনো নাশকতা ঘটতে পারে আশঙ্কা করে মেদিনীপুর, খড়্গপুরের মতো গুরুত্বপূর্ণ শহরের পাশাপাশি জঙ্গলমহল এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। এর মধ্যে ঝাড়খণ্ড পুলিশ আকাশকে ধরিয়ে দিতে পুরষ্কার ঘোষণা করল।

আকাশের ঠিকানা জানাতে পারলে ১ কোটি টাকা পুরষ্কার! 

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ জানুয়ারি ২০২২, ০৮:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মাওবাদী নেতা অসীম মণ্ডল ওরফে আকাশের খোঁজ দিলে এক কোটি টাকা পুরষ্কার দেবে ঝাড়খণ্ড পুলিশ। মঙ্গলবার ঝাড়খণ্ড পুলিশের একটি দল চন্দ্রকোনায় এসে অসীমের বাড়ীতে এমন নোটিস দিয়ে গেছে।

ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, অসীমের বাড়ী পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনার ফুলচক গ্রামে। মঙ্গলবার সেই ফুলচক গ্রামে যান ঝাড়খণ্ডের জামশেদপুর জেলার পটমদা থানার দুই পুলিশ কর্মকর্তা। তারা আদালতের নির্দেশে নোটিস দেন অসীমের বাড়ীতে।

আকাশের বাড়ী ছাড়াও গ্রামের জনবহুল এলাকাতেও ওই নোটিস সাঁটিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাতে লেখা, এক মাসের মধ্যে আকাশ আত্মসমর্পণ না করলে তার সম্পত্তি ক্রোক করা হবে। আকাশের খোঁজ দিতে পারলে ১ কোটি টাকা পুরস্কার দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে ওই নোটিসে।

খবরে বলা হয়েছে,  ঝাড়খণ্ড ও পশ্চিমবঙ্গে একাধিক নাশকতামূলক ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ অসীমের বিরুদ্ধে। 

অসীম ওরফে আকাশ ৮০-র দশকে মেধাবী ছাত্র ছিলেন । তিনি গড়বেতা কলেজের ছাত্র ছিলেন। সেই সময় থেকেই বাম সংগঠনের সঙ্গে তার যোগাযোগ গড়ে ওঠে। এক সময় জনযুদ্ধ গোষ্ঠীর সঙ্গে তার যোগাযোগ তৈরি হয়। লেখাপড়া মাঝপথে থামিয়ে হঠাৎ নিরুদ্দেশ হয়ে যান।

নব্বইয়ের দশকে আবার তিনি ফিরে আসেন ফুলচকে নিজের বাড়ীতে। ধাপে ধাপে ফুলচক গ্রামের আকাশ মাওবাদীদের প্রথম সারির এক জন নেতা হয়ে ওঠেন। সংগঠনের নেত্রী কল্পনা মাইতি ওরফে অনুকে তিনি বিয়ে করেছেন বলে জানা যায়।

আগামী বুধবার ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস। এই দিবসে কোনো নাশকতা ঘটতে পারে আশঙ্কা করে মেদিনীপুর, খড়্গপুরের মতো গুরুত্বপূর্ণ শহরের পাশাপাশি জঙ্গলমহল এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। এর মধ্যে ঝাড়খণ্ড পুলিশ আকাশকে ধরিয়ে দিতে পুরষ্কার ঘোষণা করল। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন