এলন মাস্কের মহাকাশ রকেটের সঙ্গে চাঁদের সংঘর্ষের আশঙ্কা বিজ্ঞানীর
jugantor
এলন মাস্কের মহাকাশ রকেটের সঙ্গে চাঁদের সংঘর্ষের আশঙ্কা বিজ্ঞানীর

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৩৫:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

মহাকাশে পরিত্যাক্ত অবস্থায় থাকা একটি রকেটের সঙ্গে চাঁদের সংঘর্ষ হতে পারে বলে জানিয়েছেন গ্রে নামের একজন মহাকাশ বিজ্ঞানী।

২০১৫ সালে বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তি এলন মাস্কের স্পেসএক্স রকেটটি মহাকাশের কক্ষপথে পাঠায়।সেখানে মিশন শেষ হওয়ার পর এটিকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ফেলে আসা হয়।

আর এই রকেটটির ৪ টন ওজনের বিশাল একটি টুকরো এখন চাঁদের প্রায় কাছাকাছি চলে এসেছে।এখন আশঙ্কা করা হচ্ছে ৪ মার্চ চাঁদের সঙ্গে এটির সংঘর্ষ হবে।

সংঘর্ষের সময় রকেটটির গতিবেগ থাকবে প্রতি ঘণ্টায় ৯ হাজার কিলোমিটার।এটি আঘাত করবে চাঁদের অন্ধকার দিকটিতে।

বিজ্ঞানী গ্রে মহাকাশে পরিত্যাক্ত অবস্থায় থাকা এ ধরনের টুকরোগুলোর বিষয়ে খোঁজ খবর রাখেন। তিনিই প্রথম খুঁজে বের করেন বিষয়টি।

তবে এ সংঘর্ষে তেমন কোনো প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছন আরেক মহাকাশ বিজ্ঞানী জোনাথান ম্যাকডোয়েল।

এ ব্যপারে জোনাথান ম্যাকডোয়েল বলেন, ৬০, ৭০ ও ৮০ দশকেও রকেটের অনেক টুকরো মহাকাশে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ফেলে আসা হয়েছিল।এগুলোর মধ্যেও হয়ত কয়েকটির সঙ্গে সংঘর্ষ হয়েছিল। কিন্তু কেউ তা টের পায়নি। এবারো এমন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলেও এতে বড় কোনো প্রভাব পড়বে না।

সূত্র: আল জাজিরা

এলন মাস্কের মহাকাশ রকেটের সঙ্গে চাঁদের সংঘর্ষের আশঙ্কা বিজ্ঞানীর

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ জানুয়ারি ২০২২, ০৬:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মহাকাশে পরিত্যাক্ত অবস্থায় থাকা একটি রকেটের সঙ্গে চাঁদের সংঘর্ষ হতে পারে বলে জানিয়েছেন গ্রে নামের একজন মহাকাশ বিজ্ঞানী।

২০১৫ সালে বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তি এলন মাস্কের স্পেসএক্স রকেটটি মহাকাশের কক্ষপথে পাঠায়।সেখানে মিশন শেষ হওয়ার পর এটিকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ফেলে আসা হয়।

আর এই রকেটটির ৪ টন ওজনের বিশাল একটি টুকরো এখন চাঁদের প্রায় কাছাকাছি চলে এসেছে।এখন আশঙ্কা করা হচ্ছে ৪ মার্চ চাঁদের সঙ্গে এটির সংঘর্ষ হবে।

সংঘর্ষের সময় রকেটটির গতিবেগ থাকবে প্রতি ঘণ্টায় ৯ হাজার কিলোমিটার।এটি আঘাত করবে চাঁদের অন্ধকার দিকটিতে।   

বিজ্ঞানী গ্রে মহাকাশে পরিত্যাক্ত অবস্থায় থাকা এ ধরনের টুকরোগুলোর বিষয়ে খোঁজ খবর রাখেন। তিনিই প্রথম খুঁজে বের করেন বিষয়টি।

তবে এ সংঘর্ষে তেমন কোনো প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছন আরেক মহাকাশ বিজ্ঞানী জোনাথান ম্যাকডোয়েল।

এ ব্যপারে জোনাথান ম্যাকডোয়েল বলেন, ৬০, ৭০ ও ৮০ দশকেও রকেটের অনেক টুকরো মহাকাশে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ফেলে আসা হয়েছিল।এগুলোর মধ্যেও হয়ত কয়েকটির সঙ্গে সংঘর্ষ হয়েছিল। কিন্তু কেউ তা টের পায়নি। এবারো এমন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলেও এতে বড় কোনো প্রভাব পড়বে না।

সূত্র: আল জাজিরা

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন