সামনে আরও খারাপ সময় আসছে: শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী
jugantor
সামনে আরও খারাপ সময় আসছে: শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ মে ২০২২, ২১:২৭:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকার নতুন প্রধানমন্ত্রী রানিল বিক্রমাসিংহে সোমবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন। মাহিন্দা রাজাপাকসে বাধ্য হয়ে ক্ষমতা ছাড়ার পর বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন বিক্রমাসিংহে।

জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে দেশটির জনগণকে কোনো আশার কথা শোনাতে পারেননি বিক্রমাসিংহে। তিনি জানিয়েছেন, শ্রীলংকায় আর মাত্র একদিনের পেট্রোল আছে।

নতুন প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন, তিনি সত্য লুকাবেন না। সামনে শ্রীলংকার জনগণের জন্য আরও খারাপ সময় অপেক্ষা করছে।

এ ব্যাপারে নতুন প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের পেট্রোল শেষ হয়ে গেছে। এ মুহূর্তে আমাদের মাত্র একদিনের পেট্রোল মজুদ আছে।

তিনি আরও জানিয়েছেন, ডলারের অভাবে পেট্রোল নিতেও পারছেন না। তিনটি জাহাজ শ্রীলংকার উপকুলে দাঁড়িয়ে আছে। ডলার পেলে সেগুলো পেট্রোল দেবে। কিন্তু ডলার না থাকায় সেগুলো খালাস করতে পারছেন না।

সামনে আরও খারাপ সময় আসছে সে বিষয়টি উল্লেখ করে বিক্রমাসিংহে বলেছেন, আমাদের জীবনে সামনের কয়েকটি মাস হবে সবচেয়ে খারাপ। আমার সত্য লুকানোর কোনো ইচ্ছা নেই এবং জনগণের সঙ্গেমিথ্যা বলার কোনো ইচ্ছা নেই।

তবে তিনি জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আপনারা সামনের কয়েকটি মাস ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করুন।

শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন দেশটির ১৪ লাখ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতনও দিতে পারছে না সরকার। আর এখন তাদের বেতন দিতে শেষ উপায় হিসেবে টাকা ছাপানোর অনুমোদন দিয়েছেন তিনি।

আমার নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে, আমি টাকা ছাপানোর অনুমতি দিতে বাধ্য হয়েছি সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন দিতে এবং প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য পরিশোধ করতে। বলেন বিক্রমাসিংহে।

এদিকে ১৯৪৮ সালে ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীনতা অর্জন করার পর বর্তমানে সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক মন্দা চলছে শ্রীলংকায়।

সূত্র: এনডিটিভি

সামনে আরও খারাপ সময় আসছে: শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ মে ২০২২, ০৯:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকার নতুন প্রধানমন্ত্রী রানিল বিক্রমাসিংহে সোমবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন। মাহিন্দা রাজাপাকসে বাধ্য হয়ে ক্ষমতা ছাড়ার পর বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন বিক্রমাসিংহে। 

জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে দেশটির জনগণকে কোনো আশার কথা শোনাতে পারেননি বিক্রমাসিংহে। তিনি জানিয়েছেন, শ্রীলংকায় আর মাত্র একদিনের পেট্রোল আছে। 

নতুন প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন, তিনি সত্য লুকাবেন না। সামনে শ্রীলংকার জনগণের জন্য আরও খারাপ সময় অপেক্ষা করছে। 

এ ব্যাপারে নতুন প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের পেট্রোল শেষ হয়ে গেছে। এ মুহূর্তে আমাদের মাত্র একদিনের পেট্রোল মজুদ আছে।

তিনি আরও জানিয়েছেন, ডলারের অভাবে পেট্রোল নিতেও পারছেন না। তিনটি জাহাজ শ্রীলংকার উপকুলে দাঁড়িয়ে আছে। ডলার পেলে সেগুলো পেট্রোল দেবে। কিন্তু ডলার না থাকায় সেগুলো খালাস করতে পারছেন না।

সামনে আরও খারাপ সময় আসছে সে বিষয়টি উল্লেখ করে বিক্রমাসিংহে বলেছেন, আমাদের জীবনে সামনের কয়েকটি মাস হবে সবচেয়ে খারাপ। আমার সত্য লুকানোর কোনো ইচ্ছা নেই এবং জনগণের সঙ্গে মিথ্যা বলার কোনো ইচ্ছা নেই।

তবে তিনি জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আপনারা সামনের কয়েকটি মাস ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করুন।

শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন দেশটির ১৪ লাখ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতনও দিতে পারছে না সরকার। আর এখন তাদের বেতন দিতে শেষ উপায় হিসেবে টাকা ছাপানোর অনুমোদন দিয়েছেন তিনি। 

আমার নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে, আমি টাকা ছাপানোর অনুমতি দিতে বাধ্য হয়েছি সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন দিতে এবং প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য পরিশোধ করতে। বলেন বিক্রমাসিংহে।

এদিকে ১৯৪৮ সালে ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীনতা অর্জন করার পর বর্তমানে সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক মন্দা চলছে শ্রীলংকায়।

সূত্র: এনডিটিভি

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন