পোল্যান্ড সীমান্তে সামরিক ঘাঁটিতে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা
jugantor
পোল্যান্ড সীমান্তে সামরিক ঘাঁটিতে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ মে ২০২২, ০৯:২৩:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

পোল্যান্ড সীমান্তে সামরিক ঘাঁটিতে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

পোল্যান্ড সীমান্ত থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার (৯ মাইল) দূরে পশ্চিম ইউক্রেনের সামরিক ঘাঁটিতে রুশ বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে বলে লিভিভ আঞ্চলিক সামরিক প্রশাসনের প্রধান ম্যাকসিম কোজিটস্কির জানিয়েছেন।

কোজিটস্কিতে গভীর রাতে এ হামলার খবর টেলিগ্রাম পোস্টে মঙ্গলবার ভোরে জানানো হয়।

সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে সেন্ট্রাল লিভিভে টানা বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। শহরে কিছুক্ষণ পর পরই বিমান হামলার সাইরেন বাজানো হয়। শহরটির উত্তর-পশ্চিমে আকাশ প্রতিরক্ষা আলো জ্বলতে দেখা গেছে।

স্থানীয় সময় সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১টায় কোজিটস্কিতে প্রথম হামলার সাইরেন বাজে আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থায়।

লিভিভের মেয়র আন্দ্রি সাদোভিই তার ফেসবুক পোস্টে জানান, তিনি নিজেই লিভিভে সম্ভাব্য ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিষয়ে কোনো তথ্য নিশ্চিত করতে পারেননি।

যুদ্ধ শুরুর পর থেকে অন্তত তিনবার ইয়াভোরিভকে হামলার লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। ১৩ মার্চ প্রথম হামলায় ৩০ জনের বেশি মানুষ নিহত হন।

লিভিভের একটি বিমানের যন্ত্রাংশ তৈরির কারখানা, একটি জ্বালানি ডিপো এবং বেশ কয়েকটি বৈদ্যুতিক সাবস্টেশনে রুশ বাহিনী হামলা চালিয়েছে।

পোল্যান্ড সীমান্তে সামরিক ঘাঁটিতে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ মে ২০২২, ০৯:২৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পোল্যান্ড সীমান্তে সামরিক ঘাঁটিতে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা
ছবি: সংগৃহীত

পোল্যান্ড সীমান্ত থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার (৯ মাইল) দূরে পশ্চিম ইউক্রেনের সামরিক ঘাঁটিতে রুশ বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে বলে লিভিভ আঞ্চলিক সামরিক প্রশাসনের প্রধান ম্যাকসিম কোজিটস্কির জানিয়েছেন।

কোজিটস্কিতে গভীর রাতে এ হামলার খবর টেলিগ্রাম পোস্টে মঙ্গলবার ভোরে জানানো হয়।

সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে সেন্ট্রাল লিভিভে টানা বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। শহরে কিছুক্ষণ পর পরই বিমান হামলার সাইরেন বাজানো হয়। শহরটির উত্তর-পশ্চিমে আকাশ প্রতিরক্ষা আলো জ্বলতে দেখা গেছে।

স্থানীয় সময় সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১টায় কোজিটস্কিতে প্রথম হামলার সাইরেন বাজে আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থায়। 

লিভিভের মেয়র আন্দ্রি সাদোভিই তার ফেসবুক পোস্টে জানান, তিনি নিজেই লিভিভে সম্ভাব্য ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিষয়ে কোনো তথ্য নিশ্চিত করতে পারেননি।

যুদ্ধ শুরুর পর থেকে অন্তত তিনবার ইয়াভোরিভকে হামলার লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। ১৩ মার্চ প্রথম হামলায় ৩০ জনের বেশি মানুষ নিহত হন।

লিভিভের একটি বিমানের যন্ত্রাংশ তৈরির কারখানা, একটি জ্বালানি ডিপো এবং বেশ কয়েকটি বৈদ্যুতিক সাবস্টেশনে রুশ বাহিনী হামলা চালিয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা