ওয়ানএমডিবির তহবিল উদ্ধারে মালয়েশিয়া সিঙ্গাপুর জোট

  যুগান্তর ডেস্ক ০১ জুন ২০১৮, ১৩:৪১ | অনলাইন সংস্করণ

নাজিব রাজাক
ছবি: এএফপি

রাষ্ট্রীয় উন্নয়ন তহবিল ওয়ানএমডিবির পাচার হওয়া অর্থ ফেরত আনতে একসঙ্গে কাজ করছে মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর।

ওয়ানএমডিবি তহবিল কেলেঙ্কারির সঙ্গে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে মনে করা হয়। এ নিয়ে তদন্ত প্রতিবেশী দেশ সিঙ্গাপুরের কর্মকর্তাদেরকে নিয়ে শুরু করেছে মালয়েশিয়ার টাস্কফোর্স।

নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর মাহাথির মোহাম্মদ আশা প্রকাশ করেন, পাচার হওয়া বেশিরভাগ অর্থ ফেরত আনা যাবে। ২০০৯ সালে মালয়েশিয়ার অর্থনীতির উন্নয়নে ওয়ানএমডিবি তহবিল গঠন করা হয়েছিল।

এতে ৩০০ কোটি ডলারের বেশি অর্থ ছিল। এ তহবিলের মাধ্যমে কুয়ালালামপুরকে বিশ্ব অর্থনীতির কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করার পাশাপাশি কৌশলগত বিনিয়োগের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতি গতিশীল করার পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

ওই তহবিলের অর্থ আত্মসাতের মাধ্যমে মালয়েশীয়দের প্রতারিত করা হচ্ছে, ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষ তাদের কাছে এ সংক্রান্ত তথ্য প্রমাণ থাকার কথা জানিয়ে অন্তত ১০০ কোটি ডলারের সম্পদ জব্দ করার উদ্যোগ নেয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল কোর্টে এ সংক্রান্ত একটি মামলাও হয়। মার্কিন বিচার বিভাগের করা ওই মামলার কাগজপত্রে মালয়েশিয়ার সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের নাম উল্লেখ না করে মালয়েশিয়া অফিসিয়াল ওয়ান বলা হয়।

ততদিনে অর্থ কেলেংকারিতে মালয়েশিয়াও নাজিবের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়ে গেছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ওয়ানএমডিবি তহবিল থেকে ৭০ কোটি মার্কিন ডলারের বেশি অর্থ নিজের পকেটে পুরেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল ওই সময় এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। যদিও নাজিব শুরু থেকেই সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

রাজনীতি থেকে দীর্ঘ ১৫ বছরের বিরতির পর ৯২ বছর বয়সে আবারও দেশের হাল ধরা মাহাথির বলেন, ওয়ানএমডিবি তহবিলের বেশিরভাগ অর্থ আমরা ফেরত আনতে সক্ষম হব বলেই আমার বিশ্বাস। নাজিবের হয়ে কাজ করা সরকারি সংস্থাগুলোয় পরিবর্তন আসবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মাহাথির বলেন, নির্দিষ্ট কয়েকজনের অবশ্যই পতন হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter