ক্ষমা চাইলেন সেই রুশ সেনা
jugantor
ক্ষমা চাইলেন সেই রুশ সেনা

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৯ মে ২০২২, ২২:৪৮:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর প্রথমবারের মতো যুদ্ধাপরাধের জন্য বিচারের মুখোমুখি হওয়া রুশ সেনা নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন।
বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের একটি আদালতে তিনি ক্ষমা চান বলে বার্তা সংস্থা এএফপি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছেন।

উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সুমি অঞ্চলের চুপাখিভকা গ্রামে একটি গাড়ির জানালা দিয়ে ৬২ বছর বয়সি এক ব্যক্তিকে মাথায় গুলি করার অভিযোগ তোলা হয় ২১ বছর বয়সী রুশ সার্জেন্ট ভাদিম শিশিমারিনের বিরুদ্ধে।

ভাদিম শিশিমারিন আদালতে দাঁড়িয়ে বলেন নিহত ব্যক্তির স্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, আমি জানি আপনি আমাকে ক্ষমা করতে পারবেন না, তবুও আমি আপনার কাছে ক্ষমা চাইছি।

এর আগে বুধবার ভাদিম শিশিমারিন আদালতে তার বিরুদ্ধে আনা নিরস্ত্র বেসামরিক ওই ব্যক্তিকে হত্যার দায় স্বীকার করেছিলেন।

অপরাধ প্রমাণিত হলে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।

এদিকে, ইউক্রেনের প্রসিকিউটর জেনারেল ইরিনা ভেনেডিক্টোভা জানিয়েছিলেন, তার কার্যালয় ৪১ জন রাশিয়ান সৈন্যের বিরুদ্ধে বেসামরিক স্থাপনায় বোমা হামলা, ধর্ষণ ও লুটপাটের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

অবশ্য সন্দেহভাজন সেনাদের মধ্যে কতজন ইউক্রেনে আটক রয়েছেন আর কতজনকে তাদের অনুপস্থিতিতেই বিচারের মুখোমুখি করা হবে তা স্পষ্ট করা হয়নি।

ক্ষমা চাইলেন সেই রুশ সেনা

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৯ মে ২০২২, ১০:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর প্রথমবারের মতো যুদ্ধাপরাধের জন্য বিচারের মুখোমুখি হওয়া রুশ সেনা নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। 
বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের একটি আদালতে তিনি ক্ষমা চান বলে বার্তা সংস্থা এএফপি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছেন। 

উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সুমি অঞ্চলের চুপাখিভকা গ্রামে একটি গাড়ির জানালা দিয়ে ৬২ বছর বয়সি এক ব্যক্তিকে মাথায় গুলি করার অভিযোগ তোলা হয় ২১ বছর বয়সী রুশ সার্জেন্ট ভাদিম শিশিমারিনের বিরুদ্ধে।

ভাদিম শিশিমারিন আদালতে দাঁড়িয়ে বলেন নিহত ব্যক্তির স্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, আমি জানি আপনি আমাকে ক্ষমা করতে পারবেন না, তবুও আমি আপনার কাছে ক্ষমা চাইছি। 

এর আগে বুধবার ভাদিম শিশিমারিন আদালতে তার বিরুদ্ধে আনা নিরস্ত্র বেসামরিক ওই ব্যক্তিকে হত্যার দায় স্বীকার করেছিলেন। 

অপরাধ প্রমাণিত হলে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে। 

এদিকে, ইউক্রেনের প্রসিকিউটর জেনারেল ইরিনা ভেনেডিক্টোভা জানিয়েছিলেন, তার কার্যালয় ৪১ জন রাশিয়ান সৈন্যের বিরুদ্ধে বেসামরিক স্থাপনায় বোমা হামলা, ধর্ষণ ও লুটপাটের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। 

অবশ্য সন্দেহভাজন সেনাদের মধ্যে কতজন ইউক্রেনে আটক রয়েছেন আর কতজনকে তাদের অনুপস্থিতিতেই বিচারের মুখোমুখি করা হবে তা স্পষ্ট করা হয়নি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা