সেই পদক্ষেপের পর বাইডেন, ব্লিঙ্কেনসহ ৯৬৩ মার্কিনির ওপর রাশিয়ার তোপ
jugantor
সেই পদক্ষেপের পর বাইডেন, ব্লিঙ্কেনসহ ৯৬৩ মার্কিনির ওপর রাশিয়ার তোপ

  যুগান্তর ডেস্ক  

২১ মে ২০২২, ১৯:১৮:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এবং সিআইএ প্রধান উইলিয়াম বার্নসসহ ৯৬৩ মার্কিন নাগরিকদের রাশিয়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মস্কো। বার্তা সংস্থা রয়টার্স শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় সফররত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সিউলে বসেই রুশ আগ্রাসন থেকে বাঁচাতে ইউক্রেনের জন্য চার হাজার কোটি ডলারের সহায়তা প্যাকেজে স্বাক্ষরের পর শনিবারই এই নিষেধাজ্ঞার খবর সামনে এলো।

এই ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার শুধুমাত্র প্রতীকী প্রভাব থাকলেও ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেন আগ্রাসন শুরুর পর রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের অবনতিই প্রতিফলন ঘটেছে।

এর আগে চলতি বছরের এপ্রিলের মাঝামাঝি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস, সাবেক প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এবং স্কটল্যান্ডের প্রথম মন্ত্রী নিকোলা স্টার্জনসহ ১৩ জন ব্রিটিশ সরকারের সদস্য এবং রাজনীতিবিদের রাশিয়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে মস্কো।

সে সময় রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, ব্রিটিশ সরকারের অভূতপূর্ব শত্রুতামূলক পদক্ষেপের পরিপ্রেক্ষিতে, বিশেষ করে জেষ্ঠ্য রাশিয়ান কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার জন্য এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। শিগগিরই নিষেধাজ্ঞার তালিকা আরও বাড়ানো হবে বলেও বিবৃতিতে বলা হয়।

সেই পদক্ষেপের পর বাইডেন, ব্লিঙ্কেনসহ ৯৬৩ মার্কিনির ওপর রাশিয়ার তোপ

 যুগান্তর ডেস্ক 
২১ মে ২০২২, ০৭:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এবং সিআইএ প্রধান উইলিয়াম বার্নসসহ ৯৬৩ মার্কিন নাগরিকদের রাশিয়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মস্কো। বার্তা সংস্থা রয়টার্স শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় সফররত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সিউলে বসেই রুশ আগ্রাসন থেকে বাঁচাতে ইউক্রেনের জন্য চার হাজার কোটি ডলারের সহায়তা প্যাকেজে স্বাক্ষরের পর শনিবারই এই নিষেধাজ্ঞার খবর সামনে এলো। 

এই ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার শুধুমাত্র প্রতীকী প্রভাব থাকলেও ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেন আগ্রাসন শুরুর পর রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের অবনতিই প্রতিফলন ঘটেছে। 

এর আগে চলতি বছরের এপ্রিলের মাঝামাঝি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস, সাবেক প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এবং স্কটল্যান্ডের প্রথম মন্ত্রী নিকোলা স্টার্জনসহ ১৩ জন ব্রিটিশ সরকারের সদস্য এবং রাজনীতিবিদের রাশিয়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে মস্কো।

সে সময় রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, ব্রিটিশ সরকারের অভূতপূর্ব শত্রুতামূলক পদক্ষেপের পরিপ্রেক্ষিতে, বিশেষ করে জেষ্ঠ্য রাশিয়ান কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার জন্য এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। শিগগিরই নিষেধাজ্ঞার তালিকা আরও বাড়ানো হবে বলেও বিবৃতিতে বলা হয়।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা