দোনবাসের পরিস্থিতি অত্যন্ত কঠিন: জেলেনস্কি
jugantor
দোনবাসের পরিস্থিতি অত্যন্ত কঠিন: জেলেনস্কি

  অনলাইন ডেস্ক  

২২ মে ২০২২, ০৯:৩৮:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

দোনবাসের পরিস্থিতি অত্যন্ত কঠিন। কারণ রাশিয়ান সেনাবাহিনী গত কয়েক দিন ধরে স্লোভিয়ানস্ক ও সেভেরোদোনেৎস্কে হামলার পরিমাণ বাড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি।

শনিবার রাতে টেলিভিশনের এক ভাষণে তিনি এ কথা বলেন। খবর সিএনএনের।

তিনি বলেন, ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনী এই আক্রমণকে প্রতিহত করছে। প্রতিদিন রাশিয়ার এই আক্রমণাত্মক পরিকল্পনা থেকে দূরে সরানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, তাদের ব্যাহত করছেন ইউক্রেন যোদ্ধারা। তার ফল হলো একটিই— সেই কাঙ্ক্ষিত দিনটির জন্য আমরা সবাই অপেক্ষা করছি। যুদ্ধ করছি, বিজয় অর্জন করার জন্য।

জেলেনস্কি বলেন, রুশ বাহিনী খারকিভ ও সুমি অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাচ্ছে। এ ছাড়া দোনবাসে সম্ভাব্য সব জায়গায় হামলা চালাচ্ছে। তবে রাশিয়াকে কোনে বিজয় অর্জন করতে দেব না।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এর পর আজ পর্যন্ত টানা ৮৭ দিনের মতো চলছে দেশ দুটির সংঘাত। এতে দুপক্ষের বহু মানুষের হতাহতের খবর পাওয়া যাচ্ছে। তবে যুদ্ধ বন্ধে এখন পর্যন্ত কোনো লক্ষণ নেই। উল্টো পূর্ব ইউক্রেনে দেশ দুটির সংঘাত ক্রমশ বেড়েছে। এই সংঘাতে ইউক্রেন থেকে প্রায় ৬০ লাখ মানুষ দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন।

দোনবাসের পরিস্থিতি অত্যন্ত কঠিন: জেলেনস্কি

 অনলাইন ডেস্ক 
২২ মে ২০২২, ০৯:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দোনবাসের পরিস্থিতি অত্যন্ত কঠিন। কারণ রাশিয়ান সেনাবাহিনী গত কয়েক দিন ধরে স্লোভিয়ানস্ক ও সেভেরোদোনেৎস্কে হামলার পরিমাণ বাড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি।

শনিবার রাতে টেলিভিশনের এক ভাষণে তিনি এ কথা বলেন। খবর সিএনএনের।

তিনি বলেন, ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনী এই আক্রমণকে প্রতিহত করছে। প্রতিদিন রাশিয়ার এই আক্রমণাত্মক পরিকল্পনা থেকে দূরে সরানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, তাদের ব্যাহত করছেন ইউক্রেন যোদ্ধারা। তার ফল হলো একটিই— সেই কাঙ্ক্ষিত দিনটির জন্য আমরা সবাই অপেক্ষা করছি। যুদ্ধ করছি, বিজয় অর্জন করার জন্য।

জেলেনস্কি বলেন, রুশ বাহিনী খারকিভ ও সুমি অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাচ্ছে। এ ছাড়া দোনবাসে সম্ভাব্য সব জায়গায় হামলা চালাচ্ছে। তবে রাশিয়াকে কোনে বিজয় অর্জন করতে দেব না।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এর পর আজ পর্যন্ত টানা ৮৭ দিনের মতো চলছে দেশ দুটির সংঘাত। এতে দুপক্ষের বহু মানুষের হতাহতের খবর পাওয়া যাচ্ছে। তবে যুদ্ধ বন্ধে এখন পর্যন্ত কোনো লক্ষণ নেই। উল্টো পূর্ব ইউক্রেনে দেশ দুটির সংঘাত ক্রমশ বেড়েছে। এই সংঘাতে ইউক্রেন থেকে প্রায় ৬০ লাখ মানুষ দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা