যুদ্ধের ‘মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার অস্ত্র’ পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র
jugantor
যুদ্ধের ‘মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার অস্ত্র’ পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ মে ২০২২, ২২:৩১:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন শুক্রবার বলেছেন, রাশিয়াকে ঠেকাতে এখন ইউক্রেনের প্রয়োজন দূরপাল্লার মাল্টিপল রকেট লঞ্চার (এমএলআরএস)। তাদের এ অস্ত্র দেওয়া প্রয়োজন।

তবে যুক্তরাজ্য এ অস্ত্র পাঠাবে কিনা সেটি তিনি জানাননি।

দোনবাসে রাশিয়া অত্যাধিক হামলা চালানো শুরু করার পর ও বেশ কয়েকটি অঞ্চল দখল করার পর বরিস জনসন এমন কথা বললেন।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং অন্যান্য ন্যাটো দেশগুলোর কাছ থেকে শক্তিশালী এম২৭০ মাল্টিপল রকেট লঞ্চার গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চেয়ে আসছে ইউক্রেন।

তবে পশ্চিমারা এটি দিতে রাজি হয়নি। এমনকি যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনকে সরাসরি ‘না’ বলে দিয়েছিল।

কিন্তু বরিস জনসনের কথায় এখন বোঝা যাচ্ছে পশ্চিমারা তাদের নীতিতে পরিবর্তন আনছেন এবং শক্তিশালী এ অস্ত্রটি পাঠানোর পক্ষে আছেন তারা।

এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, ইউক্রেনকে এম২৭০ রকেট লঞ্চার দেওয়ার ঘোষণা আগামী সপ্তাহেই দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

আর এ অস্ত্রটি ইউক্রেনে গেলে পাল্টে যেতে পারে যুদ্ধের মোড়।

দোনবাসে বর্তমানে রাশিয়া যেভাবে একক আধিপত্য বিস্তার করে আগ্রাসন চালাচ্ছে সেটি সম্ভব হবে না।

এম২৭০ রকেট লঞ্চারটি অন্যান্য রকেট লঞ্চার থেকে অনেক আলাদা। এটি ১৬৫ কিলোমিটার দূরে রকেট ছুড়তে পারে।

এই এম২৭০ রকেট লঞ্চার থেকে এক মিনিটে ১২টি রকেট ছোড়া যায়।

এদিকে ইউক্রেন যুদ্ধের শুরুতে ন্যাটো দেশভুক্ত দেশগুলো জানিয়েছিল, তারা ইউক্রেনকে শুধুমাত্র প্রতিরক্ষামূলক অস্ত্র দেবে। কিন্তু এখন সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে গিয়ে ইউক্রেনকে তারা বিধ্বংসী অস্ত্র দিতে যাচ্ছে।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান, সিএনএন

যুদ্ধের ‘মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার অস্ত্র’ পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ মে ২০২২, ১০:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন শুক্রবার বলেছেন, রাশিয়াকে ঠেকাতে এখন ইউক্রেনের প্রয়োজন দূরপাল্লার মাল্টিপল রকেট লঞ্চার (এমএলআরএস)। তাদের এ অস্ত্র দেওয়া প্রয়োজন।

তবে যুক্তরাজ্য এ অস্ত্র পাঠাবে কিনা সেটি তিনি জানাননি।

দোনবাসে রাশিয়া অত্যাধিক হামলা চালানো শুরু করার পর ও বেশ কয়েকটি অঞ্চল দখল করার পর বরিস জনসন এমন কথা বললেন।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং অন্যান্য ন্যাটো দেশগুলোর কাছ থেকে শক্তিশালী এম২৭০ মাল্টিপল রকেট লঞ্চার গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চেয়ে আসছে ইউক্রেন।  

তবে পশ্চিমারা এটি দিতে রাজি হয়নি। এমনকি যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনকে সরাসরি ‘না’ বলে দিয়েছিল।

কিন্তু বরিস জনসনের কথায় এখন বোঝা যাচ্ছে পশ্চিমারা তাদের নীতিতে পরিবর্তন আনছেন এবং শক্তিশালী এ অস্ত্রটি পাঠানোর পক্ষে আছেন তারা। 

এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, ইউক্রেনকে এম২৭০ রকেট লঞ্চার দেওয়ার ঘোষণা আগামী সপ্তাহেই দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

আর এ অস্ত্রটি ইউক্রেনে গেলে পাল্টে যেতে পারে যুদ্ধের মোড়।

দোনবাসে বর্তমানে রাশিয়া যেভাবে একক আধিপত্য বিস্তার করে আগ্রাসন চালাচ্ছে সেটি সম্ভব হবে না। 

এম২৭০ রকেট লঞ্চারটি অন্যান্য রকেট লঞ্চার থেকে অনেক আলাদা। এটি ১৬৫ কিলোমিটার দূরে রকেট ছুড়তে পারে। 

এই এম২৭০ রকেট লঞ্চার থেকে এক মিনিটে ১২টি রকেট ছোড়া যায়। 

এদিকে ইউক্রেন যুদ্ধের শুরুতে ন্যাটো দেশভুক্ত দেশগুলো জানিয়েছিল, তারা ইউক্রেনকে শুধুমাত্র প্রতিরক্ষামূলক অস্ত্র দেবে। কিন্তু এখন সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে গিয়ে ইউক্রেনকে তারা বিধ্বংসী অস্ত্র দিতে যাচ্ছে। 

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান, সিএনএন  

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা