কুদস বাহিনীর কর্মকর্তা আছে সন্দেহে আর্জেন্টিনায় বিমান আটক
jugantor
কুদস বাহিনীর কর্মকর্তা আছে সন্দেহে আর্জেন্টিনায় বিমান আটক

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ জুন ২০২২, ১৩:৩৪:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

প্যারাগুয়ের গোয়েন্দাপ্রধান শুক্রবার জানিয়েছেন, আরোহীদের মধ্যে ইরানের কুদস বাহিনীর এক কর্মকর্তা আছে সন্দেহে আর্জেন্টিনার একটি বিমানবন্দরে এক সপ্তাহ ধরে আটক রাখা হয়েছে।

বিমানের সঙ্গে যাত্রীদেরও আটক রাখা হয়েছে। ইরানের এলিট ফোর্স রিভোলেশনারি গার্ডের শাখা কুদস বাহিনীর প্রধান গোলাম রেজা ঘেসামি এবং তার সংস্থাকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

প্যারাগুয়ের গোয়েন্দাপ্রধান এসতেবান একিউনো আরও বলেছেন, আটক বিমানটিতে এ নামের একজন ইরানি যাত্রী থাকায় পুরো বিমানটি জব্দ করে রেখেছে প্যারাগুয়ে।

আর্জেন্টিনার ওই বিমানবন্দরে গত বুধবার ৭৪৭ বুয়িং বিমানটি জব্দ করা হয়েছে।

তবে আর্জেন্টিনার নিরাপত্তাবিষয়ক মন্ত্রী আনিবাল ফার্নান্দেজ জানিয়েছেন, বিমানটিতে কুদস বাহিনীর কোনো কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি। বিমানের ইরানি এক ক্রুর নামের শেষে ঘেসামি থাকায় তাকে কুদস বাহিনীর প্রধান গোলাম রেজা ঘেসামি সন্দেহে বিমানটি জব্দ করা হয়েছে।

বিমানটিতে ১৪ জন ভেনুজুয়েলার যাত্রী এবং ৫ জন ইরানি ক্রু ছিলেন। বিমানটি আগে ইরানের মহান এয়ারলাইন্সের ছিল। পরে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে এ বিমানটি ভেনিজুয়েলার কাছে বিক্রি করে দেয় ইরান।

বিমানটি ভেনিজুয়েলার নামে ইরান পরিচালনা করছে বলে ল্যাটিন আমেরিকার দেশটি এটি জব্দ করে যাত্রীদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

কুদস বাহিনীর কর্মকর্তা আছে সন্দেহে আর্জেন্টিনায় বিমান আটক

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ জুন ২০২২, ০১:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্যারাগুয়ের গোয়েন্দাপ্রধান শুক্রবার জানিয়েছেন, আরোহীদের মধ্যে ইরানের কুদস বাহিনীর এক কর্মকর্তা আছে সন্দেহে আর্জেন্টিনার একটি বিমানবন্দরে এক সপ্তাহ ধরে আটক রাখা হয়েছে।

বিমানের সঙ্গে যাত্রীদেরও আটক রাখা হয়েছে। ইরানের এলিট ফোর্স রিভোলেশনারি গার্ডের শাখা কুদস বাহিনীর প্রধান গোলাম রেজা ঘেসামি এবং তার সংস্থাকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

প্যারাগুয়ের গোয়েন্দাপ্রধান এসতেবান একিউনো আরও বলেছেন, আটক বিমানটিতে এ নামের একজন ইরানি যাত্রী থাকায় পুরো বিমানটি জব্দ করে রেখেছে প্যারাগুয়ে।

আর্জেন্টিনার ওই বিমানবন্দরে গত বুধবার ৭৪৭ বুয়িং বিমানটি জব্দ করা হয়েছে।    

তবে আর্জেন্টিনার নিরাপত্তাবিষয়ক মন্ত্রী আনিবাল ফার্নান্দেজ জানিয়েছেন, বিমানটিতে কুদস বাহিনীর কোনো কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি। বিমানের ইরানি এক ক্রুর নামের শেষে ঘেসামি থাকায় তাকে কুদস বাহিনীর প্রধান গোলাম রেজা ঘেসামি সন্দেহে বিমানটি জব্দ করা হয়েছে।

বিমানটিতে ১৪ জন ভেনুজুয়েলার যাত্রী এবং ৫ জন ইরানি ক্রু ছিলেন। বিমানটি আগে ইরানের মহান এয়ারলাইন্সের ছিল। পরে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে এ বিমানটি ভেনিজুয়েলার কাছে বিক্রি করে দেয় ইরান।

বিমানটি ভেনিজুয়েলার নামে ইরান পরিচালনা করছে বলে ল্যাটিন আমেরিকার দেশটি এটি জব্দ করে যাত্রীদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন