‘ব্রিটিশ সেনাবাহিনীকে আবার ইউরোপে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হতে হবে’
jugantor
‘ব্রিটিশ সেনাবাহিনীকে আবার ইউরোপে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হতে হবে’

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৯ জুন ২০২২, ২২:৩৪:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর নতুন প্রধান জেনারেল স্যার প্যাট্রিক স্যান্ডার্স তার সৈন্যদের এক জোট হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ইউক্রেনে আক্রমণের পরে রাশিয়ার নতুন হুমকির মোকাবিলা করতে প্রস্তুত থাকতে। বিবিসি রোববার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

‘সেনাবাহিনীর সব পদমর্যাদার এবং বেসামরিক কর্মীদের’ সম্বোধন করে একটি চিঠিতে জেনারেল স্যার প্যাট্রিক স্যান্ডার্স ইউক্রেন আক্রমণের পরে রাশিয়ার হুমকির কথা তুলে ধরেছেন।

চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, তিনিই প্রথম চিফ অব দ্য জেনারেল স্টাফ যিনি ‘১৯৪১ সালের পর একটি প্রধান মহাদেশীয় শক্তির সংশ্লিষ্টতায় ইউরোপে একটি স্থল যুদ্ধের ছায়ায় সেনাবাহিনীর কমান্ড গ্রহণ করেছেন’।

জেনারেল স্যান্ডার্স বলেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন যুক্তরাজ্যকে রক্ষা করা, স্থলে যুদ্ধ ও জয়ের জন্য প্রস্তুত হওয়া এবং শক্তি প্রদর্শনের হুমকি দিয়ে রুশ আগ্রাসন প্রতিরোধ করার প্রয়োজনীয়তাকে জোরদার করার মতো আমাদের মূল উদ্দেশ্যকে নির্দেশ করে।

তিনি আরও বলেন, ২৪ ফেব্রুয়ারির পর বিশ্ব বদলে গেছে। আমাদের মিত্রদের পাশাপাশি যুদ্ধ করতে এবং যুদ্ধে রাশিয়াকে পরাজিত করতে সক্ষম একটি সেনাবাহিনী গঠন এখন অত্যাবশ্যকীয় প্রয়োজনীয়তা হিসেবে দেখা দিয়েছে।

জেনারেল স্যান্ডার্স তার লক্ষ্য নির্ধারণ করে বলেন, ‘ন্যাটোকে শক্তিশালী করার জন্য সেনাবাহিনীর সংগঠিতকরণ এবং আধুনিকীকরণকে ত্বরান্বিত করা, রাশিয়াকে ইউরোপের আর কোনো দখলদারিত্বের সুযোগ না দেওয়া…আমরা সেই প্রজন্ম যাদের সেনাবাহিনীকে আবারও ইউরোপে লড়াই করার জন্য প্রস্তুত করতে হবে’।

জেনারেল স্যান্ডার্সের ওই চিঠি ১৬ জুন ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিবিসির কাছে পাঠানো হয় বলে বিবিসি জানিয়েছে।

‘ব্রিটিশ সেনাবাহিনীকে আবার ইউরোপে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হতে হবে’

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৯ জুন ২০২২, ১০:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর নতুন প্রধান জেনারেল স্যার প্যাট্রিক স্যান্ডার্স তার সৈন্যদের এক জোট হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ইউক্রেনে আক্রমণের পরে রাশিয়ার নতুন হুমকির মোকাবিলা করতে প্রস্তুত থাকতে। বিবিসি রোববার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। 

‘সেনাবাহিনীর সব পদমর্যাদার এবং বেসামরিক কর্মীদের’ সম্বোধন করে একটি চিঠিতে জেনারেল স্যার প্যাট্রিক স্যান্ডার্স ইউক্রেন আক্রমণের পরে রাশিয়ার হুমকির কথা তুলে ধরেছেন।

চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, তিনিই প্রথম চিফ অব দ্য জেনারেল স্টাফ যিনি ‘১৯৪১ সালের পর একটি প্রধান মহাদেশীয় শক্তির সংশ্লিষ্টতায় ইউরোপে একটি স্থল যুদ্ধের ছায়ায় সেনাবাহিনীর কমান্ড গ্রহণ করেছেন’। 

জেনারেল স্যান্ডার্স বলেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন যুক্তরাজ্যকে রক্ষা করা, স্থলে যুদ্ধ ও জয়ের জন্য প্রস্তুত হওয়া এবং শক্তি প্রদর্শনের হুমকি দিয়ে রুশ আগ্রাসন প্রতিরোধ করার প্রয়োজনীয়তাকে জোরদার করার মতো আমাদের মূল উদ্দেশ্যকে নির্দেশ করে। 

তিনি আরও বলেন, ২৪ ফেব্রুয়ারির পর বিশ্ব বদলে গেছে। আমাদের মিত্রদের পাশাপাশি যুদ্ধ করতে এবং যুদ্ধে রাশিয়াকে পরাজিত করতে সক্ষম একটি সেনাবাহিনী গঠন এখন অত্যাবশ্যকীয় প্রয়োজনীয়তা হিসেবে দেখা দিয়েছে। 

জেনারেল স্যান্ডার্স তার লক্ষ্য নির্ধারণ করে বলেন, ‘ন্যাটোকে শক্তিশালী করার জন্য সেনাবাহিনীর সংগঠিতকরণ এবং আধুনিকীকরণকে ত্বরান্বিত করা, রাশিয়াকে ইউরোপের আর কোনো দখলদারিত্বের সুযোগ না দেওয়া…আমরা সেই প্রজন্ম যাদের সেনাবাহিনীকে আবারও ইউরোপে লড়াই করার জন্য প্রস্তুত করতে হবে’।

জেনারেল স্যান্ডার্সের ওই চিঠি ১৬ জুন ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিবিসির কাছে পাঠানো হয় বলে বিবিসি জানিয়েছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা

আরও খবর