আমরা প্রস্তুত থাকব, রাশিয়াকে সাফ জানাল লিথুয়ানিয়া
jugantor
আমরা প্রস্তুত থাকব, রাশিয়াকে সাফ জানাল লিথুয়ানিয়া

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ জুন ২০২২, ২২:৫৩:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়ান ছিটমহল কালিনিনগ্রাদে পণ্য পরিবহনে লিথুয়ানিয়ার ট্রানজিট নিষেধাজ্ঞার জবাবে রাশিয়া যদি আঞ্চলিক পাওয়ার গ্রিড থেকে দেশটির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়, তাহলে লিথুয়ানিয়া প্রস্তুত থাকবে বলে দেশটির প্রেসিডেন্ট গিতানাস নওসেদা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন।

তবে কোনো সামরিক সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

লিথুয়ানিয়া রেলপথে রাশিয়ার ছিটমহল কালিনিনগ্রাদে পণ্য পরিবহণ বন্ধ করে দেওয়ার পর মঙ্গলবার ক্রেমলিন লিথুয়ানিয়াকে সতর্ক করে। পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র এবং সিকিউরিটি কাউন্সিলের সেক্রেটারি নিকোলাই পাতরুশেভ বলেন, লিথুয়ানিয়া যে কাজ করেছে তার জন্য ভোগান্তি পোহাতে হবে লিথুয়ানিয়ার জনগণকে। কারণ রাশিয়া কঠোর ব্যবস্থা নেবে। লিথুয়ানিয়ার জনগণ টের পাবে কষ্টটা।

এরপরই প্রেসিডেন্ট গিতানাস নওসেদা এই মন্তব্য করেন।

এদিকে, বুধবার এই ইস্যুতে লিথুয়ানিয়াকে সরাসরি হুমকি দিয়েছে রাশিয়া। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা মূল প্রশ্নগুলোর মধ্যে একটি হল প্রতিক্রিয়াটি একচেটিয়াভাবে কূটনৈতিক হবে কি না তা নিয়ে। উত্তর: না। প্রতিক্রিয়া কূটনৈতিক নয়, বাস্তবসম্মত হবে।

তবে লিথুয়ানিয়ার বিরুদ্ধে রাশিয়া যে ব্যবহারিক ব্যবস্থা নেওয়ার পরিকল্পনা করেছে তা ঠিক কেমন হবে সে ব্যাপারে বিস্তারিত জানাননি জাখারোভা।

লিথুয়ানিয়া কর্তৃপক্ষ তাদের ভূখণ্ড দিয়ে পণ্য পরিবহন নিষিদ্ধ করেছে। এই নিষেধাজ্ঞার কারণে রাশিয়ার মূল ভূখণ্ড এবং বাল্টিক সাগরের কালিনিনগ্রাদ ছিটমহলের মধ্যে একমাত্র রেলপথ দিয়ে রাশিয়া পণ্য পরিবহণ করতে পারছে না। রেলপথটি লিথুয়ানিয়া এবং পোল্যান্ডের মধ্যে অবস্থিত।

রাশিয়ার জবাবে লিথুয়ানিয়া জানিয়েছিল, রাশিয়ান ছিটমহল কালিনিনগ্রাদে পণ্য পরিবহনের উপর লিথুয়ানিয়ার নিষেধাজ্ঞা শুধুমাত্র ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বিধিনিষেধ আরোপ করা পণ্যের ওপরই বিদ্যমান।

আমরা প্রস্তুত থাকব, রাশিয়াকে সাফ জানাল লিথুয়ানিয়া

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ জুন ২০২২, ১০:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়ান ছিটমহল কালিনিনগ্রাদে পণ্য পরিবহনে লিথুয়ানিয়ার ট্রানজিট নিষেধাজ্ঞার জবাবে রাশিয়া যদি আঞ্চলিক পাওয়ার গ্রিড থেকে দেশটির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়, তাহলে লিথুয়ানিয়া প্রস্তুত থাকবে বলে দেশটির প্রেসিডেন্ট গিতানাস নওসেদা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন।

তবে কোনো সামরিক সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন না বলেও জানিয়েছেন তিনি। 

লিথুয়ানিয়া রেলপথে রাশিয়ার ছিটমহল কালিনিনগ্রাদে পণ্য পরিবহণ বন্ধ করে দেওয়ার পর মঙ্গলবার ক্রেমলিন লিথুয়ানিয়াকে সতর্ক করে। পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র এবং সিকিউরিটি কাউন্সিলের সেক্রেটারি নিকোলাই পাতরুশেভ বলেন, লিথুয়ানিয়া যে কাজ করেছে তার জন্য ভোগান্তি পোহাতে হবে লিথুয়ানিয়ার জনগণকে। কারণ রাশিয়া কঠোর ব্যবস্থা নেবে। লিথুয়ানিয়ার জনগণ টের পাবে কষ্টটা। 

এরপরই প্রেসিডেন্ট গিতানাস নওসেদা এই মন্তব্য করেন। 

এদিকে, বুধবার এই ইস্যুতে লিথুয়ানিয়াকে সরাসরি হুমকি দিয়েছে রাশিয়া। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা মূল প্রশ্নগুলোর মধ্যে একটি হল প্রতিক্রিয়াটি একচেটিয়াভাবে কূটনৈতিক হবে কি না তা নিয়ে। উত্তর: না। প্রতিক্রিয়া কূটনৈতিক নয়, বাস্তবসম্মত হবে।

তবে  লিথুয়ানিয়ার বিরুদ্ধে রাশিয়া যে ব্যবহারিক ব্যবস্থা নেওয়ার পরিকল্পনা করেছে তা ঠিক কেমন হবে সে ব্যাপারে বিস্তারিত জানাননি জাখারোভা। 

লিথুয়ানিয়া কর্তৃপক্ষ তাদের ভূখণ্ড দিয়ে পণ্য পরিবহন নিষিদ্ধ করেছে। এই নিষেধাজ্ঞার কারণে রাশিয়ার মূল ভূখণ্ড এবং বাল্টিক সাগরের কালিনিনগ্রাদ ছিটমহলের মধ্যে একমাত্র রেলপথ দিয়ে রাশিয়া পণ্য পরিবহণ করতে পারছে না। রেলপথটি লিথুয়ানিয়া এবং পোল্যান্ডের মধ্যে অবস্থিত। 

রাশিয়ার জবাবে লিথুয়ানিয়া জানিয়েছিল,  রাশিয়ান ছিটমহল কালিনিনগ্রাদে পণ্য পরিবহনের উপর লিথুয়ানিয়ার নিষেধাজ্ঞা শুধুমাত্র ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বিধিনিষেধ আরোপ করা পণ্যের ওপরই বিদ্যমান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা

আরও খবর