পুতিনের ‘টাফ ম্যান ইমেজ’ নিয়ে জি-সেভেন বৈঠকে ঠাট্টা
jugantor
পুতিনের ‘টাফ ম্যান ইমেজ’ নিয়ে জি-সেভেন বৈঠকে ঠাট্টা

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৬ জুন ২০২২, ২১:০৯:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

জার্মানিতে অনুষ্ঠিত জি-সেভেন বৈঠকের মধ্যাহ্নভোজে রোববার বিশ্বনেতারা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের টাফ ম্যান ইমেজ নিয়ে ঠাট্টা করেছেন। বার্তা সংস্থা এএফপি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন জার্মানির বাভারিয়ার অ্যালমাউ ক্যাসেলে বসে পুতিনকে কৌতুক করে বলেন, জ্যাকেট পরে? জ্যাকেট খুলে? আমরা কি আমাদের কোট খুলে ফেলব?

ব্রিটেন, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতা এই নিয়ে আলোচনা করছিলেন বলে এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।
এ সময় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, পোশাক পরিবর্তনের আগে তাদের অফিশিয়াল ছবি তোলার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। এ সময় বরিস জনসন কৌতুক করে বলেন, আমাদের দেখাতে হবে যে আমরা পুতিনের চেয়ে বেশি শক্তিশালী।

পুতিনকে নিয়ে এই কৌতুক চলতে থাকে।

২০০৯ সালে পুতিনের ঘোড়ায় চড়া খালি গায়ের বিখ্যাত একটি ছবির ব্যাপারে ইঙ্গিত দিয়ে জাস্টিন ট্রুডো বলেন, আমরা খালি গায়ে ঘোড়ার পিঠে চড়ার প্রদর্শনী করতে যাচ্ছি।

এ সময় পোশাকের বিষয়টি পাশ কাটিয়ে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লেয়েন বলেন, ঘোড়ায় চড়াই সবচেয়ে ভালো।

বরিস জনসন হস্তক্ষেপ করেন, তাদের আমাদের পেশী দেখাতে হবে।

অবশ্য এসব কৌতুক নিজেদের মধ্যে রেখে সাংবাদিকদের সামনে পোশাক পরেই ছবির জন্য পোজ দেন তারা।

পুতিনের ‘টাফ ম্যান ইমেজ’ নিয়ে জি-সেভেন বৈঠকে ঠাট্টা

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৬ জুন ২০২২, ০৯:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জার্মানিতে অনুষ্ঠিত জি-সেভেন বৈঠকের মধ্যাহ্নভোজে রোববার বিশ্বনেতারা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের টাফ ম্যান ইমেজ নিয়ে ঠাট্টা করেছেন। বার্তা সংস্থা এএফপি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছেন। 

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন জার্মানির বাভারিয়ার অ্যালমাউ ক্যাসেলে বসে পুতিনকে কৌতুক করে বলেন, জ্যাকেট পরে? জ্যাকেট খুলে? আমরা কি আমাদের কোট খুলে ফেলব?

ব্রিটেন, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান,  যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতা এই নিয়ে আলোচনা করছিলেন বলে এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। 
এ সময় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, পোশাক পরিবর্তনের আগে তাদের অফিশিয়াল ছবি তোলার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। এ সময় বরিস জনসন কৌতুক করে বলেন, আমাদের দেখাতে হবে যে আমরা পুতিনের চেয়ে বেশি শক্তিশালী। 

পুতিনকে নিয়ে এই কৌতুক চলতে থাকে। 

২০০৯ সালে পুতিনের ঘোড়ায় চড়া খালি গায়ের বিখ্যাত একটি ছবির ব্যাপারে ইঙ্গিত দিয়ে জাস্টিন ট্রুডো বলেন, আমরা খালি গায়ে ঘোড়ার পিঠে চড়ার প্রদর্শনী করতে যাচ্ছি।

এ সময় পোশাকের বিষয়টি পাশ কাটিয়ে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লেয়েন বলেন, ঘোড়ায় চড়াই সবচেয়ে ভালো।

বরিস জনসন হস্তক্ষেপ করেন,  তাদের আমাদের পেশী দেখাতে হবে।

অবশ্য এসব কৌতুক নিজেদের মধ্যে রেখে সাংবাদিকদের সামনে পোশাক পরেই ছবির জন্য পোজ দেন তারা। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা