‘ইউক্রেন যদি হেরে যায়….’
jugantor
‘ইউক্রেন যদি হেরে যায়….’

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৭ জুন ২০২২, ১৮:৪২:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি বলেছেন, জি-সেভেন দেশগুলো ইউক্রেনের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ। কারণ রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইউক্রেনের পরাজয় মানে সমগ্র গণতন্ত্রের জন্য পরাজয় হবে।

দ্রাঘির কার্যালয় থেকে পাঠানো তার এক বক্তব্যে জানা গেছে, আমরা ইউক্রেনের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ, কারণ ইউক্রেন হেরে গেলে সমগ্র গণতন্ত্র হেরে যাবে। যদি ইউক্রেন হেরে যায়, তাহলে যুক্তি দেওয়া কঠিন হবে যে গণতন্ত্র সরকারের একটি কার্যকরী মডেল।

এদিকে, রাশিয়া বেলারুশে পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম মিসাইল পাঠানোর ঘোষণা দেওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জি-সেভেনজোটের নেতারা।

সোমবার জি-সেভেননেতাদের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি দায়িত্বশীলভাবে আচরণ করতে এবং সংবরণ বজায় রাখতে।

বিবৃতিতে জি-৭ নেতারা আরও বলেন, রাশিয়া বেলারুশে পারমাণবিক শক্তি সমৃদ্ধ মিসাইল পাঠাতে পারে এমন ঘোষণা দেওয়ায় আমরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি ।
জি-৭ জোটটি যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি এবং যুক্তরাজ্য নিয়ে গঠিত।

‘ইউক্রেন যদি হেরে যায়….’

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৭ জুন ২০২২, ০৬:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি বলেছেন, জি-সেভেন দেশগুলো ইউক্রেনের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ। কারণ রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইউক্রেনের পরাজয় মানে সমগ্র গণতন্ত্রের জন্য পরাজয় হবে।

দ্রাঘির কার্যালয় থেকে পাঠানো তার এক বক্তব্যে জানা গেছে, আমরা ইউক্রেনের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ, কারণ ইউক্রেন হেরে গেলে সমগ্র গণতন্ত্র হেরে যাবে। যদি ইউক্রেন হেরে যায়, তাহলে যুক্তি দেওয়া কঠিন হবে যে গণতন্ত্র সরকারের একটি কার্যকরী মডেল।

এদিকে, রাশিয়া বেলারুশে পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম মিসাইল পাঠানোর ঘোষণা দেওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জি-সেভেন জোটের নেতারা।

সোমবার জি-সেভেন নেতাদের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি দায়িত্বশীলভাবে আচরণ করতে এবং সংবরণ বজায় রাখতে। 

বিবৃতিতে জি-৭ নেতারা আরও বলেন, রাশিয়া বেলারুশে পারমাণবিক শক্তি সমৃদ্ধ মিসাইল পাঠাতে পারে এমন ঘোষণা দেওয়ায় আমরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি । 
জি-৭ জোটটি যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি এবং যুক্তরাজ্য নিয়ে গঠিত। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা