‘মুক্ত বিশ্বের অংশ’ থাকার জন্য সাহায্য চাইল মলদোভা
jugantor
‘মুক্ত বিশ্বের অংশ’ থাকার জন্য সাহায্য চাইল মলদোভা

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৮ জুন ২০২২, ০৫:২৬:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

মলদোভার প্রেসিডেন্ট মাইয়া সান্ডু ‘মুক্ত বিশ্বের অংশ’ থাকার জন্য সাহায্য চেয়েছেন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা সোমবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

মাইয়া সান্ডু ইউক্রেন সফরের সময় তার দেশকে ‘ভঙ্গুর এবং দুর্বল’ উল্লেখ করে এই সাহায্য চান।

প্রেসিডেন্ট মাইয়া সান্ডু বলেন, ইউক্রেনের সীমান্তবর্তী ২৬ মিলিয়ন মানুষের দেশ সাবেক সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র মলদোভা তার নিজের ভবিষ্যত নির্ধারণ করতে চায়।

তিনি বলেন, মলদোভা একটি ভঙ্গুর এবং দুর্বল দেশ। ইউক্রেন এবং মলদোভার সাহায্য দরকার। আমরা চাই এই যুদ্ধ (ইউক্রেনে) বন্ধ হোক, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে এই রুশ আগ্রাসন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বন্ধ হোক। আমরা মুক্ত বিশ্বের অংশ থাকতে চাই।

এদিকে, রাশিয়ার নতুন করে দেওয়া হুমকি মোকাবেলায় ইউক্রেন মলদোভার পাশে দাঁড়িয়েছে বলে ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা দাবি করেছেন। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যপদে প্রার্থী হওয়ার জন্য দেশ দুটিকে নেতিবাচক পরিণতির বিষয়ে মস্কো সতর্ক করার পর দিমিত্রো কুলেবা এই মন্তব্য করেন।

কুলেবা টুইটারে বলেন, মস্কো থেকে নতুন করে হুমকির মধ্যে আমরা বন্ধুত্বপূর্ণ দেশ মলদোভার জনগণ এবং সরকারের পাশে আছি।


‘মুক্ত বিশ্বের অংশ’ থাকার জন্য সাহায্য চাইল মলদোভা

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৮ জুন ২০২২, ০৫:২৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মলদোভার প্রেসিডেন্ট মাইয়া সান্ডু ‘মুক্ত বিশ্বের অংশ’ থাকার জন্য সাহায্য চেয়েছেন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা সোমবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

মাইয়া সান্ডু ইউক্রেন সফরের সময় তার দেশকে ‘ভঙ্গুর এবং দুর্বল’ উল্লেখ করে এই সাহায্য চান। 

প্রেসিডেন্ট মাইয়া সান্ডু বলেন, ইউক্রেনের সীমান্তবর্তী ২৬ মিলিয়ন মানুষের দেশ সাবেক সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র মলদোভা তার নিজের ভবিষ্যত নির্ধারণ করতে চায়।

তিনি বলেন, মলদোভা একটি ভঙ্গুর এবং দুর্বল দেশ। ইউক্রেন এবং মলদোভার সাহায্য দরকার। আমরা চাই এই যুদ্ধ (ইউক্রেনে) বন্ধ হোক, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে এই রুশ আগ্রাসন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বন্ধ হোক। আমরা মুক্ত বিশ্বের অংশ থাকতে চাই।

এদিকে, রাশিয়ার নতুন করে দেওয়া হুমকি মোকাবেলায় ইউক্রেন মলদোভার পাশে দাঁড়িয়েছে বলে ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা দাবি করেছেন। ইউরোপীয়  ইউনিয়নের সদস্যপদে প্রার্থী হওয়ার জন্য দেশ দুটিকে নেতিবাচক পরিণতির বিষয়ে মস্কো সতর্ক করার পর দিমিত্রো কুলেবা এই মন্তব্য করেন। 

কুলেবা টুইটারে বলেন, মস্কো থেকে নতুন করে হুমকির মধ্যে আমরা বন্ধুত্বপূর্ণ দেশ মলদোভার জনগণ এবং সরকারের পাশে আছি।


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা