ইসরাইলে ১০০ রকেট নিক্ষেপ করে ইসলামি জিহাদের প্রতিবাদ
jugantor
ইসরাইলে ১০০ রকেট নিক্ষেপ করে ইসলামি জিহাদের প্রতিবাদ

  অনলাইন ডেস্ক  

০৬ আগস্ট ২০২২, ১১:৫০:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার আবাসিক ভবনে ইহুদিবাদী ইসরাইলি সেনাদের বর্বর বিমান হামলার প্রতিশোধ নিতে ইসরাইলে শতাধিক রকেট নিক্ষেপ করেছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন ইসলামি জিহাদ আন্দোলন।

ইসরাইলি হামলায় জিহাদ আন্দোলনের সিনিয়র কমান্ডার তাইসির আল জাবারিসহ অন্তত ১২ ফিলিস্তিনি নিহত হওয়ার পর পাল্টা হামলা চালালেন প্রতিরোধ আন্দোলনকারীরা। খবর আলজাজিরার।

ফিলিস্তিনের এ সংগঠনটি শুক্রবার রাতে তাদের পাল্টা হামলা সম্পর্কে বলেছে, এটি কেবল ‘তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া’।

সংগঠনটির সামরিক শাখা আল-কুদস ব্রিগেড এক বিবৃতিতে বলেছে, সিনিয়র কমান্ডার তাইসির আল-জাবারিকে হত্যার তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আল-কুদস ব্রিগেড ইসরাইলের রাজধানী তেলআবিবসহ দেশটির মধ্যাঞ্চলীয় বিভিন্ন শহর এবং গাজা সংলগ্ন এলাকাগুলোতে শতাধিক রকেট নিক্ষেপ করেছে।

ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের মহাসচিব জিয়াদ আন-নাখালা হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, শুক্রবারের আগ্রাসনের পর ইহুদিবাদী ইসরাইলকে ‘অবিরাম’ সংঘাতের মুখোমুখি হতে হবে।

এবারের হামলার পর ইসরাইলের সঙ্গে আর কোনো যুদ্ধবিরতি হবে না। এবারের সংগ্রামে সব ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনকে এক পতাকাতলে শামিল হওয়ার আহ্বান জানান জিয়াদ আন-নাখালা।

এছাড়া, ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস বলেছে, ইসরাইল যে অপরাধযজ্ঞ চালিয়েছে, এ জন্য তাদের মূল্য দিতে হবে।

গত মে মাসে ইসরাইল গাজায় আগ্রাসন চালালে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো ইসরাইলি ভূখণ্ড লক্ষ্য করে প্রায় ৪ হাজার রকেট নিক্ষেপ করেছিল।

ইসরাইলে ১০০ রকেট নিক্ষেপ করে ইসলামি জিহাদের প্রতিবাদ

 অনলাইন ডেস্ক 
০৬ আগস্ট ২০২২, ১১:৫০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার আবাসিক ভবনে ইহুদিবাদী ইসরাইলি সেনাদের বর্বর বিমান হামলার প্রতিশোধ নিতে ইসরাইলে শতাধিক রকেট নিক্ষেপ করেছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন ইসলামি জিহাদ আন্দোলন।

ইসরাইলি হামলায় জিহাদ আন্দোলনের সিনিয়র কমান্ডার তাইসির আল জাবারিসহ অন্তত ১২ ফিলিস্তিনি নিহত হওয়ার পর পাল্টা হামলা চালালেন প্রতিরোধ আন্দোলনকারীরা। খবর আলজাজিরার।

ফিলিস্তিনের এ সংগঠনটি শুক্রবার রাতে তাদের পাল্টা হামলা সম্পর্কে বলেছে, এটি কেবল ‘তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া’।

সংগঠনটির সামরিক শাখা আল-কুদস ব্রিগেড এক বিবৃতিতে বলেছে, সিনিয়র কমান্ডার তাইসির আল-জাবারিকে হত্যার তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আল-কুদস ব্রিগেড ইসরাইলের রাজধানী তেলআবিবসহ দেশটির মধ্যাঞ্চলীয় বিভিন্ন শহর এবং গাজা সংলগ্ন এলাকাগুলোতে শতাধিক রকেট নিক্ষেপ করেছে।

ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের মহাসচিব জিয়াদ আন-নাখালা হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, শুক্রবারের আগ্রাসনের পর ইহুদিবাদী ইসরাইলকে ‘অবিরাম’ সংঘাতের মুখোমুখি হতে হবে।

এবারের হামলার পর ইসরাইলের সঙ্গে আর কোনো যুদ্ধবিরতি হবে না। এবারের সংগ্রামে সব ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনকে এক পতাকাতলে শামিল হওয়ার আহ্বান জানান জিয়াদ আন-নাখালা।

এছাড়া, ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস বলেছে, ইসরাইল যে অপরাধযজ্ঞ চালিয়েছে, এ জন্য তাদের মূল্য দিতে হবে।

গত মে মাসে ইসরাইল গাজায় আগ্রাসন চালালে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো ইসরাইলি ভূখণ্ড লক্ষ্য করে প্রায় ৪ হাজার রকেট নিক্ষেপ করেছিল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ফিলিস্তিনিদের ঘরে ফেরার বিক্ষোভ