নীরবে রাশিয়ার কোম্পানিতে সৌদি প্রিন্সের বিনিয়োগ
jugantor
নীরবে রাশিয়ার কোম্পানিতে সৌদি প্রিন্সের বিনিয়োগ

  অনলাইন ডেস্ক  

১৫ আগস্ট ২০২২, ২২:৫০:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়া

সৌদি আরবের কিংডম হোল্ডিং কোম্পানি নামে একটি বিনিয়োগ কোম্পানি ‘নীরবে’ ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ মাসের মধ্যে রাশিয়ার তিনটি বৃহত্তম জ্বালানি কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেছে। খবর আল জাজিরার।

এই কোম্পানিটি সৌদি প্রিন্স ধনকুবের আলওয়ালিদ বিন তালালের।

কিংডম হোল্ডিং কোম্পানি ফেব্রুয়ারি মাসে রুশ গ্যাস উৎপাদনকারী জায়ান্ট গ্যাসপ্রম ১.৩৭ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল (৩৬৫ মিলিয়ন ডলার) এবং রশনেফটে ১৯৬ মিলিয়ন রিয়াল (৫২ মিলিয়ন ডলার) বিনিয়োগ করেন।

তাছাড়া সৌদি প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালালের এ কোম্পানিটি ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ মাসের মধ্যে লুকওয়েলের যুক্তরাষ্ট্র ডিপোজিটরি রিসিপ্টে আরও ৪১০ মিলিয়ন রিয়াল (১০৯ মিলিয়ন ডলার) বিনিয়োগ করে।

এদিকে কিংডম হোল্ডিংয়ের ১৬.৯ ভাগের মালিক হলো সৌদি আরবের সভেরিন ওয়েলথ ফান্ড। এই ফান্ডটির চেয়ারম্যান হলেন ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান।

কোম্পানিটি আগে কখনো তাদের বিনিয়োগের বিস্তারিত প্রকাশ করেনি।

সূত্র: আল জাজিরা

নীরবে রাশিয়ার কোম্পানিতে সৌদি প্রিন্সের বিনিয়োগ

 অনলাইন ডেস্ক 
১৫ আগস্ট ২০২২, ১০:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রাশিয়া
প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালাল

সৌদি আরবের কিংডম হোল্ডিং কোম্পানি নামে একটি বিনিয়োগ কোম্পানি ‘নীরবে’ ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ মাসের মধ্যে রাশিয়ার তিনটি বৃহত্তম জ্বালানি কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেছে। খবর আল জাজিরার। 

এই কোম্পানিটি সৌদি প্রিন্স ধনকুবের আলওয়ালিদ বিন তালালের।

কিংডম হোল্ডিং কোম্পানি ফেব্রুয়ারি মাসে রুশ গ্যাস উৎপাদনকারী জায়ান্ট গ্যাসপ্রম ১.৩৭ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল (৩৬৫ মিলিয়ন ডলার) এবং রশনেফটে ১৯৬ মিলিয়ন রিয়াল (৫২ মিলিয়ন ডলার) বিনিয়োগ করেন। 

তাছাড়া সৌদি প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালালের এ কোম্পানিটি ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ মাসের মধ্যে লুকওয়েলের যুক্তরাষ্ট্র ডিপোজিটরি রিসিপ্টে আরও ৪১০ মিলিয়ন রিয়াল (১০৯ মিলিয়ন ডলার) বিনিয়োগ করে।

এদিকে কিংডম হোল্ডিংয়ের ১৬.৯ ভাগের মালিক হলো সৌদি আরবের সভেরিন ওয়েলথ ফান্ড। এই ফান্ডটির চেয়ারম্যান হলেন ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান।

কোম্পানিটি আগে কখনো তাদের বিনিয়োগের বিস্তারিত প্রকাশ করেনি। 

সূত্র: আল জাজিরা

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা