বাস-ট্যাংকার সংঘর্ষে পাকিস্তানে ২০ জন নিহত
jugantor
বাস-ট্যাংকার সংঘর্ষে পাকিস্তানে ২০ জন নিহত

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ আগস্ট ২০২২, ২০:৪৬:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তান

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় ভোরে যাত্রীবাহী বাস এবং তেলবাহী ট্যাংকারের সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন। পাঞ্জাব প্রদেশের মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর দ্য ডনের।

সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তেলের ট্যাংকারকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় বাসটি। এরপর সেটিতে বিস্ফোরণ হয়ে বাসে আগুন ধরে যায়।

পুলিশ জানিয়েছে, বাসটিতে ২৪ জন যাত্রী ছিলেন এবং বাসের স্টাফ ছিলেন দুইজন। তারা করাচি থেকে লাহোরের দিকে যাচ্ছিলেন। দুর্ঘটনার পর তেলের ট্যাংকারের চালক পালিয়ে গেছেন।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কিছু মানুষের দেহ এতো বেশি পুড়ে গেছে যে তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ডিএনএ টেস্টের মাধ্যমে এখন পরিচয় খুঁজে বের করতে হবে।

এ ঘটনায় অন্তত ছয়জন গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের মুলতান শহরের নিশতার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তা কাসিফ শাহজাদ গণমাধ্যম আল জাজিরাকে বলেছেন, বাস চালকের বেপরোয়ার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বাস চালকও নিহত হয়েছেন।

জানা গেছে, তেল ট্যাংকারটিতে কয়েক হাজার লিটার তেল ছিল। সংঘর্ষের পর আগুনের বিশাল বড় কুণ্ডলি তৈরি হয়েছিল। ফলে নিহত বা আহতদের বের করে আনতেও হিমশিম খেতে হয়।

সূত্র: দ্য ডন অনলাইন, আল জাজিরা

বাস-ট্যাংকার সংঘর্ষে পাকিস্তানে ২০ জন নিহত

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ আগস্ট ২০২২, ০৮:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পাকিস্তান
দুর্ঘটনা কবলিত বাস ও ট্যাংকার

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় ভোরে যাত্রীবাহী বাস এবং তেলবাহী ট্যাংকারের সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন।  পাঞ্জাব প্রদেশের মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।  খবর দ্য ডনের।

সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তেলের ট্যাংকারকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় বাসটি। এরপর সেটিতে বিস্ফোরণ হয়ে বাসে আগুন ধরে যায়।

পুলিশ জানিয়েছে, বাসটিতে ২৪ জন যাত্রী ছিলেন এবং বাসের স্টাফ ছিলেন দুইজন। তারা করাচি থেকে লাহোরের দিকে যাচ্ছিলেন। দুর্ঘটনার পর তেলের ট্যাংকারের চালক পালিয়ে গেছেন। 

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কিছু মানুষের দেহ এতো বেশি পুড়ে গেছে যে তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ডিএনএ টেস্টের মাধ্যমে এখন পরিচয় খুঁজে বের করতে হবে। 

এ ঘটনায় অন্তত ছয়জন গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের মুলতান শহরের নিশতার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তা কাসিফ শাহজাদ গণমাধ্যম আল জাজিরাকে বলেছেন, বাস চালকের বেপরোয়ার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বাস চালকও নিহত হয়েছেন।

জানা গেছে, তেল ট্যাংকারটিতে কয়েক হাজার লিটার তেল ছিল। সংঘর্ষের পর আগুনের বিশাল বড় কুণ্ডলি তৈরি হয়েছিল। ফলে নিহত বা আহতদের বের করে আনতেও হিমশিম খেতে হয়। 

সূত্র: দ্য ডন অনলাইন, আল জাজিরা

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন