‘যুক্তরাষ্ট্রের অত্যাধুনিক অস্ত্র বড় প্রভাব ফেলতে পারেনি’
jugantor
‘যুক্তরাষ্ট্রের অত্যাধুনিক অস্ত্র বড় প্রভাব ফেলতে পারেনি’

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ আগস্ট ২০২২, ২২:৫৬:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই সোইগু মঙ্গলবার বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো হিমার্স রকেট লঞ্চার ইউক্রেন যুদ্ধে ‘বড় প্রভাব’ ফেলতে পারছে না

যদিও ইউক্রেন দাবি করছে বা পশ্চিমারা জানাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের হিমার্স ইউক্রেনীয় সেনাদের হাতে আসার পর যুদ্ধের গতিপথ বদলে গেছে। একপেশী যুদ্ধের বদলে এখন সমানে সমানে লড়াই হচ্ছে। কারণ হিমার্স দিয়ে দূরে অবস্থিত রাশিয়ার সামরিক স্থাপনার ওপর হামলা চালাতে পারছে ইউক্রেন।

এ ব্যাপারে মস্কোর আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা কাউন্সিলে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই সোইগু বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে হিমার্স মাল্টিপল রকেট লঞ্চার এবং এবং দূরপাল্লার হাউইটজারকে পশ্চিমার সুপার অস্ত্রে উন্নীত করেছে। এসব হিমার্স (যুদ্ধের) পরিস্থিতির ওপর বড় ধরনের কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি। অন্যদিকে রাশিয়ার অস্ত্র যুদ্ধেক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সক্ষমতা দেখিয়েছে।

এদিকে গত কয়েকদিন ধরে ইউক্রেনের সেনারা খেরসনকে লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে। শোনা গেছে এসব হামলার কারণে খেরসনের খেরসন সিটি বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ফেলে সেখান থেকে সরে গেছেন রুশ সেনারা। আর খেরসনে এসব হামলা করা হয়েছে হিমার্স রকেট লঞ্চার দিয়ে।

সূত্র: সিএনএন

‘যুক্তরাষ্ট্রের অত্যাধুনিক অস্ত্র বড় প্রভাব ফেলতে পারেনি’

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ আগস্ট ২০২২, ১০:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই সোইগু মঙ্গলবার বলেছেন,  যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো হিমার্স রকেট লঞ্চার ইউক্রেন যুদ্ধে ‘বড় প্রভাব’ ফেলতে পারছে না

যদিও ইউক্রেন দাবি করছে বা পশ্চিমারা জানাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের হিমার্স ইউক্রেনীয় সেনাদের হাতে আসার পর যুদ্ধের  গতিপথ বদলে গেছে। একপেশী যুদ্ধের বদলে এখন সমানে সমানে লড়াই হচ্ছে।  কারণ হিমার্স দিয়ে দূরে অবস্থিত রাশিয়ার সামরিক স্থাপনার ওপর হামলা চালাতে পারছে ইউক্রেন। 

এ ব্যাপারে মস্কোর আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা কাউন্সিলে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই সোইগু বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে হিমার্স মাল্টিপল রকেট লঞ্চার এবং এবং দূরপাল্লার হাউইটজারকে পশ্চিমার সুপার অস্ত্রে উন্নীত করেছে। এসব হিমার্স (যুদ্ধের) পরিস্থিতির ওপর বড় ধরনের কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি। অন্যদিকে রাশিয়ার অস্ত্র যুদ্ধেক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সক্ষমতা দেখিয়েছে।

এদিকে গত কয়েকদিন ধরে ইউক্রেনের সেনারা খেরসনকে লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে। শোনা গেছে এসব হামলার কারণে খেরসনের খেরসন সিটি বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ফেলে সেখান থেকে সরে গেছেন রুশ সেনারা। আর খেরসনে এসব হামলা করা হয়েছে হিমার্স রকেট লঞ্চার দিয়ে। 

সূত্র: সিএনএন

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা